Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

সচিনদের বিরুদ্ধে এখনই কোনও পদক্ষেপ নয়, আস্থাভোটের তোড়জোড় গহলৌত শিবিরে

রাজস্থান হাইকোর্ট স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে বলায়, আস্থাভোট নিয়ে তৎপরতা শুরু হয়ে গিয়েছে গহলৌত শিবিরে।

সংবাদ সংস্থা
জয়পুর ২৪ জুলাই ২০২০ ১৪:২০
Save
Something isn't right! Please refresh.
হাইকোর্টে স্বস্তি সচিনদের। —ফাইল চিত্র।

হাইকোর্টে স্বস্তি সচিনদের। —ফাইল চিত্র।

Popup Close

রাজস্থান হাইকোর্টে ফের স্বস্তি বিদ্রোহী কংগ্রেস নেতা সচিন পাইলটের। সচিন এবং তাঁর অনুগামীদের পাঠানো স্পিকার সিপি জোশীর নোটিসে ফের স্থগিতাদেশ দিল আদালত। জানিয়ে দেওয়া হল, আপাতত সচিন এবং তাঁর অনুগামী ১৮ জন বিদ্রোহী বিধায়কের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ করতে পারবেন না স্পিকার সিপি জোশী। বরং স্থিতাবস্থা জারি রাখতে বলেছে আদালত। কেন্দ্রকে মামলার একটি পক্ষ করার আর্জি জানান সচিন। তাঁর সেই আর্জিও গ্রহণ করেছে আদালত।

বিজেপির সঙ্গে মিলে সচিন পাইলট এবং তাঁর অনুগামীরা রাজস্থানে সরকার ফেলার চেষ্টা করছেন বলে অভিযোগ কংগ্রেসের। তার মধ্যে দলের পরিষদীয় বৈঠকে যোগ না দেওয়ায় তাঁদের বিরুদ্ধে দলবিরোধী কাজের অভিযোগ তোলেন দলের হুইপ। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই গত ১৪ জুলাই সচিন ও তাঁর অনুগামীদের নোটিশ ধরান রাজস্থান বিধানসভার স্পিকার সিপি জোশী। কেন তাঁদের বিধায়ক পদ খারিজ করা হবে না, তা জানতে চেয়ে সচিন ও তাঁর অনুগামীদের নোটিস ধরান তিনি। ১৭ জুলাইয়ের মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়। কিন্তু সেই নোটিসকে পাল্টা হাইকোর্টে চ্যালেঞ্জ জানান সচিনরা।

সচিন শিবিরের যুক্তি, বিধানসভা অধিবেশনে যোগ দেওয়ার ক্ষেত্রেই হুইপ জারি করতে পারে দল। দলের পরিষদীয় বৈঠকের ক্ষেত্রে সেটি কার্যকর নয়। তাই তাদের বিধায়ক পদ খারিজ করার প্রশ্নই ওঠে না। তা নিয়ে শুনানিতে এর আগে শুক্রবার পর্যন্ত ওই নোটিসে স্থগিতাদেশ দিয়েছিল রাজস্থান হাইকোর্ট। হাইকোর্টের সেই নির্দেশের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে যান সিপি জোশী। তিনি বলেন, বিধায়ক পদ খারিজের প্রক্রিয়ায় হস্তক্ষেপের এক্তিয়ার হাইকোর্টের নেই।

আরও পড়ুন: ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৪৯ হাজার নতুন সংক্রমণ, মোট মৃত্যু ছাড়াল ৩০ হাজার​

কিন্তু বৃহস্পতিবার বিষয়টি নিয়ে শুনানি শুরু হলে, রাজস্থান হাইকোর্টের নির্দেশে স্থগিতাদেশ দিতে রাজি হয়নি শীর্ষ আদালত। হাইকোর্ট স্পিকারের বিধায়ক পদ খারিজের প্রক্রিয়ায় শুক্রবার পর্যন্ত যে স্থগিতাদেশ জারি করেছিল, তাতেও সুপ্রিম কোর্ট হস্তক্ষেপে রাজি হয়নি। সংবিধানে স্পিকারকে যে ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে, তা নিয়ে সোমবার শীর্ষ আদালতে শুনানি রয়েছে। সেই রায়ই শেষ কথা বলবে। কিন্তু তত দিন পর্যন্ত সচিনদের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ করতে পারবেন না সিপি জোশী।

Advertisement

আরও পড়ুন: লকডাউনেও রাজ্যে উড়ান চালু, মুখ্যমন্ত্রীর উষ্মায় মুখ্যসচিব​

এ দিকে, রাজস্থান হাইকোর্ট স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে বলায়, আস্থাভোট নিয়ে তৎপরতা শুরু হয়ে গিয়েছে গহলৌত শিবিরে। এ নিয়ে আলোচনা করতে দুপুরে রাজ্যপাল কলরাজ মিশ্রর সঙ্গে রাজভবনে দেখা করেন অশোক গহলৌত। সেখানে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, ‘‘আমরা সোমবার থেকেই বিধানসভার অধিবেশন শুরু করতে চাই। সেখানেই সব কিছু স্পষ্ট হয়ে যাবে। রাতে রাজ্যপালের সঙ্গে কথা হয়েছে। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সিদ্ধান্ত নিতে অনুরোধ করেছি ওঁকে। এখন সরাসরি দেখা করতে যাচ্ছি। ওঁকে বলব, চাপের মুখে নতিস্বীকার না করে যেন অধিবেশন শুরুতে সায় দেন উনি। তা নইলে জনতা যদি রাজভবন ঘেরাও করতে আমাদের কোনও দায়িত্ব থাকবে না।’’



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement