Advertisement
১৫ জুন ২০২৪
National News

ইস্তফা দিচ্ছেন গভর্নর উর্জিত? কেন্দ্র-আরবিআই সংঘাতে জল্পনা তুঙ্গে

সব মিলিয়ে কেন্দ্র-আরবিআই বিবাদ এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, কার্যত দু’পক্ষের মধ্যে ঠাণ্ডা যুদ্ধের পরিস্থিতি।

কেন্দ্রের সঙ্গে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের সংঘাত চরমে। গ্রাফিক: তিয়াসা দাস

কেন্দ্রের সঙ্গে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের সংঘাত চরমে। গ্রাফিক: তিয়াসা দাস

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ৩১ অক্টোবর ২০১৮ ১৩:৪০
Share: Save:

কেন্দ্র-রিজার্ভ ব্যাঙ্ক সংঘাতে শেষ পর্যন্ত কি ইস্তফাই দিতে চলেছেন গভর্নর উর্জিত প্যাটেল? কেন্দ্র বা রিজার্ভ ব্যাঙ্ক গভর্নরের তরফে কোনও উচ্চবাচ্য না থাকলেও নানা মহলে গুঞ্জন অন্তত তেমনই। ঘটনা পরম্পরা সম্পর্কে ওয়াকিবহাল অভ্যন্তরীণ এক পদস্থ কর্তার মন্তব্য, ‘‘আরবিআই গভর্নর ইস্তফা দিতে পারেন। সব বিকল্পই খোলা রয়েছে।’’ অন্য একটি সূত্র দাবি করেছে, ‘‘কেন্দ্র ও রিজার্ভ ব্যাঙ্কের মধ্যে অভূতপূর্ব সংঘাত তৈরি হয়েছে।’’

শুক্রবাররিজার্ভ ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়ার স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপের চেষ্টা ভবিষ্যতের পক্ষে ভয়ঙ্কর ক্ষতিকারক হতে পারে, মন্তব্য করেনডেপুটি গভর্নর বিরল আচার্য। ইঙ্গিত, কেন্দ্রের হস্তক্ষেপ মুক্ত হওয়ার চেষ্টা আরবিআই-এর। অভ্যন্তরীণ বিষয় জনসমক্ষে নিয়ে আসায় আরবিআই-এর উপর বেজায় ক্ষুব্ধ কেন্দ্র।

মঙ্গলবার, রিজার্ভ ব্যাঙ্ক, সেবি, ইনস্যুরেন্স রেগুলেটরি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অথরিটি, পেনশন ফান্ড রেগুলেটরি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অথরিটির মতো আর্থিক নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলির কর্তাদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির বৈঠক।

মঙ্গলবার, আরবিআই-কে নজিরবিহীন সমালোচনা করেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। তিনি বলেন, ২০০৮ থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের ভ্রান্ত ঋণনীতির জেরেই বর্তমানে ব্যাঙ্কগুলির সঙ্গীণ অবস্থা। এই সময়ে ব্যাঙ্কগুলি যথেচ্ছ ঋণ দেওয়ায় ব্যাঙ্কগুলির অনুৎপাদক সম্পত্তি বেড়েছে কয়েকগুণ।

আরও পড়ুন: বিশ্বের উচ্চতম! সর্দার বল্লভভাই পটেলের মূর্তি উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী

শুধু তাই নয়,গত কয়েক মাসে ডলারের সাপেক্ষে টাকার দাম তলানিতে ঠেকেছে। রিজার্ভ ব্যাঙ্ক একাধিক পদক্ষেপের পরও তা রোখা যায়নি। যা নিয়ে অর্থমন্ত্রক দীর্ঘদিন ধরেই বেজায় অসন্তুষ্ট। কেন্দ্র বারবার বলার পরও অনুৎপাদক সম্পত্তি বৃদ্ধিতে লাগাম পরাতে পারেনি আরবিআই। শেয়ার বাজারে ধস নামছে। আরবিআই বন্ড বিক্রি করে বাজার চাঙ্গা করার চেষ্টা করলেও তার ফল দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। এ নিয়েও কেন্দ্র রিজার্ভ ব্যাঙ্কের উপর ক্ষুব্ধ।

আরও পড়ুন: অমিত প্রার্থী বাংলা থেকে, ওড়িশায় মোদী? সভাপতির জন্য ভাবনায় ৩ আসন, জোর জল্পনা

এর সঙ্গে স্বাধীনতার পর এই প্রথম আরবিআই আইনের ৭ নম্বর ধারা প্রয়োগের চেষ্টা করছে কেন্দ্র। এই আইনে বলা হয়েছে, জনস্বার্থ জড়িত এমন বিষয়ে প্রয়োজনে সময়ে সময়ে গভর্নরের সঙ্গে আলোচনা করে কেন্দ্র রিজার্ভ ব্যাঙ্ককে পরামর্শ দিতে পারে। আইন থাকলেও স্বাধীনতার পর থেকে কোনও সরকারই সেই আইন প্রয়োগ করেনি। কিন্তু অরুণ জেটলি আগেও ইঙ্গিত দিয়েছেন। বুধবার কার্যত স্পষ্টই জানিয়েছেন, এই আইন প্রয়োগ করতে চলেছে কেন্দ্র। কেন্দ্রের সম্ভাব্য ওই পদক্ষেপের তীব্র সমালোচনা করেছেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম।

সব মিলিয়ে কেন্দ্র-আরবিআই বিবাদ এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, কার্যত দু’পক্ষের মধ্যে ঠাণ্ডা যুদ্ধের পরিস্থিতি। আর সেই যুদ্ধে আরবিআই গভর্নর উর্জিত প্যাটেল শেষ পর্যন্ত পরাজয় স্বীকার করে সরেই দাঁড়াতে পারেন বলে জল্পনা জোরদার হয়েছে রাজনৈতিক, ব্যাঙ্কিং-সহ সংশ্লিষ্ট সব মহলে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE