Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৫ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধী এস-৪০০ ভারত পাচ্ছে ২০২৫-এর মধ্যেই

শত্রু দেশের যুদ্ধবিমান, ক্ষেপণাস্ত্রের ড্রোন চিহ্নিত করে, ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ে তাকে গুঁড়িয়ে দেওয়ার ক্ষমতা রয়েছে এই প্রযুক্তির।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ১৭ জানুয়ারি ২০২০ ১৩:৫৭
Save
Something isn't right! Please refresh.
—ফাইল চিত্র।

—ফাইল চিত্র।

Popup Close

আগামী পাঁচ বছরের মধ্যেই ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধী এস-৪০০ প্রযুক্তি হাতে পাবে ভারত। জানিয়ে দিলেন সে রাশিয়ার ডেপুটি চিফ অব মিশন রোমান বাবুশকিন।

রাশিয়া-ভারত-চিন ত্রিদেশীয় বৈঠকে যোগ দিতে আগামী ২২ মার্চ দু’দিনের রুশ সফরে যাচ্ছেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। তার আগেই এই ঘোষণা করলেন বাবুশকিন। তিনি বলেন, ‘‘এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধী ব্যবস্থার কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। ২০২৫-এর মধ্যে তা ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হবে।’’

শত্রুপক্ষের ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধ করতে এত দিন রুশ সেনা এস-৩০০ প্রযুক্তি ব্যবহার করত। তারই উন্নত সংস্করণ এস-৪০০। ‘আলমাজ-আন্তে’ সংস্থা এই প্রযুক্তি তৈরি করে। ২০০৭ সাল থেকে রুশ বাহিনী তা ব্যবহার করে আসছে।

Advertisement

আরও পড়ুন: মুকেশের ফাঁসি হচ্ছেই, প্রাণভিক্ষার আর্জি খারিজ করলেন রাষ্ট্রপতি​

আরও পড়ুন: পারদ ক্রমশ ঊর্ধ্বমুখী, রাজ্যে ফের বৃষ্টির পূর্বাভাস দিল আলিপুর​

শত্রু দেশের যুদ্ধবিমান, ক্ষেপণাস্ত্রের ড্রোন চিহ্নিত করে, ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ে তাকে গুঁড়িয়ে দেওয়ার ক্ষমতা রয়েছে এই এস-৪০০ প্রযুক্তির। এর পাল্লা প্রায় ৬০০ কিলোমিটার। অর্থাৎ পাকিস্তানের সমস্ত বায়ুসেনা ঘাঁটিই ভারতের নাগালের মধ্যে চলে আসবে। তাই এই প্রযুক্তিকে ‘গেমচেঞ্জার’ বলেও উল্লেখ করেছিলেন প্রাক্তন বায়ুসেনা প্রধান বিএস ধানোয়া।

যে কারণে মার্কিন চোখরাঙানি সত্ত্বেও, ২০১৮ সালের অক্টোবরে রাশিয়ার কাছ থেকে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধী এস -৪০০ প্রযুক্তি কেনার চুক্তি স্বাক্ষর করে ভারত। এতে সবমিলিয়ে ৩৯ হাজার কোটি টাকা খরচ পড়বে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement