×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৪ জুন ২০২১ ই-পেপার

আমি বিস্মিত! আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগও পাইনি: মেল পাঠালেন সাইরাস

সংবাদ সংস্থা
২৬ অক্টোবর ২০১৬ ১৪:০০
তিনি ‘বিস্মিত’ অপসারণে। টাটার বোর্ড সদস্যদের জানিয়েছেন সাইরাস। ছবি: পিটিআই।

তিনি ‘বিস্মিত’ অপসারণে। টাটার বোর্ড সদস্যদের জানিয়েছেন সাইরাস। ছবি: পিটিআই।

টাটা সন্সের বোর্ড সদস্যদের ই-মেল করে অসন্তোষ ব্যক্ত করলেন চেয়রম্যান পদ থেকে সদ্য অপসারিত সাইরাস মিস্ত্রি। যে ভাবে তাঁকে সরানো হয়েছে, তাতে তিনি ‘বিস্মিত’ এবং তাঁকে ‘আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দেওয়া হয়নি’ বলে অভিযোগ করেছেন সাইরাস। টাটা গোষ্ঠীর চেয়ারম্যান পদ থেকে সোমবার অপসারিত হয়েছেন সাইরাস মিস্ত্রি। বোর্ড সদস্যরা রতন টাটাকে চার মাসের জন্য অন্তর্বর্তীকালীন চেয়ারম্যান নির্বাচিত করেছেন। তার পর টাটা সন্সের বোর্ডকে পাঠানো মেলে সাইরাস দাবি করেছেন, পাঁচটি অলাভজনক ব্যবসাকে যে ভাবে বয়ে নিয়ে যাচ্ছে টাটা গোষ্ঠী, তাতে সংস্থাকে ১৮০০ কোটি ডলার মূল্য চোকাতে হবে।

সাইরাসের অপসারণের পর থেকেই জল্পনা শুরু হয়েছে, টাটা সন্সের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেবেন তিনি। কিন্তু সাইরাস বা তাঁর পারিবারিক সংস্থা শাপুরজি পালোনজি গোষ্ঠী সে জল্পনা নস্যাৎ করে জানিয়েছে, এখনই টাটা সন্সের সঙ্গে আইনি লড়াইয়ে জড়িয়ে পড়ার কোনও পরিকল্পনা তাঁদের নেই। সাইরাস মিস্ত্রি আদালতে যাবেন কি না, সে উত্তর সময়ই দেবে। কিন্তু তার আগে নিজের অপসারণকে অবৈধ হিসেবে তুলে ধরার সব রকম চেষ্টাই সাইরাস শুরু করে দিয়েছেন। টাটা সন্সের বোর্ড অব ডিরেক্টরসে নয় সদস্য রয়েছেন। সাইরাস মিস্ত্রি নিজেও তাঁদের মধ্যে অন্যতম। বোর্ডের বাকি আট সদস্যকে সাইরাস মেল পাঠিয়েছেন বলে খবর। মেলে তিনি লিখেছেন, তাঁকে যে ভাবে অপসারণ করা হয়েছে, তা ভারতে ‘নজিরবিহীন’। এই অপসারণ প্রক্রিয়া টাটা সন্সের বোর্ডের গরিমাতেও ধাক্কা দিয়েছে বলে সাইরাস মিস্ত্রি মনে করছেন। শুধু অবৈধ প্রক্রিয়ায় অপসারণের অভিযোগ তুলেই অবশ্য থামেননি সাইরাস। মেলে তাঁর দাবি, একাধিক অলাভজনক ব্যবসার বোঝা বইতে বাধ্য করা হচ্ছিল তাঁকে। ইন্ডিয়ান হোটেলস কোম্পানি অর্থাৎ টাটাদের হোটেল ব্যবসা, টাটা মোটরসের যাত্রীবাহী গাড়ির ব্যবসা, টাটা স্টিলের ইউরোপীয় শাখা, টাটা গোষ্ঠীর একটি বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র এবং টাটা গোষ্ঠীর টেলিকমিউনিকেশন ব্যবসা বিপুল লোকসানের মুখ দেখছে বলে সাইরাস মিস্ত্রি বোর্ড সদস্যদের পাঠানো ই-মেলে উল্লেখ করেছেন। গোটা টাটা গোষ্ঠীর সম্পদের মোট মূল্য যা, তার চেয়েও বেশি অর্থ ওই পাঁচটি ইউনিটে ঢালা সত্ত্বেও সেগুলি সঙ্কট কাটিয়ে উঠতে পারেনি বলে সাইরাস মিস্ত্রি মেল-বার্তায় জানিয়েছেন। পূণর্মূল্যায়ন হলে টাটা গোষ্ঠীর সম্পদমূল্য এক ধাক্কায় ১৮০০ কোটি ডলার কমে যেতে পারে বলে সাইরাস তাঁর ই-মেলে দাবি করেছেন। টাটার বোর্ড সদস্যদের সাইরাস যে মেলটি পাঠিয়েছেন, সেটি সংবাদমাধ্যমের হাতেও চলে এসেছে। তাতেই প্রকাশ্যে চলে এসেছে সাইরাসের দেওয়া হিসেব।

টাটা সন্সের বোর্ড বৈঠকে সোমবার ৬ সদস্য সাইরাসের অপসারণের পক্ষে ভোট দেন। ২ বোর্ড সদস্য ভোটদানে বিরত থাকেন। প্রস্তাব যে হেতু সাইরাস সম্পর্কিত, সে হেতু নিয়ম অনুযায়ী তিনি ভোটাভুটির অংশ হতে পারেননি। ফলে ৬-০ ভোটে সাইরাসের অপসারণের প্রস্তাব পাশ হয়ে যায়। ১০ হাজার কোটি ডলার মূল্যের সম্পদের মালিক টাটা সন্সের কর্তৃত্ব ফের রতন টাটার হাতে যায়।

Advertisement

আরও পড়ুন: টাটা বনাম সাইরাস মিস্ত্রি: আইনি মারপ্যাঁচ পৌঁছে গেল আদালতে

রতন টাটার দীর্ঘ দিনের আইনি পরামর্শদাতা হরীশ সালভের মতে, টাটা গোষ্ঠী ব্রিটেনে যে ইস্পাত ব্যবসা চালাচ্ছিল, সাইরাস তা গুটিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। বোর্ড সদস্যরা এই সিদ্ধান্ত মানতে পারেননি। সাইরাসের এই সিদ্ধান্তে টাটা গোষ্ঠীর আন্তর্জাতিক খ্যাতিতেও ধাক্কা লেগেছে বলে সালভের মত।

সাইরাসকে আচমকা সরানো হয়নি বলেও টাটা গোষ্ঠীর আর এক আইনি পরামর্শদাতা মোহন পরাশরণ মঙ্গলবার দাবি করেন। গত এক মাস ধরে বিষয়টি নিয়ে টাটা সন্সের বোর্ড মোহন পরাশরণের থেকে পরামর্শ নিচ্ছিল। তিনি জানিয়েছেন, রতন টাটা নিজেই সাইরাসের সঙ্গে দেখা করে তাঁকে চেয়ারম্যান পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর পরামর্শ দিয়েছিলেন। কিন্তু সাইরাস মিস্ত্রি রাজি হননি। তার পরই বোর্ড সাইরাসকে অপসারণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

Advertisement