×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

টানা বাড়ছে পেট্রল-ডিজেলের দাম, মোদী সরকারকে খোঁচা সীতারামের

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি৩০ নভেম্বর ২০২০ ১৪:৫৭
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

নয়া কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবিতে কৃষক বিক্ষোভে উত্তাল পঞ্জাব-হরিয়ানা। দেশবাসীর নজর সেই দিকে। কিন্তু তার ফাঁকে ক্রমাগত বেড়ে চলেছে পেট্রল-ডিজেলের দাম। গত ১০ দিনে ৯ বার বেড়ে রাজধানী দিল্লিতে সোমবার পেট্রলের দাম দাঁড়িয়েছে লিটার পিছু ৮২ টাকার বেশি। ডিজেল ৭৬ ছুঁই ছুঁই। কলকাতায় দাম আরও বেশি। এই নিয়ে টুইট করে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন সিপিএম সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরিও।

বিশ্বজুড়ে লকডাউনের জেরে কয়েক মাস আগে আন্তর্জাতিক বাজারে কাঁচা তেলের দামে রেকর্ড পতন হয়েছিল। তার পর ধীরে ধীরে লকডাউন যত কমেছে, দাম বাড়তে শুরু করেছে। তবু এ মাসের ১৯ তারিখ পর্যন্ত প্রায় স্থিতিশীল ছিল ভারতীয় বাজারে তেলের দাম। কিন্তু ২০ নভেম্বর থেকে কার্যত টানা বাড়ছে। এই ১০ দিনে লিটার পিছু পেট্রলের দাম বেড়েছে ২ টাকারও বেশি। ডিজেলে বৃদ্ধি প্রায় দেড় টাকা।

বাদল অধিবেশনে পাশ হওয়া তিনটি কৃষি আইনের বিরুদ্ধে গত কয়েক দিন ধরেই কৃষকদের আন্দোলন ঘিরে অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি পঞ্জাব-হরিয়ানায়। সেখানকার কৃষকদের ‘দিল্লি চলো’ আন্দোলনে শামিল হচ্ছেন অন্য অনেক রাজ্যের কৃষকরাও। তার মধ্যে ক্রমাগত ঊর্ধ্বমুখী তেলের দামে মোদী সরকার সাধারণ মানুষের দুর্দশা আরও বাড়িয়ে দিচ্ছেন বলে তোপ দাগলেন সীতারাম। তিনি লিখেছেন, ‘দেশে যখন ঐতিহাসিক কৃষক আন্দোলন চলছে, সেই সময়েই মানুষের জীবন-জীবিকার উপর আরও আঘাত করছে মোদী সরকার'। গত ১০ দিনে তেলের দাম বৃদ্ধির একটি তালিকাও সেই সঙ্গে পোস্ট করেছেন সিপিএম সাধারণ সম্পাদক।

Advertisement

 

আরও পড়ুন: কৃষক বিক্ষোভ নিয়ে মধ্যরাতে অমিতের বৈঠক, সিল করা হল দিল্লির সীমানা

আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত তেলের দাম এবং ডলারের সঙ্গে ভারতীয় মুদ্রার বিনিময় মূল্যের উপর নির্ভর করে তেলের দাম নির্ধারণ করে চার রাষ্ট্রায়ত্ব সংস্থা— ইন্ডিয়ান অয়েল, ভারত পেট্রলিয়াম, হিন্দুস্তান পেট্রলিয়াম এবং অয়েল ইন্ডিয়া লিমিটেড। সেই অনুযায়ী গত ২১ নভেম্বর দিল্লিতে পেট্রলের দাম প্রতি লিটার ছিল ৮১.৩৮ টাকা। ডিজেল ছিল ৭০.৮৮ টাকা। সেখান থেকে বাড়তে বাড়তে সোমবার পেট্রলের দাম হয়েছে ৮২.৩৪ টাকা। কলকাতায় ৮৩.৮৭, মুম্বইয়ে ৮৯.০২ এবং চেন্নাইয়ে ৮৫.৩১ টাকা। সমান তালে বাড়ছে ডিজেলের দামও।



গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

আরও পড়ুন: চিনে ব্রহ্মপুত্রের উপর তৈরি হচ্ছে জলবিদ্যুৎ প্রকল্প, চাপ বাড়ছে ভারতের

বিশেষজ্ঞদের মতে, করোনা ভাইরাসের টিকা বাজারে আসার সম্ভাবনা যত এগিয়ে আসছে, ততই আন্তর্জাতিক বাজারে বাড়ছে অপরিশোধিত তেলের চাহিদা। ফলে দামও বাড়ছে। আর তার সঙ্গে তাল মিলিয়ে ভারতেও ঊর্ধ্বমুখী জ্বালানীর দাম। এই প্রবণতা আরও কিছু দিন বজায় থাকবে বলেই মনে করছেন বাজার বিশেষজ্ঞরা। 

 

Advertisement