×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৬ জুন ২০২১ ই-পেপার

জাতীয় পর্যায়ের কবাডি টুর্নামেন্টে দর্শকাসন ভেঙে তেলঙ্গানায় আহত শতাধিক

সংবাদ সংস্থা
তেলঙ্গানা ২৩ মার্চ ২০২১ ০২:৪২
দর্শকাসন ভেঙে পড়ার পর। ছবি: পিটিআই।

দর্শকাসন ভেঙে পড়ার পর। ছবি: পিটিআই।

তেলঙ্গানায় জাতীয় পর্যায়ের কবাডি টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মাঝেই দর্শকাসন ভেঙে পড়ে আহত হলেন শতাধিক। তাঁদের মধ্যে কয়েক জনের হাত পা ভেঙেছে। দু’জনের অবস্থা গুরুতর বলে জানিয়েছে পুলিশ। সোমবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে সুর্যপেট জেলায়।

৪৭তম জুনিয়র ন্যাশনাল কবাডি টুর্নামেন্ট চলছিল সূর্যপেটের এসপি অফিস ময়দানে। খেলা দেখার জন্য কাঠের পাটাতন দিয়ে অস্থায়ী দর্শকাসন বানানো হয়েছিল। এক একটি স্ট্যান্ডে দেড় হাজার দর্শক বসার মতো আয়োজন করা হয়েছিল। এসপি ময়দানে ১৫ হাজার দর্শক ধারণ ক্ষমতা রয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, ২৯টি রাজ্যের খেলোয়াড়রা এই টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েছেন। আগামী ২৫ মার্চ পর্যন্ত এই টুর্নামেন্ট হওয়ার কথা। সোমবার ছিল টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। রাতে সেই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এক সঙ্গে ৫ হাজার দর্শক হাজির হয়েছিলেন। হাজির ছিলেন রাজ্যের ক্রীড়ামন্ত্রী ভি শ্রীনিবাস গৌড়, এবং আর এক মন্ত্রী জি জগদীশ রেড্ডি। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরু হতেই হঠাৎই একটি স্ট্যান্ড হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ে। তার তলায় চাপা পড়ে যান অনেকেই। তাতে আহত হন শতাধিক। তাঁদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে।

Advertisement

প্রাথমিক ভাবে পুলিশ মনে করছে, স্ট্যান্ডগুলোতে ধারণক্ষমতার বেশি দর্শক বসায় এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। সুর্যপেট জেলার পুলিশ সুপার আর ভাস্করণ বলেন, “আহতদের সূর্যপেট সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। তাঁদের মধ্যে দু’জনের অবস্থা গুরুতর। তাঁদের হায়দরাবাদে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। কী ভাবে এই ঘটনা ঘটল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।”


এক প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, মোট তিনটে স্ট্যান্ড তৈরি করা হয়েছিল। এক একটি স্ট্যান্ডের উচ্চতা ২০ ফুট। চওড়ায় ২৪০ ফুট। এক একটি স্ট্যান্ডে দর্শক ধারণক্ষমতা দেড় হাজার। কিন্তু যা ধারণক্ষমতা তার তুলনায় বেশি দর্শক বসায় ভার রাখতে না পেরে স্ট্যান্ডটি ভেঙে পড়েছে বলে দাবি তাঁর।

Advertisement