×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৭ জুন ২০২১ ই-পেপার

করোনা আবহে ‘সেন্ট্রাল ভিস্তা’ প্রকল্পে নির্মাণ বন্ধের আর্জি, সুপ্রিম কোর্ট রাজি শুনানিতে

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ০৫ মে ২০২১ ১৫:৪৬
‘সেন্ট্রাল ভিস্তা’ প্রকল্পের এই নকশাই সামনে এনেছে কেন্দ্র।

‘সেন্ট্রাল ভিস্তা’ প্রকল্পের এই নকশাই সামনে এনেছে কেন্দ্র।

করোনা পরিস্থিতিতে ‘সেন্ট্রাল ভিস্তা’ প্রকল্পের নির্মাণকার্য বন্ধ রাখা নিয়ে শুনানি করতে রাজি হল সুপ্রিম কোর্ট। দিল্লি হাইকোর্ট সম্প্রতি মামলার শুনানি ১৭ মে পর্যন্ত স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু রাজধানীতে সংক্রমণ এবং মৃত্যু যে গতিতে বৃদ্ধি পাচ্ছে, সে কথা মাথায় রেখে তড়িঘড়ি বিষয়টিতে সুপ্রিম কোর্টের হস্তক্ষেপ চেয়ে আবেদন জমা পড়েছে। তাতে সম্মত হয়েছে শীর্ষ আদালত। তবে এখনও পর্যন্ত শুনানির দিন ধার্য হয়নি।

দুই আবেদনকারীর হয়ে শীর্ষ আদালতে নির্মাণকার্যে স্থগিতাদেশ দেওয়ার আবেদন জানিয়েছেন আইনজীবী সিদ্ধার্থ লুথরা। আদালত তাতে সম্মত হলেও, এই সংক্রান্ত সমস্ত নথিপত্র প্রত্যেক পক্ষের হাতে তুলে দিতে নির্দেশ দিয়েছে আদালত। জরুরি ভিত্তিতে শুনানির জন্য় আলাদা করে আবেদন জানাতে বলা হয়েছে। তার পরই শুনানি শুরু হবে।

অতিমারির প্রকোপে যখন ধুঁকছে গোটা দেশ, সেই পরিস্থিতিতে ২০ হাজার কোটি টাকা খরচ করে সংসদভবন চত্বর সৌন্দর্যায়ন প্রকল্প ‘সেন্ট্রাল ভিস্তা’ চালিয়ে যাওয়া নিয়ে বিরোধিতা শুরু হয়েছে। বিরোধী শিবিরের রাজনীতিকরা তো বটেই, দেশের সাধারণ মানুষও কেন্দ্রীয় সরকারের সিদ্ধান্তের তীব্র সমালোচনা করছেন। হাসপাতালে শয্যা, অক্সিজেনে ঘাটতি নিয়ে যখন ভূরি ভূরি অভিযোগ উঠে আসছে, সেই সময় ওই প্রকল্পকে জরুরি পরিষেবার অন্তর্ভুক্ত করার সিদ্ধান্ত সেই প্রতিবাদের আগুনে ঘি ঢেলেছে। তার মধ্যেই প্রকল্পের কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিতে আবেদন জমা পড়ল শীর্ষ আদালতে।

Advertisement

নির্মাণ চত্বরেই ভিন্ রাজ্য থেকে আসা নির্মাণ শ্রমিকদের থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে এর আগে কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছিল। কিন্তু পরে জানা যায়, নির্মাণস্থল থেকে প্রায় ১৬ কিলোমিটার দূরে বাড়ি ভাড়া নিয়ে থাকেন ওই শ্রমিকরা। এই মুহূর্তে ২০২২ সালের ডিসেম্বর মাসের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর নতুন বাসভবন সম্পূর্ণ করে ফেলার লক্ষ্য তাঁদের। উপ রাষ্ট্রপতির বাসভবনের নির্মাণ শেষ করতে আগামী বছর মে মাস পর্যন্ত সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে।

Advertisement