×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৮ মে ২০২১ ই-পেপার

শিশু নিগ্রহের বিচারে পৃথক কোর্টের নির্দেশ

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ২৬ জুলাই ২০১৯ ০১:৩১
শিশু নির্যাতনের মামলাগুলির বিচারের জন্য প্রশিক্ষিত ও সংবেদনশীল আইনজীবী নিয়োগ করতে হবে কেন্দ্রকে, জানাল কোর্ট।

শিশু নির্যাতনের মামলাগুলির বিচারের জন্য প্রশিক্ষিত ও সংবেদনশীল আইনজীবী নিয়োগ করতে হবে কেন্দ্রকে, জানাল কোর্ট।

শিশু নিগ্রহ সংক্রান্ত মামলার বিচারের জন্য পৃথক আদালত তৈরির নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। সারা দেশে পকসো আইনের অধীনে শতাধিক মামলা ঝুলে রয়েছে। প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের নেতৃত্বেধীন বেঞ্চ আজ জানিয়েছেন, আগামী ২ মাসের মধ্যে বিশেষ শিশু আদালতগুলি তৈরি করে শুনানি চালু করতে হবে সে সব মামলার। পাশাপাশি কোর্ট জানিয়েছে, শিশু নির্যাতনের মামলাগুলির বিচারের জন্য প্রশিক্ষিত ও সংবেদনশীল আইনজীবী নিয়োগ করতে হবে কেন্দ্রকে।

এই আদালতগুলি তৈরি হবে কেন্দ্রীয় প্রকল্পের অধীনে ও সম্পূর্ণ কেন্দ্রীয় অনুদানে। অর্থাৎ প্রিসাইডিং অফিসারের বেতন থেকে শুরু করে আদালতের শিশুবান্ধব পরিবেশ তৈরির জন্য যা যা প্রয়োজন, তার সব খরচ দেবে কেন্দ্র। সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতাকে এ নিয়ে চার সপ্তাহের মধ্যে রিপোর্ট জমা দেওয়ার কথা বলেছে আদলত। দিল্লির সাকেত আদালত চত্বরে দু’টি পৃথক পকসো আদালত রয়েছে বলে উল্লেখ করেন এক আইনজীবী। ক্ষুব্ধ প্রধান বিচারপতি জানান, সাকেতের উদাহরণ এখানে আনার প্রয়োজন নেই। এমন বহু রাজ্য রয়েছে, যেখানে গোপনীয়তার অর্থ বিচারপ্রার্থী ও অভিযুক্তের মধ্যে পর্দা ঝুলিয়ে দেওয়া। প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ আরও বলেন, ‘‘এই বিষয়গুলিই বিচারব্যবস্থায় প্রধান উদ্বেগের বিষয়। বিচারপতি নিয়োগের কলেজিয়াম ব্যবস্থাকে ত্রুটিমুক্ত করা নয়।’’

সারা দেশের অমীমাংসিত পকসো মামলাগুলি সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহের জন্য আরও সময় প্রয়োজন বলে জানান শীর্ষ আদালতের এক আধিকারিক। প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘‘আর কী কী তথ্য চাই আপনাদের? বিচারপতির তুলনায় মামলার সংখ্যা বেশি, এই তথ্য চাই?’’ তিনি এ-ও জানান, শিশু অধিকার নিয়ে সচেতন ও শিক্ষিত ও সংবেদনশীল আইনজীবীদের নিয়োগ করা হবে বিশেষ আদালতগুলিতে।

Advertisement

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও।সাবস্ক্রাইব করুনআমাদেরYouTube Channel - এ।

Advertisement