Advertisement
১৮ জুলাই ২০২৪
Madhya Pradesh Rape Case

অন্তঃসত্ত্বাকে গণধর্ষণ করে পুড়িয়ে খুনের চেষ্টা মধ্যপ্রদেশে! মহিলা কমিশন যাবে না? প্রশ্ন তুলল তৃণমূল

৩৪ বছরের অন্তঃসত্ত্বা এক মহিলাকে ধর্ষণ করেছেন তিন জন। তার পর নির্যাতিতার গায়ে আগুন ধরিয়ে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা হয়েছে। মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন ওই মহিলা। এ নিয়ে শোরগোল মধ্যপ্রদেশে।

—প্রতীকী চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৮:০২
Share: Save:

এক অন্তঃসত্ত্বা মহিলাকে ধর্ষণের পর পুড়িয়ে মারার চেষ্টার অভিযোগ উঠল মধ্যপ্রদেশের মোরেনায়। শনিবার এ নিয়ে শোরগোল শুরু হয়েছে বিজেপি শাসিত ওই রাজ্যে। আর এই ঘটনার নিন্দা করে বিজেপিকে কটাক্ষ করল তৃণমূল। সমাজমাধ্যমে তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক তথা মুখপাত্র কুণাল ঘোষ লেখেন, ‘‘এখন কী বলবে বিজেপি? এ বার কি তাদের তথ্য অনুসন্ধানী দল ঘটনাস্থলে যাবে? জাতীয় মহিলা কমিশন যাবে না? সিবিআই তদন্ত হাতে নেবে না? সেখানে কি মূল অপরাধী এবং তাঁদের রাজনৈতিক প্রভুরা গ্রেফতার হবেন? ঘটনাস্থলে কি বিরোধীরা যেতে পারবেন?’’

বস্তুত, পশ্চিমবঙ্গের উত্তর ২৪ পরগনা জেলার সন্দেশখালি নিয়ে শোরগোল ছড়িয়েছে সারা দেশে। সেখানে শাসকদলের কয়েক জন নেতার বিরুদ্ধে নারী নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে তদন্ত চলছে। কেন্দ্রের তরফে শুরু হয়েছে অনুসন্ধান। তার মধ্যেই সামনে এল মধ্যপ্রদেশের একটি চাঞ্চল্যকর ঘটনা। সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, ৩৪ বছরের অন্তঃসত্ত্বা এক মহিলাকে ধর্ষণ করেছেন তিন জন। তার পর নির্যাতিতার গায়ে আগুন ধরিয়ে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা হয়েছে। নির্যাতিতার শরীরের ৮০ শতাংশই পুড়ে গিয়েছে। হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন তিনি।

পুলিশের পদস্থ এক আধিকারিককে উদ্ধৃত করে সংবাদ সংস্থা আরও জানিয়েছে, ওই নির্যাতিতার স্বামীর বিরুদ্ধে এক মহিলা ধর্ষণের অভিযোগ আনেন। ওই মহিলার সঙ্গে ‘বোঝাপড়া’ করতে গিয়েছিলেন নির্যাতিতা। কিন্তু মহিলার বাড়িতে থাকা তিন জন অন্তঃসত্ত্বা ওই মহিলাকে ধর্ষণ করেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এর পর প্রমাণ লোপাট করার উদ্দেশে তাঁরা নির্যাতিতার শরীরে আগুন ধরিয়ে দেন বলে অভিযোগ। নির্যাতিতাকে নিয়ে হাসপাতালে যাওয়ার সময় তাঁর একটি ভিডিয়ো সমাজমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। সেই ভিডিয়ো নিয়ে নির্যাতিতার স্বামী পুলিশের দ্বারস্থ হন। ধর্ষণে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি বর্তমানে জামিনে মুক্ত। তাঁর অভিযোগ, স্ত্রীকে ধর্ষণের পর খুনের চেষ্টা করা হয়েছে। ইতিমধ্যে নির্যাতিতার বয়ান রেকর্ড করেছেন তদন্তকারীরা।

ওই ঘটনার কথা তুলে ধরে বিজেপিকে নিশানা করেছে তৃণমূল। দলের এক্স হ্যান্ডল থেকে একটি পোস্টে লেখা হয়, ‘‘বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নড্ডা যখন নয়াদিল্লিতে দলের জাতীয় কনভেনশনে ব্যস্ত তখন, ‘ডবল ইঞ্জিন সরকারের’ রাজত্ব মধ্যপ্রদেশে বাঁচার জন্য লড়াই করতে হচ্ছে এক অন্তঃসত্ত্বাকে। তাঁকে ধর্ষণের পর জ্যান্ত পুড়িয়ে মারার চেষ্টা হয়েছে।’’ শেষে লেখা হয়, ‘‘এ বার কি সেখানে জাতীয় মহিলা কমিশনকে পাঠানো হবে? না কি ‘মোদী কি গ্যারান্টি’ রাজ্যে এই অপরাধ হয়েছে বলে তারা নীরব থাকবে?”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Madhya Prdesh BJP TMC Rape case
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE