Advertisement
০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Uma Bharti

প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে ‘উদ্বিগ্ন’, অযোধ্যা যাবেন, তবে ভূমিপুজোয় থাকবেন না উমা

ওই অনুষ্ঠান থেকে তাঁর নাম সরিয়ে দেওয়ার জন্য রাম জন্মভূমি ন্যাসের কর্তাদের জানিয়েছেন উমা।

উমা ভারতী।

উমা ভারতী।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ০৩ অগস্ট ২০২০ ১২:৫৭
Share: Save:

তিনি অযোধ্যা যাবেন বুধবার। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার বিষয়টিকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়েই রামমন্দিরের ‘ভূমিপূজন’ অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন না। সোমবার টুইট করে এই সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছেন রামমন্দির নির্মাণ আন্দোলনের অন্যতম মুখ উমা ভারতী। এর পাশাপাশি, এই অতিমারির আবহে অযোধ্যার ওই অনুষ্ঠানে যাঁরা যোগ দিচ্ছেন সেই সব বিজেপি নেতা, বিশেষত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ওই বিজেপি নেত্রী। এমনকি, ওই অনুষ্ঠান থেকে তাঁর নিজের নাম সরিয়ে দেওয়ার জন্য রাম জন্মভূমি ন্যাসের কর্তাদের জানিয়েছেন উমা।

Advertisement

করোনা ধরা পড়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের। সেই প্রসঙ্গ টেনেই উমা টুইটারে লিখেছেন, ‘‘যখন থেকে শুনেছি অমিত শাহ এবং অন্য বিজেপি নেতাদের করোনা ধরা পড়েছে, তখন থেকেই যাঁরা অযোধ্যার শিলান্যাস অনুষ্ঠানে যাচ্ছেন তাঁদেরকে নিয়ে চিন্তা হচ্ছে। বিশেষ করে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে।’’

বুধবার অযোধ্যায় থাকবেন উমা। কিন্তু রামমন্দিরের ভূমিপুজো অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন না তিনি। অন্য একটি টুইটে তিনি বলেছেন, ‘‘আমি রাম জন্মভূমি ন্যাসের কর্তাদের অনুরোধ করেছি যে অনুষ্ঠান চলাকালীন আমাকে যেন সরযূ নদীর ধারে থাকতে অনুমতি দেওয়া হয়।’’

আরও পড়ুন: আক্রান্ত ৫২৯৭২, ২৪ ঘণ্টার হিসাবে বার আমেরিকাকেও ছাপিয়ে শীর্ষে ভারত

Advertisement

কেন ওই অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন না উমা? টুইটে তার কারণও ব্যাখ্যা করেছেন ওই বিজেপি নেত্রী। তাঁর দাবি, ভোপাল থেকে তিনি ট্রেনে উত্তরপ্রদেশ রওনা দেবেন। অযোধ্যায় তিনি কোনও করোনা রোগীর সংস্পর্শে আসতে পারেন বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন উমা। প্রধানমমন্ত্রী এবং কয়েক’শ মানুষ সেখানে জড়ো হবেন তাই সেখানে যেতে চান না উমা ভারতী। তিনি লিখেছেন, ‘‘সকলে চলে যাওয়ার পরেই তিনি রামলালাকে দর্শন করবেন।’’

আরও পড়ুন: শাহের করোনা, রামমন্দিরের ভূমিপূজার কী হবে!

রবিবার অযোধ্যায় ‘ভূমিপূজন’ অনুষ্ঠান নিয়ে ১২টি টুইট করেছেন উমা। অনুষ্ঠানে যোগ না দিলেও তিনি যে অযোধ্যায় থাকছেন সে কথাও বার বার জানিয়েছেন। লিখেছেন, ‘‘আমার জীবদ্দশায় যে রামমন্দির নির্মাণ শুরু হল এটা গর্বের বিষয়।’’ ওই অনুষ্ঠানে থাকার কথা আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবতেরও। নয়ের দশকের ওই আন্দোলনের প্রধান দুই মুখ লালকৃষ্ণ আডবাণী এবং মুরলীমনোহর জোশী ভিডিয়ো কনফারেন্সের মাধ্যমে ওই অনুষ্ঠানের সাক্ষী থাকবেন বলে জানা গিয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.