Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

UP Assembly Election 2022: বিরোধীদের এক করতে এককাট্টা শরদ-অখিলেশ

এনসিপি সূত্র বলছে, শরদ পওয়ার নিয়মিত অখিলে যাদবের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলছেন। তার ফলেই আগেভাগে বিজেপির লোকসানের পূর্বাভাস দিতে পারছেন তিনি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি ১৫ জানুয়ারি ২০২২ ০৮:১৪
ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

চার দিন আগেই তিনি ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন, উত্তরপ্রদেশে ১৩ জন বিজেপি বিধায়ক সমাজবাদী পার্টি (এসপি)-তে যোগ দিতে চলেছেন। তখন সবেমাত্র স্বামীপ্রসাদ মৌর্য বিজেপি ছাড়ার কথা বলেছেন। স্বাভাবিক ভাবেই মহারাষ্ট্রে বসে পওয়ারের দেওয়া ওই পূর্বাভাসকে কেউই তখন আমল দেননি তেমন। এখন পওয়ারের ভবিষ্যদ্বাণী প্রায় মিলে যাওয়ায় রাজনীতির জগতে প্রশ্ন উঠেছে, পওয়ার এ সব কথা আগে থেকে জানলেন কী ভাবে?

এনসিপি সূত্র বলছে, দলের সভাপতি পওয়ার নিয়মিত অখিলেশ সিংহ যাদবের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলছেন। তার ফলেই আগেভাগে বিজেপির লোকসানের পূর্বাভাস দিতে পারছেন পওয়ার। তিনি চাইছেন, বিজেপিকে ক্ষমতা থেকে সরাতে প্রয়োজনে ভোটের পরে সব দল নিজেদের দ্বন্দ্ব ভুলে এককাট্টা হোক। সে ক্ষেত্রে সব দলই অল্পবিস্তর ভাগ পাবে ক্ষমতার। কার ভাগ্যে কী জুটবে, তা পরে ঠিক করে নেওয়া যাবে। কিন্তু আগে বিজেপিকে হটানো দরকার।

কংগ্রেস যে পওয়ারের এই সূত্র মানতে রাজি, তার ইঙ্গিত দিয়ে কালই প্রিয়ঙ্কা গান্ধী বঢরা বলেছিলেন, প্রয়োজনে বিজেপিকে ক্ষমতাচ্যুত করতে ভোটের পরে তাঁরা অন্য দলকে সমর্থন করবেন। ইঙ্গিত ছিল, এসপি-র দিকেই। আজ এসপি-র তরফেও ইতিবাচক বার্তা মিলেছে। ইঙ্গিত মিলেছে, উন্নাওয়ের কংগ্রেস প্রার্থী, গণধর্ষণ-কাণ্ডে নির্যাতিতার মা আশা সিংহর বিরুদ্ধে এসপি প্রার্থী দেবে না। তবে আশা সিংহকে প্রার্থী করা নিয়ে আজ প্রিয়ঙ্কাকে এক হাত নিয়েছেন বিজেপির মুখপাত্র সম্বিত পাত্র। কংগ্রেস শাসিত রাজস্থানের আলওয়ারে গণধর্ষণের শিকার কিশোরীকে কেন প্রিয়ঙ্কা দেখতে যাচ্ছেন না, সেই প্রশ্ন তুলেছেন সম্বিত। তাঁর অভিযোগ, ঘটনাস্থল থেকে ২৫-৩০ কিলোমিটার দূরে রণথম্ভোরে জন্মদিনও পালন করেছিলেন প্রিয়ঙ্কা।

Advertisement

বিজেপির বিরুদ্ধে সব দলকে এককাট্টা করার নীতি নিয়েই মহারাষ্ট্রে বিপরীত মেরুতে থাকা কংগ্রেস ও শিবসেনাকে এককাট্টা করে মহা বিকাশ আঘাড়ী জোট সরকার তৈরি করেছিলেন পওয়ার। তিনি প্রথম থেকেই বলছেন, বিজেপির বিরুদ্ধে তিনি সব দলকে এককাট্টা করতে সচেষ্ট হবেন। গোয়াতেও মহারাষ্ট্রের মতো কংগ্রেস, এনসিপি, শিবসেনা জোট করে ভোটে যেতে চাইছেন। এনসিপি সূত্রের মতে, বিজেপিতে টিকিট পাওয়া যাবে না দেখলে গোয়ার মতো উত্তরপ্রদেশেও অনেকে দল ছাড়বেন। তাঁরা শিবসেনা, এনসিপি-তে এসে প্রার্থী হতে পারেন। এক কালে গোয়ায় বাল ঠাকরের যথেষ্ট জনপ্রিয়তা ছিল। সেটাও শিবসেনা কাজে লাগাতে পারে।

এনসিপি এসপি-র সঙ্গে উত্তরপ্রদেশে জোট করেছে। তাৎপর্যপূর্ণ হল, পওয়ারকে সম্মান দেখিয়ে অখিলেশ প্রথমেই উত্তরপ্রদেশে এনসিপি-র প্রার্থীর নাম তাঁর জোটের প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেন। বুলন্দশহরের অনুপশার থেকে এই জোটের প্রার্থী হিসেবে লড়বেন এনসিপি-র কে কে শর্মা। এসপি উত্তরপ্রদেশে আরএলডি, সুহেলদেব ভারতীয় সমাজ পার্টি, প্রগতিশীল সমাজবাদী পার্টি (লোহিয়া), জনবাদী পার্টি, মহান দল, আপনা দল (কৃষ্ণা পটেল)-এর সঙ্গে জোট করবে। রাজনৈতিক সূত্রের মতে, এসপি ৪০৩টি আসনের মধ্যে নিজে সাড়ে তিনশোর কাছাকাছি আসনে লড়তে চলেছে। আরএলডি লড়তে পারে ৩৬টি আসনে। বাকি আসন ছোট দলগুলিতে ভাগ করে দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন

Advertisement