Advertisement
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Uttar Pradesh

ওবিসিদের জন্য আসন সংরক্ষণ উত্তরপ্রদেশের পুরভোটে, যোগীর আর্জি মানল শীর্ষ আদালত

ইলাহাবাদ হাই কোর্টের ডিসেম্বর মাসের রায়ে ওবিসিদের জন্য আসন সংরক্ষণ ছাড়াই জানুয়ারি মাসের মধ্যে পুরভোট করানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল যোগী সরকারকে।

পুরভোটের আগে সুপ্রিম কোর্টের রায়ে স্বস্তিতে যোগী আদিত্যনাথ।

পুরভোটের আগে সুপ্রিম কোর্টের রায়ে স্বস্তিতে যোগী আদিত্যনাথ। ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ০৪ জানুয়ারি ২০২৩ ২০:৩০
Share: Save:

উত্তরপ্রদেশের পুরভোটে ‘অন্যান্য অনগ্রসর গোষ্ঠী’ (ওবিসি)-র জন্য আসন সংরক্ষণে উদ্যোগী হয়েছিল যোগী আদিত্যনাথের সরকার। কিন্তু ইলাহাবাদ হাই কোর্ট উত্তরপ্রদেশ সরকারের ওই পদক্ষেপকে ‘অসাংবিধানিক’ বলে চিহ্নিত করে খারিজ করে দেয়। সোমবার হাই কোর্টের রায়ে স্থগিতাদেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

ইলাহাবাদ হাই কোর্টের ওই রায়ে ওবিসিদের জন্য আসন সংরক্ষণ ছাড়াই জানুয়ারি মাসের মধ্যে পুরভোট করানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল যোগী সরকারকে। সেই রায়কে উত্তরপ্রদেশের সরকার সুপ্রিম কোর্টে চ্যালেঞ্জ জানায়। বুধবার প্রধান বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড় এবং বিচারপতি পিএস নরসিমহাকে নিয়ে গঠিত শীর্ষ আদালতের বেঞ্চ ইলাহাবাদ হাই কোর্টের রায়ের উপর স্থগিতাদেশ দিয়েছে। এর পাশাপাশি, আগামী ৩১ মার্চের মধ্যে উত্তরপ্রদেশ ওবিসি কমিশনকে পুরভোটে ওবিসিদের জন্য আসন সংরক্ষণের প্রয়োজনীয়তা ব্যাখ্যা করে একটি রিপোর্ট পেশ করতে বলেছে।

পুর নির্বাচনের আগে শীর্ষ আদালতের এই নির্দেশ উত্তরপ্রদেশে ক্ষমতাসীন বিজেপির কাছে ‘বড় স্বস্তি’ বলে ভোট পণ্ডিতদের একাংশ মনে করছেন। কারণ গত মাসে ইলাহাবাদ হাই কোর্ট রায় ঘোষণার পরেই অখিলেশ যাদবের সমাজবাদী পার্টি অভিযোগ তুলেছিল, পুরভোটে ওবিসিদের সংরক্ষণের সুযোগ দেওয়ার সদিচ্ছা নেই যোগী সরকারের। বুধবার সুপ্রিম কোর্টের রায়কে স্বাগত জানিয়েছে উত্তরপ্রদেশ বিজেপি। প্রসঙ্গত, আশির দশকের নগরপালিকা আইনে তফসিলি জাতি (এসসি), তফসিলি জনজাতি (এসটি) এবং মহিলাদের জন্য পুরভোটে আসন সংরক্ষণের কথা বলা হলেও ওবিসিদের জন্য সংরক্ষণের বিধি নেই।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE