Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

আমরা ন্যায় চাই, সুপ্রিম কোর্টে ন্যায়ই হবে: অযোধ্যা রায়ের আগে তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য শাহনওয়াজের

চলতি মাসেই অযোধ্যা মামলার রায় ঘোষিত হয়ে যাওয়ার কথা। রাম মন্দির, নাকি বাবরি মসজিদ? বিতর্কিত জমি কার? এই প্রশ্নকে ঘিরে মামলা চলেছে দশকের পর দশ

ঈশানদেব চট্টোপাধ্যায়
কলকাতা ০৩ নভেম্বর ২০১৯ ২১:১৮
গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

স্পষ্ট মন্তব্য এড়িয়ে যাচ্ছে বিজেপি। অযোধ্যা মামলায় সুপ্রিম কোর্ট যে রায় দেবে, তা-ই শিরোধার্য হবে— শুনানি শেষ হওয়ার পর থেকে বার বার এ কথা বলতে শুরু করেছেন দেশের শাসক দলের নেতারা। কিন্তু তার মাঝেই ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য বিজেপির জাতীয় মুখপাত্র শাহনওয়াজ হুসেনের। আমরা ‘ন্যায়’ চাই— অযোধ্যা মামলার রায় সম্পর্কে তাঁদের প্রত্যাশার বিষয়ে রবিবার আনন্দবাজারকে এ কথাই বললেন শাহনওয়াজ।

চলতি মাসেই অযোধ্যা মামলার রায় ঘোষিত হয়ে যাওয়ার কথা। রাম মন্দির, নাকি বাবরি মসজিদ? বিতর্কিত জমি কার? এই প্রশ্নকে ঘিরে মামলা চলেছে দশকের পর দশক। অবশেষে দেশের সর্বোচ্চ আদালতে মামলার চূড়ান্ত শুনানি শেষ হয়েছে। রায় কী হতে চলেছে বা রায় কেমন হওয়া উচিত— এ সব বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে দলের নেতা-কর্মীদের নিষেধ করেছেন বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব। খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও আদালতের উপরে আস্থা রাখার ডাক দিয়েছেন, অযোধ্যা মামলা সম্পর্কে স্পর্শকাতর মন্তব্য করে পরিস্থিতির অবনতি না ঘটানোর বার্তা দিয়েছেন। সে নির্দেশ মোটের উপরে মেনেই চলছেন বিজেপি নেতারা। কিন্তু তার মধ্যেও দলের অন্যতম জাতীয় মুখপাত্র রবিবার বুঝিয়ে দিলেন যে, সুপ্রিম কোর্টের কাছ থেকে তাঁদের প্রত্যাশা কী রকম।

দলীয় কর্মসূচিতে কলকাতায় এসেছেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শাহনওয়াজ হুসেন। এ দিন আনন্দবাজারকে দেওয়া সংক্ষিপ্ত সাক্ষাৎকারে অযোধ্যা মামলা প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, ‘‘আমরা ন্যায় চাইছি। সুপ্রিম কোর্ট থেকে ন্যায়ই হবে।’’

Advertisement

ইলাহাবাদ হাইকোর্ট কী রায় দিয়েছিল, রবিবার সে কথা মনে করিয়ে দিয়েছেন শাহনওয়াজ। মন্দিরপন্থীরা বিতর্কিত জমির যে অংশকে মন্দিরের গর্ভগৃহ হিসেবে ধরেন অর্থাৎ যেখানে রামলালার মূর্তি রয়েছে, সেই অংশের উপরে মামলার অন্যতম পক্ষ ‘রামলালা বিরাজমান’-এর দাবিকে ইলাহাবাদ হাইকোর্ট সে সময়ে স্বীকৃতি দিয়ে দিয়েছিল বলে শাহনওয়াজ এ দিন মনে করিয়ে দেন। বিজেপি এই মুহূর্তে ঠিক কী চাইছে, তা স্পষ্ট করে বলা থেকে এ দিন বিরত থেকেছেন শাহনওয়াজ। কিন্তু হাইকোর্টের রায়ের একটি বিশেষ অংশের উপরে জোর দিয়ে শাহনওয়াজ বেশ বুঝিয়ে দিয়েছেন, তাঁর দল কী চাইছে।

আরও পড়ুন: ‘আর লাল ফিতের ফাঁস নেই’, বিনিয়োগ টানতে ব্যাঙ্ককে বার্তা মোদীর

দশকের পর দশক ধরে অযোধ্যার বিতর্কিত জমিতে রাম মন্দির নির্মাণকে নিজেদের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি হিসেবে সামনে রেখেছে বিজেপি। মোদীর নির্দেশে আপাতত উত্তেজক মন্তব্য বিজেপি নেতারা এড়িয়ে যাচ্ছেন ঠিকই। কিন্তু দলের জাতীয় মুখপাত্র ‘ন্যায়’ বলতে কী বোঝাতে চাইছেন, তা নিয়ে রাজনৈতিক শিবিরের সংশয় কমই।

আরও পড়ুন: ৫০:৫০ সঙ্ঘাতের আবহেই অজিত পওয়ার-সঞ্জয় রাউত কথা, এনসিপি-সেনা জোট জল্পনা চরমে

দেশের শীর্ষ আদালতের রায় যদি মন্দির বানানোর পক্ষে সহায়ক না হয়, তা হলে সে রায় একবাক্যে শিরোধার্য করা বিজেপির পক্ষে কতটা সম্ভব হবে? বড়সড় রাজনৈতিক ক্ষতির মুখে পড়তে হবে না তো? ক্ষতির মুখে যে পড়তে হতে পারে, সে কথা শাহনওয়াজ ভাল ভাবেই জানেন। তাই রায় বিরুদ্ধে যেতে পারে, এমন কোনও সম্ভাবনা সম্পর্কে আলোচনাই করতে চাইছেন না। শুধু বলছেন, ‘‘এই সব যদি-কিন্তুর মধ্যে আমি যেতেই চাই না।’’

আরও পড়ুন: লক্ষ্য কাশ্মীরে অস্থিরতা তৈরি, শীতে ফিদায়েঁ হামলা চালাতে পারে পাক জঙ্গিরা, সতর্কবার্তা গোয়েন্দাদের

বার বার যে শব্দটা উচ্চারণ করছেন বিজেপি মুখপাত্র, সেই ‘ন্যায়’ মানে কী? আবার স্পষ্ট জবাব এড়িয়ে গেলেন বিজেপি মুখপাত্র। বললেন, ‘‘ন্যায় কী, সুপ্রিম কোর্ট বলবে।’’ কিন্তু এত বছর ধরে যে দাবি নিয়ে বিজেপি লড়ল, সে দাবি পূরণ না হলে মুখ বুজে মেনে নেওয়া বিজেপির পক্ষে সম্ভব হবে তো? আবার কৌশলী জবাব শাহনওয়াজের। বললেন, ‘‘আমরা এখন আদালতের সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করব। তার আগে কোনও মন্তব্য নয়।’’

রায় পর্যন্ত অপেক্ষা? রায় ঘোষণার পরে কি এখনকার আপাত সহনশীল অবস্থান থেকে সরতে হতে পারে? উত্তর ‘রিজার্ভ’ রাখছে বিজেপি।

আরও পড়ুন

Advertisement