Advertisement
০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
National news

‘আপনি বিয়ে কবে করবেন?’, রাহুল গাঁধীকে ‘আপার কাট’ বিজেন্দ্রর

কিন্তু রাজনীতির বাইরে যে প্রশ্নটা বহু বার উঠেছে, সেই প্রশ্নটাই ফের করা হল একটি অনুষ্ঠানে। আর সেই প্রশ্ন কোনও রাজনীতিবিদের নয়, কোনও দলীয় সমর্থকের নয়, কোনও বিরোধীরও নয়।

রাহুল গাঁধীকে বিজেন্দ্রর প্রশ্ন।

রাহুল গাঁধীকে বিজেন্দ্রর প্রশ্ন।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ২৭ অক্টোবর ২০১৭ ১১:১৯
Share: Save:

রাজনীতি করতে গিয়ে তাঁকে হামেশাই নানা প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়। তা সে বিরোধীদের হোক বা কোনও দলীয় সমর্থকের! তিনি সে সব প্রশ্নের উত্তর দিতে অভ্যস্ত।

Advertisement

আরও পড়ুন: তাজ দেশের ঐতিহ্য! ক্ষত মেরামতিতে নামলেন যোগী

কিন্তু রাজনীতির বাইরে যে প্রশ্নটা বহু বার উঠেছে, সেই প্রশ্নটাই ফের করা হল একটি অনুষ্ঠানে। আর সেই প্রশ্ন কোনও রাজনীতিবিদের নয়, কোনও দলীয় সমর্থকের নয়, কোনও বিরোধীরও নয়। প্রশ্নটা তুলেছেন ভারতের অলিম্পিক পদকজয়ী বক্সার বিজেন্দ্র সিংহ। আর যাঁকে সেই প্রশ্নটা করেছেন, তিনি আর কেউ নন ভারতীয় রাজনীতির ‘মোস্ট এলিজেবল ব্যাচেলর’, কংগ্রেসের সহ-সভাপতি রাহুল গাঁধী।

নয়াদিল্লিতে এক অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন রাহুল। অনুষ্ঠানে স্পোর্টস ডেভেলপমেন্টের উপর আলোচনা চলছিল। দর্শকদের মধ্যে থেকে হঠাত্ বিজেন্দ্র উঠে রাহুলকে দুটো প্রশ্ন করেছিলেন। তাঁর মধ্যে দ্বিতীয় প্রশ্নটা রাহুলের কাছে ছিল ‘আউট অব দ্য রিং’!

Advertisement

স্পোর্টস ডেভেলপমেন্টের উপর কথা ওঠায় রাহুলকে বিজেন্দ্র বলেন, “আমি অনেক সাংসদ, বিধায়ককে কোনও খেলায় অংশ নিতে দেখিনি। এসেছেন, ফিতে কেটে উদ্বোধন করেছেন। কিন্তু ম্যাচ খেলতে দেখা যায়নি।” এর পরই বিজেন্দ্র প্রশ্ন করেন, “আপনি যদি প্রধানমন্ত্রী হন, তা হলে স্পোর্টসের ডেভেলপমেন্টের জন্য কী করবেন?” রাহুল উত্তর দিতে যাবেন, ঠিক সেই সময় দ্বিতীয় প্রশ্নটাও করেন বিজেন্দ্র। আর এটা তাঁর ঘনিষ্ঠ জন তো বটেই, সারা দেশের কাছে কোটি টাকার প্রশ্ন।

আরও পড়ুন: দিন বদলের স্বপ্ন দেখাচ্ছেন রাহুল

সেই দ্বিতীয় প্রশ্নটি হল, রাহুল কবে বিয়ে করছেন? বিজেন্দ্র বলেন, “আমি ও আমার স্ত্রী প্রায়ই আলোচনা করি রাহুল ভাইয়া করে বিয়ে করছেন।” ‘এটা বহু পুরনো প্রশ্ন’— এই বলে রাহুল পাশ কাটানোর চেষ্টা করেছিলেন ঠিকই কিন্তু বিজেন্দ্রও ছাড়বার পাত্র নন। তিনি ফের বলেন, “জবাব তো দিন। অনেক দিন ধরেই দেশবাসী এই উত্তরটার অপেক্ষায় রয়েছে!”

এই ‘আপার কাট’ সামলানো রাহুলের পক্ষে একটু কঠিনই হয়েছিল বটে। তবে উত্তরও দিয়েছেন সুকৌশলে। যেমনটা আগেও করেছেন। এ বারও তিনি বলেন, “আমি ভাগ্যে বিশ্বাস করি। যে দিন হবে, হবে!”

রাহুলের রাজনীতি কেরিয়ার নিয়ে অনকেই জানেন। কিন্তু তাঁর ‘স্পোর্টস এফিসিয়েন্সি’ নিয়ে হয়তো অনেকেই জানেন না। সেটা রাহুলও কার্যত স্বীকার করে নিয়েছেন ওই অনুষ্ঠানে। তিনি বলেন, “হয়ত অনেকেই জানেন না, আমি প্রতি দিন এক ঘণ্টা করে শরীরচর্চা করি। আইকিডোতে আমার ব্ল্যাক বেল্টও রয়েছে। তবে এ সব কথা আমি জনসমক্ষে বলি না।” পাশাপাশি তিনি এটাও জানান, গত তিন-চার মাস ধরে তিনি ঠিক মতো শরীরচর্চা করতে পারছেন না।

এর পরেও রাহুলকে ছাড়েননি বিজেন্দ্র। সব শুনে তিনি একটু ঠাট্টা করেই প্রশ্ন করেন, “ তা হলে সেই শরীরচর্চার কিছু ভিডিও আপলোড করছেন না কেন ? এতে তো অনেক মানুষই অনুপ্রাণিত হতে পারেন!” রাহুল হেসে প্রতিশ্রুতি দেন, “ঠিক আছে, তাই-ই হবে।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.