Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৩ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

আরও জট কর্নাটকে, প্রোটেম স্পিকারকে হঠাতে কোর্টে কংগ্রেস, বেঙ্গালুরু ফিরছে বিধায়ক দল

যদিও ইয়েদুরাপ্পার দাবি, তিনি সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণের ভোটে জিতবেনই। আর তার জন্য ১৫ দিন অপেক্ষারও প্রয়োজন নেই। কিন্তু কী ভাবে জিতবেন, সেই অঙ্ক

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ১৮ মে ২০১৮ ১২:১২
Save
Something isn't right! Please refresh.
পথে নেমে প্রতিবাদ। সামিল গুলাম নবি আজাদ এবং সিদ্দারামাইয়া। ছবি: রয়টার্স

পথে নেমে প্রতিবাদ। সামিল গুলাম নবি আজাদ এবং সিদ্দারামাইয়া। ছবি: রয়টার্স

Popup Close

আরও জটিল কর্নাটক জট। নতুন মামলা দায়ের হল সুপ্রিম কোর্টে। প্রোটেম স্পিকার পদে বিজেপি বিধায়ক বোপাইয়ার মনোনয়নকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে কংগ্রেস। শনিবার বিকেল ৪টেয় কর্নাটক বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতার প্রমাণ দিতে হবে বি এস ইয়েদুরাপ্পাকে। তার কয়েক ঘণ্টা আগে সকাল ১০টায় প্রোটেম স্পিকার নিয়োগ সংক্রান্ত মামলাটি উঠবে সুপ্রিম কোর্টে। সেই মামলার রায় কী হয়, তার উপরে বেশ কানিকটা নির্ভর করছে ইয়েদুরাপ্পা সরকারের ভবিষ্যৎ।

টানা ৮ বার নির্বাচিত কংগ্রেস বিধায়ক দেশপাণ্ডে বর্তমানে কর্নাটক বিধানসভার সবচেয়ে পুরনো বিধায়ক। প্রথা অনুযায়ী প্রোটেম স্পিকার মনোনীত হওয়ার কথা ছিল তাঁরাই। কিন্তু দেশপাণ্ডেকে প্রোটেম স্পিকার না করে ৫ বারের বিজেপি বিধায়ক কে জি বোপাইয়াকে ওই পদে বসানো হয়েছে। আস্থা ভোটে স্পিকারের সক্রিয় সমর্থন পাওয়ার লক্ষ্যেই প্রথা ভেঙে দেশপাণ্ডের বদলে বোপাইয়াকে প্রোটেম স্পিকার করা হল বলে কংগ্রেস-জেডি(এস) অভিযোগ করছে। বোপাইয়ার মনোনয়নকে সুপ্রিম কোর্টে চ্যালেঞ্জও জানানো হয়েছে। শনিবার সুপ্রিম কোর্ট বোপাইয়াকে প্রোটেম স্পিকার করার বিরুদ্ধে রায় দিলে তা ইয়েদুরাপ্পা তথা বিজেপি-র জন্য বেশ বড় ধাক্কা হবে।

কংগ্রেসে এবং জেডি(এস) নিজেদের বিধায়ক দলকে হায়দরাবাদে পাঠিয়ে দিয়েছে বৃহস্পতিবার রাতেই। আস্থাভোটের আগে যাতে বিধায়ক ভাঙাতে না পারে, তা নিশ্চিত করতেই এই বন্দোবস্ত। কিন্তু বিধায়ক ভাঙানোর খেলা তাও চলছে বলে কংগ্রেস এবং জেডি(এস) অভিযোগ করেছে। কংগ্রেস বৃহস্পতিবার একটি অডিও টেপ প্রকাশ করেছে। কংগ্রেসের তরফে দাবি করা হয়েছে যে, ওই অডিও টেপে যে কথোপকথন শোনা যাচ্ছে, তা খনিয়া মাফিয়া জনার্দন রেড্ডির সঙ্গে রায়চুর গ্রামীণ কেন্দ্রের কংগ্রেস বিধায়কের টেলিফোন কথোপকথন। কংগ্রেস বিধায়ককে ফোন করে জনার্দন রেড্ডি বলেছেন, আস্থা ভোটে ইয়েদুরাপ্পাকে সমর্থন করতে। অভিযোগ কংগ্রেসের। টুইটারে কংগ্রেসের তরফে লেখা হয়েছে, ‘‘জনার্দন রেড্ডি স্পষ্ট ভাবে বলছেন, বিজেপি সভাপতি অমিত শাহের সমর্থন পেয়েই তিনি ঘোড়া কেনাবেচা করছেন।’’

Advertisement

কংগ্রেসের এই অভিযোগের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিক্রিয়া দিয়েছে বিজেপি। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা প্রকাশ জাভড়েকর বলেছেন, ‘‘অমিত শাহ এ সব করেন না, ... এমন অনেক অভিযোগ আগেও তোলা হয়েছিল যা মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে।’’



আরও পড়ুন: উড়ল না বিমান, গোপনে বাসে রাজ্য ছাড়লেন জেডি(এস), কংগ্রেসের বিধায়করা

আরও পড়ুন: এ সব কাণ্ড তো পাকিস্তানে হয়! ময়দানে সরব রাহুল

বেঙ্গালুরুতে এ দিন মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদুরাপ্পা বৈঠক সেরেছেন বিজেপি বিধায়দের সঙ্গে। অন্য দিকে হায়দরাবাদের হোটেলে বৈঠকে বসেছিল কংগ্রেস পরিষদীয় দলও। সে বৈঠকে সিদ্দারামাইয়াকে পরিষদীয় দলনেতা নির্বাচিত করা হয়েছে। রাতেই ফের বাসে করে হায়দরাবাদ থেকে বেঙ্গালুরুর উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন কংগ্রেস ও জেডি(এস) বিধায়করা।

রাজ্যপাল বজুভাই বালা সংখ্যাগরিষ্ঠতার প্রমাণ দেওয়ার জন্য ইয়েদুরাপ্পাকে ১৫ দিন সময় দিয়েছিলেন। কিন্তু নিরঙ্কুশ গরিষ্ঠতার জন্য যতজন বিধায়কের সমর্থন প্রয়োজন, সেই সংখ্যক বিধায়কের সমর্থন সম্বলিত চিঠি রাজ্যপালের সামনে পেশ করতে না পারা সত্ত্বেও কেন ইয়েদুরাপ্পাকে আগে সরকার গড়তে ডাকলেন রাজ্যপাল, সেই প্রশ্ন তুলে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয় কংগ্রেস। বৃহস্পতিবার রাতেই কংগ্রেসের সেই মামলার প্রথম শুনানি হয়। আদালত ইয়েদুরাপ্পার শপথ আটকায়নি। কিন্তু শুক্রবার ফের শুনানি হয় মামলার। আদালত জানিয়ে দেয়, সংখ্যাগরিষ্ঠতা যদি থেকেই থাকে ইয়েদুরাপ্পার কাছে, তা হলে তা প্রমাণ করার জন্য ১৫ দিন সময়ের প্রয়োজন নেই। শনিবার বিকেল ৪টে-তেই আস্থা ভোট হবে। সুপ্রিম কোর্টের সেই ডিভিশন বেঞ্চকে ইয়েদুরাপ্পার কৌঁসুলি জানিয়ে দেন, সংখ্যাগরিষ্ঠতার প্রমাণ দিতে ইয়েদুরাপ্পা প্রস্তুত।

বিজেপির বিধায়ক ১০৪ জন। আর কংগ্রেস-জেডি (এস)-র ১১৭ জন। ফলে সংখ্যাগরিষ্ঠতা জোগাড় করতে গেলে ইয়েদুরাপ্পাকে কংগ্রেস ও জেডি(এস)-এ ভাঙ্গন ধরাতে হবে। সে কারণে নিজের দলের বিধায়কদের একজোট রাখাটাই এখন রাহুল ও কুমারস্বামীর সবথেকে বড় চ্যালেঞ্জ। এ জন্যই তাঁরা নির্বাচিত বিধায়কদের হায়দরাবাদে সরিয়ে নিয়ে গিয়েছেন।

যদিও ইয়েদুরাপ্পার দাবি, তিনি সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণের ভোটে জিতবেনই। আর তার জন্য ১৫ দিন অপেক্ষার প্রয়োজনও নেই।

আস্থা ভোটে কী ভাবে জিতবেন ইয়েদুরাপ্পা? সেই অঙ্ক কিন্তু জানায়নি বিজেপি। কংগ্রেস ধরেই নিয়েছে, আনন্দ সিংহ ও প্রতাপ গৌড়া পাটিল-সহ তাদের অন্তত তিন বিধায়ক বিজেপি-তে যাবেন। বিজেপির প্রকাশ জাভড়েকর অভিযোগ করেন, কংগ্রেস তাঁদের একাধিক বিধায়কের সই জাল করেছে! এই অবস্থায় কংগ্রেস ও কুমারস্বামী অভিযোগ করেন, তাঁদের ইডি, সিবিআইয়ের ভয় দেখানো হচ্ছে।

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

(এই প্রতিবেদনটির প্রথম প্রকাশের সময় গ্রাফিকে ভুলবশত কংগ্রেসের আসন সংখ্যার জায়গায় জেডি(এস)-এর আসন সংখ্যা এবং জেডি(এস)-এর আসন সংখ্যার জায়গায় কংগ্রেসের আসন সংখ্যা দেখানো হয়েছিল। অনিচ্ছাকৃত এই ত্রুটির জন্য আমরা দুঃখিত।)

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement