Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

ধর্ষণ করে খুন, আবার ধর্ষণ, দিল্লিতে ধৃত নাবালক

নিজস্ব প্রতিবেদন
০১ ডিসেম্বর ২০১৫ ১৮:০৩

সেই ডিসেম্বর। সেই দিল্লি।

নির্ভয়া কাণ্ডের পর ফের একবার নারকীয় ঘটনার সাক্ষী থাকল রাজধানী শহর দিল্লি। এক ফ্যাশন ডিজাইনারকে খুনের পর গণধর্ষণের অভিযোগ উঠল নাবালক এবং তাঁর সঙ্গীর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর-পশ্চিম দিল্লির মুকুন্দপুরে। গ্রেফতার করা হয়েছে নাবালককে। তবে পলাতক তার সঙ্গী যুবক। অভিযুক্ত নাবালক একটি মোবাইল সারাইয়ের দোকানে কাজ করে। আরেক অভিযুক্ত গাড়ি চালক।
শনিবার সন্ধ্যায় উদ্ধার হয়েছিল ফ্যাশন ডিজাইনারের অর্ধনগ্ন দেহ। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর শিউড়ে ওঠেন তদন্তকারীরা। জানা যায়, ধর্ষণ করে খুন করার পর ফের ধর্ষণ করা হয় নির্যাতিতাকে।

পুলিশ সূত্রে খবর, মুকুন্দপুরে বাবা-মায়ের সঙ্গে থাকতেন পেশায় ডিজাইনার বছর পঁচিশের ওই নির্যাতিতা। আবুধাবিতে থাকেন তাঁর দুই দাদা।

Advertisement

পুলিশি জেরায় অভিযুক্ত নাবালক জানিয়েছে, শুক্রবার রাতে বন্ধুদের সঙ্গে আকন্ঠ মদ্যপান করে ওই নাবালক এবং তার আরও চার বন্ধু। ওই দিন নিজেদের বাড়িতে গিয়েছিলেন যুবতীর বাবা-মা। ওই যুবতী যে একা আছে তা জানত নাবালক। সেই পরিকল্পনামাফিক যুবতীর বাড়িতে বন্ধুকে নিয়ে যায় সে। যৌন হেনস্থা করার উদ্দেশ্য নিয়েই যুবতীর বাড়িতে হানা দেয় তারা।
যুবতীর বাড়ি থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বেই থাকে নাবালক। তাই যুবতীর বাড়িতে ছাদ টপকে ঢুকতে কোনই অসুবিধে হয়নি তাদের। সেখান দিয়ে ঢোকার পর দোতলায় মেয়েটির ঘরের মধ্যে লুকিয়ে ঢোকে তারা। মেয়েটি তখন ঘুমোচ্ছিল। সেই সুযোগে তাঁর গলা টিপে ধরে তারা। আকস্মিক এই ঘটনার জেরে জ্ঞান হারায় যুবতী। অভিযোগ, জ্ঞানহারা যুবতীকে ধর্ষণ করে ওই দু’জন। জ্ঞান ফিরলে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন ওই যুবতী। তখন গলা টিপে তাঁকে খুন করে অভিযুক্তেরা। এর পর কাঁধে করে মেয়েটির দেহ নিয়ে বাড়ীর বাইরে আসে তারা। এলাকার কয়েক জন তাদের দু’জনকে দেখেও। কিন্তু অসুস্থ মহিলাকে পরিবারের লোকেরা হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছে ভেবে কিছু সন্দেহ করেননি তাঁরা।
ঘটনাস্থলের কাছে জঙ্গলে দেহটি ফেলতে যায় তাঁরা। কিন্তু এখানেই শেষ নয়। মৃত্যুর পরও ছাড় দেয়নি বিকৃতকাম দু’জন। মৃত মহিলার উপরই নৃশংস দৈহিক নির্যাতন চালায় তারা। মহিলাকে বিবস্ত্র করে গণধর্ষণ করে। তার পর দেহ ফেলে পালায় তারা। শনিবার সকালে নিখোঁজের অভিযোগ জানান মেয়েটির পরিবার। শনিবার সন্ধ্যায় জঙ্গল থেকে উদ্ধার হয় মেয়েটির দেহ। পুলিশ নাবালককে ধরতে পারলেও এখনও খোঁজ নেই অভিযুক্ত গাড়িচালকের। ঘটনার কথা সামনে আসতেই চা়ঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার দিল্লির মুকুন্দপুর চক অবরোধও করেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

আরও পড়ুন

Advertisement