• অগ্নি রায়
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বিশ্বাস করি, মোদী মুসলিম মৌলবাদ মোকাবিলা করতে পারবেন, বললেন ট্রাম্প

Modi and Trump
ভারত-মার্কিন শীর্ষ দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে নরেন্দ্র মোদী ও ডোনাল্ড ট্রাম্প।—ছবি রয়টার্স।

বাণিজ্য এবং সন্ত্রাসবাদ। আজ ভারত-মার্কিন শীর্ষ দ্বিপাক্ষিক বৈঠক হল এই দুটি বিষয়কে ঘিরেই। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানালেন, দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য চুক্তি শীঘ্রই চূড়ান্ত হবে। আজ রাষ্ট্রপুঞ্জের পার্শ্ববৈঠকের আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে পাশে নিয়ে তিনি আরও জানান, মুসলিম মৌলবাদী সন্ত্রাসের সমস্যা মেটাতে  মোদী যথেষ্ট সক্ষম। তবে পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে মোদীকে একই বন্ধনীতে রেখে ট্রাম্পের বক্তব্য, “আমি আশাবাদী, মোদী ও ইমরান পরস্পরকে জানলে তাঁদের বোঝাপড়া ভাল হবে। আর তার ফলাফল শুভ হবে বলেই আমার বিশ্বাস।” এ দিন ফের ট্রাম্পকে সপরিবার ভারতে আসার আমন্ত্রণ জানান মোদী।

আজ মোদীর সঙ্গে বৈঠকের আগে ফের কাশ্মীর নিয়ে সালিশির প্রসঙ্গ তুলে নয়াদিল্লিকে কিছুটা অস্বস্তিতে ফেলেন ট্রাম্প। কিন্তু বৈঠকের আগে তাঁর মন্তব্যে স্বস্তি ফিরেছে ভারতীয় শিবিরে। মোদীকে পাশে নিয়ে তিনি বলেন, ‘‘আমরা শীঘ্রই দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য চুক্তির কথা ঘোষণা করব।’’ মোদী বলেন, ‘‘শীঘ্রই দু’দেশের দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যের পরিমাণ ৬ হাজার কোটি মার্কিন ডলারে পৌঁছবে। হিউস্টনে বিদ্যুৎ ক্ষেত্রে একটি ভারতীয় সংস্থা বড় বিনিয়োগ করেছে। সেখানে ৫০ হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হবে। এটা ভারতের পক্ষে বড় উদ্যোগ।’’ ভারতে মার্কিন পণ্যের উপরে ‘অন্যায্য’ হারে শুল্ক নিয়ে সরব হয়েছিলেন ট্রাম্প। ফলে বাণিজ্য চুক্তি নিয়ে দড়ি টানাটানি চলছিল অনেক দিন ধরেই।  

পাশাপাশি সন্ত্রাস প্রশ্নে রাষ্ট্রপুঞ্জে পাকিস্তানকে কোণঠাসা করতে চাইছে ভারত। আজ মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘‘মুসলিম মৌলবাদের সমস্যার মোকাবিলা মোদী করতে পারবেন বলেই আমার বিশ্বাস।’’ বিদেশ মন্ত্রক সূত্রের মতে, এর ফলে সীমান্তপারের সন্ত্রাস মোকাবিলায় আরও স্বাধীনতা পেতে পারে ভারত। বৈঠকের পর বিদেশসচিব বিজয় গোখলে বলেন, “আজ নরেন্দ্র মোদী এবং ট্রাম্পের মধ্যে জম্মু ও কাশ্মীরে গত তিরিশ বছর ধরে চলা সন্ত্রাস নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। তিনি আরও জানিয়েছেন যে, মুসলিম বাসিন্দার সংখ্যার দিক থেকে ভারত বিশ্বে দ্বিতীয়। সেই তুলনায় ভারতে মৌলবাদের প্রসার অনেক কম হয়েছে।” গোখলের বক্তব্য, “ভারত কখনও পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনা থেকে পালিয়ে যায়নি। কিন্তু পাকিস্তান আলোচনায় সাড়া দেয়নি।”  

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন