• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

করোনার জেরে পানশালা বদলে যাচ্ছে মুদিখানায়, বাড়িতে পৌঁছে যাচ্ছে ককটেল

Bar
বারে বিক্রি হচ্ছে টয়লেট পেপার। ছবি: ফেসবুক থেকে নেওয়া।

করোনাভাইরাসের প্রকোপ অতিমারির আকার ধারণ করার পরই গোটা বিশ্বে চাল, ডালের মতো অতিপ্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী সংগ্রহ করতে হুড়োহুড়ি পড়ে গিয়েছে। ফলে এই সব দ্রব্যের ব্যবসায় মজুত জিনিসপত্রেে টান পড়ছে। অন্যদিকে রেস্তরাঁ, বার, সিনেমা হলের মতো জায়গা বন্ধ করে দেওয়ায় ক্ষতির মুখে পড়ছে সেগুলি। এই পরিস্থিতিতে ব্যবসার চরিত্র বদলে নিজেদের টিকিয়ে রাখার চেষ্টা করছে কিছু সংস্থা।

সোশ্যাল মিডিয়ায় এমনই কিছু পোস্ট ছড়িয়ে পড়েছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে, পানশালায় মদের বদলে বিক্রি হচ্ছে খাবার, টয়লেট পেপার। শুধু তাই নয়, কোথাও আবার বাড়িতে ককটেল পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।

সিনেমা হল, বিনোদন পার্ক, কিছু শপিং মল, পার্কের মতো সময় কাটানোর জায়গা, স্পোর্টস সেন্টার, রেস্তরাঁ, বার, ক্যাফে বন্ধের নির্দেশর ফলে বিপুল আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়তে হচ্ছে এই ক্ষেত্রগুলিকে। তাই আপাতত টিকে থাকতে এই সংস্থাগুলি নিজেদের ব্যবসার ধরন বদলে ফেলছে। অস্ট্রেলিয়ায় এমন বেশ কিছু বার, পাব, ক্যাফে, হোটেল এখন খাবার, জল ও অন্যান্য নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী বিক্রি করছে। এমনকি ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থাও করেছে।

আরও পড়ুন: আবেগ চেপে কাচের আড়াল থেকে প্রথমবার নাতিকে দেখলেন বৃদ্ধ!

উদ্ভুত পরিস্থিতিতে অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলসের সরকারও ব্যবসার আইনে কিছু ছাড় দিচ্ছে। ফলে এখন অনেক পাব, ক্যাফে, বার থেকে যে কেউ বাড়ি নিয়ে যেতে পারেন বা অনেক ক্ষেত্রে মদ, ককটেল বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। আর এই নতুন ব্যবস্থার কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় বিজ্ঞাপন দিয়ে জানানোও হচ্ছে মানুষকে।

আরও পড়ুন: করোনায় নিয়ম ভেঙে মাঝ রাস্তায় শাস্তির মুখে, ছাড় নেই মহিলাদেরও

নিউ সাউথ ওয়েলসের ক্রেতা পরিষেবামন্ত্রী ভিক্টর ডমিনেলো জানিয়েছেন মানুষের স্বাস্থ্য সবার আগে কিন্তু তাঁদের অর্থনীতিও বাঁচাতে হবে। তাই দু’দিক বাঁচিয়েই তাঁরা করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করছেন।

দেখুন সেই সব পোস্ট:

 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন