• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মন্দিরের পবিত্র জলে শরীর ধুয়ে প্রবল সমালোচিত বিদেশি যুগল

Bali
মন্দিরের পুজো দিচ্ছেন চেক দম্পতি। ছবি: দ্য জাকার্তা পোস্টের সৌজন্যে।

Advertisement

ইন্দোনেশিয়াবালির এক মন্দিরকে অপবিত্র করার অভিযোগে এক চেক দম্পতিকে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়তে হল। চাপে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষমা চাইলেন তাঁরা। মন্দির পবিত্র করার অনুষ্ঠানেও অংশ নিতে হল।তার আগেই অবশ্য তাঁদের এই ‘নোংরা’ কাজের জন্যইন্দোনেশিয়ার পবিত্র ভূমি থেকে বের করে দেওয়ার দাবিও ওঠে।

চেকোস্লোভাকিয়ার জেনেক স্লৌকা ও তাঁর বান্ধবী সাবিনা ডোলেজালোভা ১১ অগস্ট ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেন। সেখানে দেখা যাচ্ছে, সাবিনা তাঁর মিনি স্কার্ট তুলে ধরছেন, আর জেনেক একটি উত্স থেকে আসা পবিত্র জল ছিটিয়ে দিচ্ছেন সাবিনা গায়ে। হাসিতে ফেটে পড়ছেন সাবিনা।

ঘটনাটি উবুদের বেজি মন্দিরের। উবুদ, ইন্দোনেশিয়ার সাংস্কৃতিক কেন্দ্রস্থল। ভিডিয়োটি পোস্ট হতেই নিন্দার ঝড় ওঠে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ইন্দোনেশিয়ায় প্রতিবছর কয়েক লক্ষ পর্যটক যান সুন্দর সুন্দর মন্দির, সমুদ্র সৈকত ও বিনোদনের টানে। সেখানে এভাবে পবিত্র মন্দিরকে অপমান করায় প্রতিবাদের ঝড় উঠে। বেগতিক বুঝে, ক্ষমা চাইতে বাধ্য হয় ওই যুগল। তাঁদের দাবি, না জেনে এই কাজ করে ফেলেছেন তাঁরা।

আরও পড়ুন : রাস্তায় উত্পাত করে বাড়ি ফিরল চিনা উটপাখি, ভাইরাল ভিডিয়ো

আরও পড়ুন : নাতির গাঁজা দেওয়া ব্রাউনি খেয়ে দেখুন ঠাকুমার কীর্তি!

চাপের মুখে জেনেক ও সাবিনা বৃহস্পতিবার ফের ওই মন্দিরে যান। সেখানে প্রথাগত পোশাক পরে, মন্দিরে পুজো দেন। মন্দিরের ঘণ্টা বাজিয়ে প্রার্থনা করেন। পুরোহিত তাঁদের মাথায় পবিত্র জল ছিটিয়ে দেন। সাবিনার দাবি, তাঁরা তাঁদের ভুল বুঝতে পেরেছেন। এই জায়গাটিকে ফের আসার সুযোগ পেয়ে তাঁরা কৃতজ্ঞ।

বালির কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, ওঁরা ভুল করেছেন, সেটা ওঁরা বুঝতে পেরেছেন। যদি কেউ বালির পবিত্রতা নষ্ট করেন, তবে নিয়ম মেনেই তাঁদের ভুল শুধরে শুদ্ধিকরণে অংশ নিতে হয়।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন