Advertisement
০৭ ডিসেম্বর ২০২২
Dog

Inspirational Story: কুকুর পছন্দ করতেন না! এখন ১২০ জন সারমেয়ের অন্নদাত্রী ৯০-এর বৃদ্ধা

কুকুরের থেকে শত হস্ত দূরে থাকতেন বৃদ্ধা। অথচ সেই তিনিই এখন রাস্তার ১২০ জন সারমেয়ের মুখে অন্ন তুলে দেন।

বয়সজনিত শারীরিক সমস্যাকে উপেক্ষা করেই প্রতি দিন নিজের হাতে খাবার বানান ৯০-এর বৃদ্ধা।

বয়সজনিত শারীরিক সমস্যাকে উপেক্ষা করেই প্রতি দিন নিজের হাতে খাবার বানান ৯০-এর বৃদ্ধা। ছবি-সংগৃহীত

সংবাদসংস্থা
মুম্বই শেষ আপডেট: ২৯ জুলাই ২০২২ ১৬:১১
Share: Save:

৯০ বছর বয়সি কনকবালা। মুম্বইয়ের বাসিন্দা। ভোর হতে না হতেই বিছানা ছাড়েন তিনি। ঘড়ির কাঁটায় তখন ৪.৩০। প্রতি দিন একই সময়ে ঘুম থেকে উঠে পরিষ্কার রান্না চাপান। তবে নিজের বা বাড়ির জন্য নয়, যত্ন নিয়ে রান্না করেন রাস্তার ১২০ জন চারপেয়ের জন্য। তবে রাস্তায় থাকা কুকুরদের প্রতি এই ভালবাসা কিন্তু কনকবালার আজন্ম নয়। এমনকি, কুকুর একেবারেই পছন্দ করতেন না বৃদ্ধা। কিন্তু এক দিন নাতনি সানা বাড়িতে একটি ছোট্ট কুকুরছানা নিয়ে আসে। বাড়িতে কুকুর পায়ে পায়ে ঘুরে বেড়াক, একেবারেই না-পসন্দ ছিল তাঁর। তবে ধীরে ধীরে পোষ্যের প্রতি স্নেহ জন্মাতে শুরু করে। নিজেই ভেবেচিন্তে কুকুর ছানাটির নাম রাখেন কোকো।

যত সময় গড়ায় কনকের বন্ধু হয়ে ওঠে কোকো। পোষ্যের যাবতীয় দায়িত্ব নিজের কাঁধেই তুলে নেন। কুকুরদের প্রতি কী ভাবে এত স্নেহ জন্মাল, তা তিনি নিজেই জানিয়েছেন। কোকোকে বড় করতে করতে রাস্তার কুকুরদের প্রতিও মায়া পড়ে গিয়েছে তাঁর। তাদের নিয়ে ভাবনাচিন্তা শুরুও করেন। সেই ভাবনা থেকে রাস্তার চারপেয়েদের মুখে খাবার তুলে দেওয়ার কথা মাথায় আসে। সেই থেকে বয়সজনিত শারীরিক সমস্যাকে উপেক্ষা করেই প্রতি দিন নিজের হাতে খাবার বানান ৯০-এর বৃদ্ধা। ইতিমধ্যেই কুকুরকে খাওয়ানোর এই ভিডিয়ো ছড়িয়ে পড়ছে নেটমাধ্যমে। অনেকেই কুর্নিশ জানিয়েছেন কনককে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.