Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৩ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

করোনার কারণে বাড়ছে পুরুষের বন্ধ্যাত্ব, কফি কি কোনও উপকার করতে পারে?

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ৩১ মে ২০২১ ২০:১২
কফি কি শারীরিক সম্পর্কের চাহিদা বাড়িয়ে দেয়?

কফি কি শারীরিক সম্পর্কের চাহিদা বাড়িয়ে দেয়?
ছবি: সংগৃহীত

করোনা কালে পুরুষের বন্ধ্যাত্ব বাড়ছে। একদিকে যেমন ভাইরাস সংক্রমণের কারণে কমছে যৌন ক্ষমতা, অন্যদিক মানসিক চাপ ক্রমশ শারীরিক সম্পর্কের ইচ্ছে কমিয়ে দিচ্ছে। এই অবস্থায় যে পুরুষেরা অতিরিক্ত কফি পান করেন, তাঁদের ক্ষেত্রে কী হচ্ছে? যৌন ক্ষমতা কি আরও কমে যাচ্ছে? নাকি উল্টোটা?

হালের গবেষণায় উঠে এসেছে শারীরিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে কফির কয়েকটি ভূমিকার কথা। দেখে নেওয়া যাক সেগুলি কী কী?

Advertisement

পুরুষের বন্ধ্যাত্ব কমাতে: পরিসংখ্যান বলছে, যে পুরুষেরা রোজ ২-৩ কাপ কফি পান করেন, তাঁদের ক্ষেত্রে বন্ধ্যাত্ব বা ‘ইরেকটাইল ডিসফাংশন’-এর সমস্যা কমে। তবে তার মানে এই নয় যে, কফির মাত্রা বাড়িয়ে গেলে এই সমস্যার পরিমাণও কমতে থাকবে। তাতে বিশেষ লাভ হবে না। ২-৩ কাপই যথেষ্ট।

শারীরিক সম্পর্কের ইচ্ছে বাড়াতে: যে সব পুরুষেরা নিয়মিত কফি পান করেন, তাঁদের শারীরিক সম্পর্কের ইচ্ছেও কিছুটা বাড়ে। যৌন উদ্দীপক হিসেবে কফি কাজ করে।

মানসিক চাপ কমাতে: শারীরিক সম্পর্কের সঙ্গে মনের সরাসরি যোগ আছে। মানসিক চাপ বাড়লে শারীরিক সম্পর্কের ইচ্ছে কমে যায়। কফির গন্ধ এই মানসিক চাপ কমাতে সাহায্য করে। ফলে একই সঙ্গে বাড়ে শারীরিক সম্পর্কের ইচ্ছে।

মোদ্দা কথায়, যে সব পুরুষেরা নিয়মিত কফি পান করেন, তাঁদের যৌন শক্তি কিছুটা হলেও বাড়ে। হারিয়ে যাওয়া ইচ্ছে কিছুটা ফিরে আসে। তবে মাত্রাতিরিক্ত কফি ঘুম কমিয়ে দেয়। এর ফলে শরীর ক্লান্ত হয়ে গিয়ে উল্টো ফল হতে পারে। তাই দিনের শুরুতে ১ কাপ, আর বাকি সারা দিন মিলিয়ে আরও ২ কাপের বেশি কফি পান করা উচিত নয়।

আরও পড়ুন

Advertisement