Advertisement
০৩ মার্চ ২০২৪
Bitter Gourd

উচ্ছে খাবেন, অথচ তেতো লাগবে না! কোন ৫ টোটকা মানলে সম্ভব হবে এমন?

উচ্ছের সঙ্গে নয়, এর স্বাদ নিয়েই যত অসন্তোষ। তবে কয়েকটি কৌশল আছে, জেনে নিলে উচ্ছের তেতো ভাব খানিকটা কাটানো যাবে।

Easy ways to reduce the bitterness of Bitter Gourd.

উচ্ছের স্বাদ বদলে দেবেন কী ভাবে? ছবি: সংগৃহীত।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ৩০ নভেম্বর ২০২৩ ১৯:১৩
Share: Save:

উচ্ছের নাম শুনেই অনেকের মন বিরক্তি ভরে ওঠে। মিষ্টি, ঝাল, টকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক থাকলেও, তেতো যেন চিরকালের শত্রু। এ দিকে বাঙালি বাড়ির হেঁশেলে আবার উচ্ছের অবাধ যাতায়াত। শুক্তো কিংবা ভাজা, কোর্মা, কালিয়ার আগে প্রথম পাতে উচ্ছে থাকেই। উচ্ছের স্বাদ যদি তেতো না হত, তা হলে উচ্ছে অনেকেরই পছন্দের সব্জির তালিকায় থাকত। ফলে উচ্ছের সঙ্গে নয়, এর স্বাদ নিয়েই যত অসন্তোষ। তবে কয়েকটি কৌশল আছে, জেনে নিলে উচ্ছের তেতো ভাব খানিকটা কাটানো যাবে।

১) উচ্ছে শুক্তোতে দিন কিংবা আলুর সঙ্গে ভাজুন, উচ্ছে কাটার সময় প্রথমেই মনে করে বীজগুলি ফেলে দিন। বীজ মুখে পড়লে তেতো লাগবে বেশি। তা ছাড়া বীজের তিতকুটে ভাব অনেক বেশি। ঝোলের সঙ্গে মিশে আরও তেতো হয়ে যায়।

২) উচ্ছে কেটেই রান্না শুরু করে দেবেন না। প্রথমে উচ্ছেগুলি কেটে ভাল করে ধুয়ে নিন। তার পর একটু বেশি করে নুন মাখিয়ে রাখুন। নুন উচ্ছের তেতো স্বাদ অনেকটাই ফিকে করে দেবে।

৩) নুন মাখাতে ভুলে গেলেও চিন্তার কিছু নেই। নুন জলে ভিজিয়ে রাখুন কিছু ক্ষণ। খাওয়ার সময় দেখবেন তিতকুটে ভাব অনেকটাই চলে গিয়েছে।

Easy ways to reduce the bitterness of Bitter Gourd.

কয়েকটি কৌশল আছে, জেনে নিলে উচ্ছের তেতো ভাব খানিকটা কাটানো যাবে। ছবি: সংগৃহীত।

৪) বাড়িতে দই আছে? দই দিয়ে উচ্ছে রান্না করতে হবে না। কিন্তু উচ্ছে কেটে দু’চামচ দই মাখিয়ে রাখুন, খাওয়ার সময় স্বাদই বদলে যাবে উচ্ছের।

৫) উচ্ছেতে নুন মাখানোর পর জল বেরোতে থাকে। সেই জল সহ কড়াইয়ে দিয়ে দেবেন না। উচ্ছে চেপে জল বার করে নিন। তা হলে আর অসুবিধা হবে না।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE