Advertisement
১৬ জুন ২০২৪
Victoria Beckham

মেকআপ ছাড়া কোনও দিন বরের সামনেও যাননি, স্বীকারোক্তি ডেভিড-পত্নী ভিক্টোরিয়া বেকহ্যামের

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে ভিক্টোরিয়া বেকহ্যাম জানান, ভুরু না এঁকে তিনি কখনও তাঁর বর ডেভিডের সামনেও যাননি। মেকআপ নিয়ে তিনি এত বেশি খুঁতখুঁতে, নিজেই জানালেন ডেভিড-পত্নী।

Fashion designer Victoria Beckham says her husband David Beckham has never seen her real eyebrows.

মেকআপ নিয়ে কেন এত খুঁতখুঁতে ভিক্টোরিয়া? ছবি: সংগৃহীত।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ২০ ডিসেম্বর ২০২৩ ১৩:৪৪
Share: Save:

তিনি ভিক্টোরিয়া বেকহ্যাম। ইংল্যান্ডের প্রাক্তন ফুটবলার ডেভিড বেকহ্যামের স্ত্রী। পাশাপাশি ফ্যাশন ডিজ়াইনার হিসাবে গ্ল্যামার জগতেও তাঁর বেশ নামডাক আছে। ৪৯ বছর বয়সেও তাঁর সৌন্দর্যে মুগ্ধ গোটা বিশ্ব। নিজের সৌন্দর্যচর্যায় কখনও কোনও খামতি রাখেননি তিনি।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে ভিক্টোরিয়া বলেন, ভুরু না এঁকে তিনি কখনও তাঁর বর ডেভিডের সামনেও যাননি। ভিক্টোরিয়া বলেন, ‘‘ভুরু নিয়ে আমি ভীষণ খুঁতখুঁতে। ভুরু না এঁকে আমি কখনও আমার বরের সামনেও যাইনি। মেকআপ করতে আমি ভালবাসি, ওই একটা কাজে আমি স্কুলের সময় থেকে দক্ষ।’’

সাক্ষাৎকারে ভিক্টোরিয়া জানান, তাঁর রূপ নিয়ে ছোটবেলায় অনেকেই মজা করত। ভিক্টোরিয়া বলেন, ‘‘আমায় নিয়ে ছোটবেলায় অনেকেই হাসাহাসি করত। এর প্রভাবে একটা সময় আমি মানসিক ভাবে ভেঙে পড়ি। এর পর থেকেই হয়তো নিজের রূপ নিয়ে অনেক বেশি সতর্ক হয়েছি।’’

সৌন্দর্য ধরে রাখতে ভিক্টোরিয়া যে সব ময়েশ্চারাইজ়ার ব্যবহার করেন, সেটি নাকি তাঁর রক্ত থেকে তৈরি করা হয়। শরীরের কোষ থেকে তৈরি ময়েশ্চারাইজ়ার তাঁর ত্বকের জেল্লা ধরে রাখতে সাহায্য করে, কয়েক বছর আগে এক সাক্ষাৎকারে ভিক্টোরিয়া নিজেই এই রহস্য ফাঁস করেন। বেকহ্যামের স্ত্রী জানিয়েছিলেন, সেই ময়েশ্চারাইজ়ার ব্যবহার করে তাঁর ত্বক নরম এবং আরও ঝকঝকে দেখায়। এই ময়েশ্চারাইজ়ার তৈরিতে খরচ হয় প্রায় ১ হাজার ২০০ পাউন্ড (ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১ লক্ষ ২৬ হাজার টাকা)।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Makeup Victoria Beckham david beckham
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE