দুধ না খেলে হবে না ভাল ছেলে!’ গানের এই পঙক্তির জোরে বাড়ির খুদে সদস্যটির দুধ খাওয়া না হয় নিশ্চিত করা গেল। শরীর গঠনে ও পুষ্টিগুণের জোগান দিতে দুধের কোনও বিকল্প হয় না। কিন্তু এই দুধের কারসাজিতে যে ত্বকেরও নানা উপকার হতে পারে, তা কি জানেন?

প্রতি দিনের ব্যস্ততা কাটিয়ে ত্বকের যত্নে সে ভাবে সময় পান না অনেকেই। রোজের ব্যবহার্য উপাদান দিয়েই যদি ত্বকের পরিচর্যা করা যায়, সে ক্ষেত্রে সময়ের সঙ্গে আয়োজনের জন্য ব্যস্ততাও কাটে। দুধ দিয়েই এমন অনেক উপায়ে ত্বকের লালিত্য ফিরিয়ে আনতে পারেন।

এমনিতেই দুধ যে ত্বককে কোমল করে, উজ্জ্বল করে এ কথা সকলেই জানে। সব রকম ত্বকের জন্যই দুধ যত্নের অন্যতম সেরা উপাদান। কিন্তু দুধ কেমন করে ব্যবহার করলে ত্বকের নানা সমস্যা কাটিয়ে তা ত্বককে আরও সুন্দর করে তুলতে পারে, জানেন?

আরও পড়ুন: অসচেতন যৌন সম্পর্ক ডেকে আনে এই ক্যানসার, সচেতন হন আজই

  • এক কাপ ঠান্ডা দুধের সঙ্গে আধ কাপ গ্রিন টি ঠান্ডা করে মিশিয়ে তা সারা মুখে মাখুন। সপ্তাহে তিন দিন এমন করতে পারলে ত্বকের ট্যান দূর হবে সহজেই।
  • ক্লিনজার ফুরিয়ে গিয়েছে, বা হাতের কাছে পাচ্ছেন না? তা হলে দুধের শরণ নিন। একটি তুলো দুধে ভিজিয়ে মেক আপ তুলুন। বাইরে থেকে বাড়ি ফিরে এই পদ্ধতিতেই মুখ পরিষ্কার করুন। এতে ত্বকের ব্রণ, ফুসকুড়ি, দাগছোপ সহজে দূর হবে।

আরও পড়ুন: এ ভাবেই ঘরোয়া উপায়ে কুপোকাত করুন ডাস্ট অ্যালার্জিকে

  • দুধের সর প্রাকৃতিক স্ক্রাবার। তাই মৃত কোষ ঝরাতে মধু, ওটস এবং দুধের সর মিশিয়ে মিনিট দশেক স্ক্রাব করুন। এর পর ঠান্ডা দলে ধুয়ে নিন মুখ।
  • এক কাপ দুধে আধ খানা পাকা কলা চটকে তাতে একটু মধু মেশান। এ বার এই প্যাকটি সপ্তাহে তিন দিন মুখে মেখে মিনিট পনেরো অপেক্ষা করুন। দুধ শুকিয়ে এলে ধুয়ে ফেলুন।ত্বকের স্বাভাবিক লাবণ্য ফেরার পাশাপাশি ত্বকের নিষ্প্রাণ হয়ে ওঠা রুখে দেয়। চামড়াকে সহজে কুঁচকে যাওয়ার হাত থেকেও ফেরায় এই কার্যকর উপায়।