সারা দিনের ব্যস্ততা আর ইঁদুরদৌড়ের রোজনামচায় ত্বকের প্রতি যত্নে মন দেওয়ার সময় কমেছে বইকি। মাসান্তে ফেসিয়াল আর খুব বেশি হলে সময়-সুযোগ পেলে দু’-চারটে ঘরোয়া উপায়ে যত্নআত্তি। এ দিকে হাতে সময় কম বলে ত্বকে একটু বলিরেখা পড়লেও মন খারাপ। ঝকঝকে উজ্জ্বল ত্বক চাই, অথচ সময়ও লাগবে কম। এমন উপায়ের কথা জানেন কি?

আধুনিক রূপসজ্জায় ‘সিক্সটি সেকেন্ডস রুল’ বেশ পরিচিত শব্দবন্ধ। মুখের ত্বকের তেল-ময়লা, ধুলো থেকে শুরু করে রোমকূপের মুখ বন্ধ করে দেওয়া ময়শ্চারাইজার, মেক আপের অবশিষ্টাংশ— সবটুকু নিমেষে গায়েব করে মুখের জেল্লা ফেরাতে সময় নেবে মোটে এক মিনিট! জানেন, কী ভাবে তা সম্ভব?

প্রয়োজনীয় উপাদান একটাই। আপনার ক্লেনজার। আর তাতেই সব সমস্যার সমাধান। রূপ বিশেষজ্ঞদের মতে, ত্বকের সঙ্গে খাপ খায় এমন কোনও ক্লিনজার বা ত্বক বিশেষজ্ঞের পরামর্শ মেনে কেনা ক্লিনজারটিই এর জন্য যথেষ্ট। কিন্তু কী ভাবে ব্যবহার করবেন তা? এখানেই রয়েছে এক মিনিট বা ষাট সেকেন্ডের রহস্য।

আরও পড়ুন: সারা দিনের ক্লান্তি ভুলতে চান? এড়িয়ে চলুন সহকর্মীদের!

আরও পড়ুন: অফিস থেকে ফিরে মাত্র মিনিটখানেক সময় ব্যয় করুন, পেটের মেদ জব্দ হবে এতেই!

ঠান্ডা জলের ঝাপটা দিয়ে মুখ ধুয়ে ক্লেনজার লাগিয়ে ভাল করে ঘষতে থাকুন। আঙুলের মৃদু চাপে চিবুক, কানের পাশ, কপাল, নাকের পাশ ঘষে নিন। সারা মুখে ক্লেনজারের এমন প্রয়োগ এক মিনিট ধরে মাসাজ করে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন ভাল করে। তৈলাক্ত ত্বক হলে এই পুরো পদ্ধতিটিকে দু’ধাপে অর্থাৎ ৩০ সেকেন্ড-৩০ সেকেন্ড করে ভাগ করে নিয়ে বার দুই করুন। প্রতি দিন এই নিয়মে মুখ পরিষ্কার করলে সপ্তাহখানেক পর থেকেই তফাত নজরে আসবে। কেবল জেল্লাদার ত্বকই নয়, এই নিয়মে মুখ পরিষ্কার করলে ত্বকের ধুলো-ময়লা সরে দ্রুত পরিষ্কার হবে মুখ।