Advertisement
০২ ডিসেম্বর ২০২২
Game Of Thrones

‘বর্ণবিদ্বেষী’ সহ-লেখকদের সঙ্গে কাজ, তোপের মুখে ‘গেম অফ থ্রোনস’-এর লেখক জর্জ আর আর মার্টিন

আমেরিকান ঔপন্যাসিক জর্জ আর আর মার্টিন তাঁর প্রকাশিতব্য উপন্যাস লেখার জন্য এমন দু’জন সহকারী লেখককে বেছেছেন, যাঁদের বিরুদ্ধে বর্ণবিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগ উঠেছে আগে। তাতেই শুরু বিতর্ক।

‘গেম অফ থ্রোনস’-এর লেখকের নতুন বই বয়কট করা হচ্ছে কেন?

‘গেম অফ থ্রোনস’-এর লেখকের নতুন বই বয়কট করা হচ্ছে কেন? ছবি: সংগৃহীত

সংবাদ সংস্থা
নিউ ইয়র্ক শেষ আপডেট: ০৭ অক্টোবর ২০২২ ১১:৪২
Share: Save:

বর্ণবিদ্বেষকে প্রশ্রয় দেওয়ার অভিযোগে তোপের মুখে আমেরিকান ঔপন্যাসিক জর্জ আর আর মার্টিন। তাঁর লেখা উপন্যাস ‘আ সং অফ আইস অ্যান্ড ফায়ার’-এর উপর ভিত্তি করেই তৈরি হয়েছে ‘গেম অফ থ্রোনস’ ওয়েব সিরিজটি। সম্প্রতি ওই সিরিজেরই একটি ‘স্পিন অফ’ বই লেখার জন্য তিনি এমন দু’জন সহকারী লেখককে বেছে নিয়েছেন যাঁদের বিরুদ্ধে বর্ণবিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগ উঠেছে আগে।

Advertisement

সম্প্রতি মার্টিন ঘোষণা করেন, টার্গেরিয়ান বংশের উপর নতুন একটি বই লিখতে চলেছেন তিনি, নাম ‘দ্য রাইজ অফ দ্য ড্রাগন: অ্যান ইলাসট্রেটেড হিস্ট্রি অফ দ্য টার্গেরিয়ান ডাইন্যাস্টি’। সেই বইটি লিখতে তাঁকে সহায়তা করবেন লিন্ডা অ্যান্টোসন নামের এক ব্লগার। তাতেই শুরু হয়েছে বিতর্ক। লিন্ডা ও তাঁর স্বামী এলিয়ো এম গার্সিয়া জুনিয়র একটি ফ্যান ফোরাম চালান। সেখানে গেম অব থ্রোনসের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। অভিযোগ, সেখানেই বিভিন্ন সময় নানা বর্ণবিদ্বেষী মন্তব্য করেছেন তাঁরা।

যখনই ওয়েব সিরিজে অভিনয়ের জন্য কোনও অ-শ্বেতাঙ্গ অভিনেতাকে বেছে নেওয়া হয়েছে, তখনই তাঁরা বিভিন্ন কটূক্তি করেছেন বলে অভিযোগ। বইয়ের বর্ণনার সঙ্গে গায়ের রং মিলছে না, এই দোহাই দিয়ে সেই অভিনেতাদের কটাক্ষ করতেও দেখা গিয়েছে তাঁদের। ২০১২ সালে নারীবিদ্বেষী মন্তব্যের অভিযোগও ওঠে তাঁদের বিরুদ্ধে। পাঁচ মাস আগেই ‘হাউজ অফ ড্রাগনস’ সিরিজে কৃষ্ণাঙ্গ অভিনেতা স্টিভ ত্যুসেঁকে নিয়েও তীব্র কটাক্ষ করতে দেখা যায় দম্পতিকে। এ হেন ব্লগারদের সঙ্গে কাজ করা মানে বর্ণবিদ্বেষকেই তোল্লাই দেওয়া, মত অনেকের। উঠেছে লেখকের নতুন বই বয়কট করার ডাকও।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.