• সুজাতা মুখোপাধ্যায়
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রং খেলার সময় চুলের এ সব যত্ন নিচ্ছেন তো? নইলে চুল পাতলা হয়ে টাক পড়বে

holi
চুল বাঁচিয়ে রং খেলুন। ছবি: এপি।

দোলে রং খেলব না তা আবার হয় না কি? রং-ও খেলব আবার সাফসুতরোও থাকব, এমনই যদি আপনার ইচ্ছা হয়, তা হলে রং খেলার সময় একটু সতর্ক থাকলেই চলবে। দোলের সময় জোর করে রং মাখানোর একটা প্রবণতা থাকে, আর এতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে চোখ ও চুল।

রং খেলার সময় এবং তার পরে,  চুলের যত্ন কিন্তু নিতেই হবে, নইলে মাথার ত্বকে সংক্রমণ থেকে শুরু করে চুল পড়ে যাওয়া, অকালে টাক নানা সমস্যায় জেরবার হতে হবে। আজকাল প্রায় সব রংই সিন্থেটিক। চুলের উপর এদের ক্ষতিকর প্রভাবও বেশি। সতর্ক থাকাটাই তাই একমাত্র উপায়।

দেখে নিন রং খেলার আগে ও পরে কী ভাবে যত্ন নেবেন চুলের।

আরও পড়ুন: দেদার দোল খেলেও ত্বকের ক্ষতি রুখতে চান? মেনে চলুন এ সব নিয়মখেলার আগে

তেল: তেল মেখে চুল বেঁধে রং খেলতে নামুন। এতে চুলে রং বসে যাওয়ার সম্ভাবনা কমে যাবে অনেকটাই।

টুপি: তেল মাখার পর টুপি বা শাওয়ার ক্যাপে ঢেকে দিন মাথা। তার পর রং খেলুন। চুল বাঁচাতে এটাও একটা অন্যতম উপায়।

খেলার পর

রং খেলার পর নরম কোনও শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। তেল মেখে রং খেললে প্রথম বারের শ্যাম্পুতেই রং উঠে যাওয়ার কথা। তবে তার পরেও যদি রং থেকে যায়, এতে ভয় পাওয়ার কিছু নেই গন ঘন শ্যাম্পু না করে বার দুই করেই ক্ষান্ত হোন। যেটুকু রং থেকে গেল তা ধীরে ধীরে দিন কয়েকের মধ্যেই উঠে যাবে।

রং তুলতে নরম শ্যাম্পু ও কন্ডিশনারে ভরসা রাখুন।

আরও পড়ুন: রং খেলার সময় চোখে রং বা আবির ঢুকেছে? জানেন কী করতে হবে?

তবে অনেকেই এক দিনে সব রং তুলে ফেলার চেষ্টা করেন, এতে চুলের ক্ষতি হয় বেশি। বরং সময় নিয়ে রং উঠুক, তাতে সমস্যা বাড়বে না। প্রতি বার শ্যাম্পুর পর কন্ডিশনিং করুন চুল, নইলে তা রুক্ষ হয়ে যাবে। ক্ষার যুক্ত শ্যাম্পু বা কন্ডিশনার দেবেন না। অনেকেই রং তুলতে শ্যাম্পুর সঙ্গে সামান্য ডিটারজেন্ট ব্যবহার করেন, এটা অত্যন্ত ক্ষতিকর। তাই এ সবের প্রয়োজন নেই।

তা ছাড়া অনেক ক্ষণ স্নানে ঠান্ডা লাগার প্রবণতাও থাকে, সে দিকের কথাও মাথায় রাখতে হবে বইকি! তাই ভাল করে বার দুই শ্যাম্পু করে নেওয়াই যথেষ্ট। দিন কয়েক বাদে রং উঠে গেলে একটা হেয়ার স্পা করিয়ে নিতে পারলে আরও ভাল হয়। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন