• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রেগে আছেন কি না জানাবে কম্পিউটারের মাউস!

computer mouse
ছবি: গেটি ইমেজেস।

রেগে আছেন। পুরো রাগটাই গিয়ে পড়েছে নিজের কম্পিউটারের মাউসের উপর। কিন্তু যার উপর রাগ তাঁকে তো আর সামনে পাচ্ছেন। রাগটা গুমড়ে গুমড়ে মনের ভিতরেই রেখে দিচ্ছেন। অগত্যা, মাউসের উপর গিয়ে পড়েছে পুরো আক্রোশ। ঝড়ের গতিতে টাইপ করেছেন। এক একটা মাউসের কি টিপছেন গায়ের জোরে। ভাবছেন কম্পিউটার আর কী বুঝবে মনের জ্বালা।

ভুল ভাবছেন। প্রাণহীন, ও কী বুঝবে আপনার রাগ বলে আর দূরে ঠেলবেন না আপনার কম্পিউটারকে। কম্পিউটারের মাউস চালনা দেখে বোঝা যাবে আপনি রেগে আছেন অথবা কোনও বিষয় আপনি অসন্তুষ্ট আছেন কি না। আমেরিকার ব্রিগহাম ইয়ং বিশ্ববিদ্যালয়ের এক দল গবেষকের দাবি, রাগ, অসন্তুষ্টি, দুঃখ, বেদনার মতো নেতিবাচক আবেগ কম্পিটারের মাউস চালনাকে প্রভাবিত করে।

গবেষক দলের প্রধান জেফ্রি জেনকিন্স জানিয়েছেন, কম্পিউটারকে প্রাণহীন বলে দূরে ঠেলে দেওয়ার দিন শেষ। কম্পিউটারে শুধু তথ্যই জমা হয় না। আপনাকেও বোঝে আপনার কম্পিউটার। আপনার মানসিক অবস্থা বোঝে সে।

গবেষণায় প্রকাশ, মনে অখুশি থাকলে মাউস আঁকা বাঁকা পথে চালাবেন আপনি। টানা চলবে না মাউস। চলার পথেই খেই হারিয়ে ফেলবে মাউসটি। কেউ কেউ আবার খুবই ধীরে ধীরে চালাবে মাউজ। কোনও বিষয় বিভ্রান্তি থাকলেও এ রকম হবে। গবেষকদের দাবি, শুধু মাউসেই সীমাবদ্ধ নয় মোবাইলের ক্ষেত্রেও সোয়াইপ করা বা বোতাম টেপার ক্ষেত্রেও একই জিনিষ প্রযোজ্য হবে। গবেষণাপত্রটি প্রকাশিত হয়েছে এমআইএস কোয়ার্টার্লি নামে একটি জার্নালে।

তাই কম্পিউটার এখন আর তাত্ত্বিকভাবে আপনার জীবনের অঙ্গ নয়, বরঞ্চ বলা যায় গ্যাজেটের গণ্ডি পেরিয়ে সে এখন আপনার মনেরই প্রতিচ্ছবি।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন