Advertisement
০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Unusual Love Story

প্রেমের টানে ভারতীয় যুবককে বিয়ে, জার্মানি থেকে ভারতে এসে হাসিমুখে কৃষিকাজ করছেন তরুণী

ভারতীয় যুবকের সঙ্গেই ঘর বেঁধেছেন জার্মানির মেয়ে জুলি। আপন করে নিচ্ছেন ভারতীয় আদবকায়দাও। নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে সেই সব ছবি ও ভিডিয়ো নিয়মিত পোস্ট করেন তিনি।

‘নমস্তেজুলি’ নামের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট রয়েছে ওই তরুণীর।

‘নমস্তেজুলি’ নামের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট রয়েছে ওই তরুণীর। ছবি: ইনস্টাগ্রাম

সংবাদ সংস্থা
শেষ আপডেট: ২৭ নভেম্বর ২০২২ ১১:৩৫
Share: Save:

ভালবাসা মানে না কোনও সীমা। অর্জুন শর্মা নামের এক ভারতীয় যুবকের প্রেমে পড়ে জার্মানি থেকে ভারতে চলে এসেছিলেন জার্মানির মেয়ে জুলি। সেই যুবকের সঙ্গেই ঘর বেঁধেছেন তিনি। সঙ্গে সঙ্গে আপন করে নিচ্ছেন ভারতীয় আদবকায়দাও। নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে সেই সব ছবি ও ভিডিয়ো নিয়মিত পোস্ট করেন তিনি। তেমনই একটি ভিডিয়ো সম্প্রতি ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সমাজমাধ্যমে। নেমেছে প্রশংসার ঢল।

Advertisement

‘নমস্তেজুলি’ নামের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট রয়েছে ওই তরুণীর। সেখানে তিনি নিজের পরিচয় দিয়েছেন, জুলি শর্মা নামে। সেখানে প্রকাশ করা ভিডিয়োটিতে তাঁকে দেখা যাচ্ছে ক্ষেতে বসে পেঁয়াজ লাগাতে। গোলাপি রঙের কামিজ ও সাদা সালোয়ার পরে কাজ করছিলেন তিনি। যিনি ভিডিয়ো করছেন, তিনি তরুণীকে জিজ্ঞাসা করেন কোথা থেকে এসেছেন তিনি? তরুণী জবাব দেন, জার্মানি থেকে। তার পরই তরুণীর কাছে জানতে চাওয়া হয়, মাঠে বসে কী করছেন তিনি। তার জবাবে তরুণী জানান, শাশুড়ি মায়ের সঙ্গে পেঁয়াজ লাগাচ্ছেন তিনি।

ভিডিয়োটির শিরোনামে তরুণী লিখেছেন, ১ মাস ধরে গ্রামে রয়েছেন তিনি। পরিবেশের কোলে বাস করা শ্বশুরবাড়ির মানুষদের সহজ-সরল জীবনধারা তাঁর খুব ভাল লাগছে। প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গেই জোর চর্চা শুরু হয়েছে ভিডিয়োটি নিয়ে। ইনস্টাগ্রামে ভিডিয়োটি দেখে ফেলেছেন ৪ কোটিরও বেশি নেটাগরিক। পছন্দ করেছেন সাতাশ লক্ষেরও বেশি মানুষ। নেটাগরিকদের কেউ সাধুবাদ জানিয়েছেন তাঁর প্রত্যয়কে, কেউ আশীর্বাদ করে লিখেছেন, যে ভাবে ভারতীয় সংস্কৃতিকে ভালবেসে ফেলেছেন তিনি, তা সত্যিই প্রশংসার যোগ্য।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.