×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৮ মার্চ ২০২১ ই-পেপার

জেল্লা ফেরান পেঁয়াজের প্যাঁচে

সায়নী ঘটক
কলকাতা ২৩ জানুয়ারি ২০২১ ০০:৩০

পাল্টে যাওয়া লাইফস্টাইল হোক, দূষণের প্রভাব— ইত্যাদি কারণে কম বয়স থেকেই এখন চুল পড়ে যাওয়ার চিন্তা কপালে ভাঁজ ফেলে অনেকের। পরিণত চুল পড়ে যাওয়া এবং নতুন চুলের জন্ম প্রাকৃতিক উপায়ে হয়ে থাকে। একটা বয়সের পরে যখন স্বাভাবিক ভাবেই চুলের বৃদ্ধি কমে যায় এবং চুল পড়ার মাত্রা ছাড়ায়, তখনই চুলের গোছ বা ভলিউমে ভাটা পড়ে। চুল পাতলা হয়ে যাওয়া, ভেঙে যাওয়া, ডগা ফেটে যাওয়া, গোড়া আলগা হয়ে যাওয়া... সবই এর লক্ষণ। এর প্রতিকারে পেঁয়াজের মতো খুব সাধারণ উপকরণ দিয়েই যে চুল পড়া রোধ করা এবং তার বৃদ্ধি সম্ভব, সে ব্যাপারে জেনে নেওয়া জরুরি।

অনিয়ন অয়েল কী?

পেঁয়াজ নিঃসৃত রস থেকে খুব সহজে বাড়িতেই বানিয়ে নেওয়া সম্ভব এই অর্গ্যানিক অয়েল। পেঁয়াজের নির্যাসে সালফার ও অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টস থাকে, যা উৎসেচককে সক্রিয় করে তোলে এবং হেয়ার গ্রোথ সাইকলে সদর্থক প্রভাব ফেলে। চুল পড়া রোধ করে চুলের ভলিউম ফিরিয়ে আনতে ম্যাজিকের মতো কাজ করে এটি। মূলত এই কারণেই পরিণত বয়সে চুলের যত্নে এই তেল অপরিহার্য।

Advertisement

পেঁয়াজের রস সরাসরি স্ক্যাল্পে লাগানোর চেয়ে তা নারকেল, আমন্ড, ল্যাভেন্ডার বা অলিভ অয়েলের সঙ্গে মিশিয়ে নিয়ে লাগাতে পারেন চুলের গোড়ায়। এই তেল থেকে পেঁয়াজের গন্ধ দূর করতে মিশিয়ে নিতে পারেন কয়েক ফোঁটা এসেনশিয়াল অয়েলও। কী করে বাড়িতেই তৈরি করবেন অনিয়ন অয়েল, জেনে নিন—

*ছোট আকারের পেঁয়াজ দু’-তিনটি টুকরো করে কেটে নিন।

*ব্লেন্ডারে দিয়ে পেস্ট বানিয়ে নিন। এর পরে একটি পাত্র গরম করে তাতে সেই পেঁয়াজ বাটা দিন। এক কাপ নারকেল তেল (বা যে কোনও পছন্দের কেরিয়ার অয়েল) মেশান এতে। অল্প আঁচে খানিকক্ষণ নেড়েচেড়ে নামিয়ে নিন।

* ঠান্ডা হলে মসলিনের কাপড় বা ছাঁকনিতে পুরোটা ঢেলে তলায় কাচের শিশি রেখে তেলটুকু ছেঁকে নিন।

*ড্রপারের সাহায্যে পছন্দসই কোনও এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে নিন কয়েক ফোঁটা। এতে তেল থেকে পেঁয়াজের উগ্র গন্ধ চলে যাবে।

*অনিয়ন অয়েল তৈরির সময়ে পেঁয়াজের সঙ্গে মেথি ও কালো জিরে গুঁড়ো (শুকনো) মিশিয়ে নেওয়া যায়। এতে চুল বাড়তি পুষ্টি পাবে। সে ক্ষেত্রে আলাদা করে মেথি ও কালো জিরে একসঙ্গে গুঁড়ো করে নিয়ে পরে তা পেঁয়াজ বাটার সঙ্গে মেশাতে হবে।



চুলের বন্ধু

অনিয়ন ওয়েল

অনিয়ন ওয়েল


অনিয়ন অয়েলের ব্যবহার জনপ্রিয় হওয়ার অন্যতম কারণ, এর চটজলদি উপকারিতা। কেউ সপ্তাহে একদিন বা দু’দিন করে এই তেল নিয়ম করে ব্যবহার করা শুরু করলে ফল পাবেন অচিরেই—

*চুল পাতলা হয়ে যাওয়া, ভঙ্গুর হেয়ার ফলিকল, ডগা ফেটে যাওয়া রোধ করে পেঁয়াজের সালফার। গোড়া শক্ত করার পাশাপাশি জেল্লাদার চুল ফিরিয়ে আনতে সক্ষম এটি।

*চুলের পিএইচ ব্যালান্স বজায় রাখতে এই তেলের জুড়ি নেই। ফলে কম বয়সে চুল পেকে যাওয়ার মতো সমস্যাও আটকানো যায়।

*এই তেলের অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টস স্ক্যাল্পে পুষ্টি জোগায়।

*স্ক্যাল্পের ক্রাউন এরিয়া অর্থাৎ মাথার চাঁদির অংশে অনিয়ন অয়েল মাসাজ করলে সেই অংশের চুল পড়া বন্ধ হয়ে ফের নতুন চুলের বৃদ্ধি সম্ভব।

*ব্যাকটেরিয়াল ইনফেকশন দূর করতে কার্যকর এটি। সামান্য পাতিলেবুর রস ও অনিয়ন অয়েল একসঙ্গে মিশিয়ে স্ক্যাল্পে মাসাজ করলে খুশকি, চুলকানির মতো সমস্যার মোকাবিলা করা যায়।

*শ্যাম্পুর আগে ন্যাচারাল কন্ডিশনিংয়ের কাজ করে অনিয়ন অয়েল। ফ্রিজ়ি হেয়ার নিয়ন্ত্রণে বা শুষ্ক চুলের সমাধানে ব্যবহার করতে পারেন। শ্যাম্পুর এক ঘণ্টা আগে মেখে রাখুন। আলাদা জেল্লা আসবে।

চুল পড়ে যাওয়ার মতো চেনা সমস্যার সমাধান করে নতুন চুল গজাতে এই তেলের জুড়ি নেই।

মডেল: ঐশ্বর্য সেন; মেকআপ: সুমন গঙ্গোপাধ্যায় ছবি: অমিত দাস

Advertisement