Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৭ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

পোষ্যের ওজন বেড়ে যাচ্ছে! কমাতে পারে এই যন্ত্র

সারমেয়-মালিকদের মধ্যে জনপ্রিয় হয়েছে এই ‘অ্যাক্টিভিটি ট্র্যাকার’। কুকুর সারা দিনে কতটা ঘু্ময় থেকে শুরু করে কতটা হাঁটাহাটি করে, তার বিস্তারিত

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৬ মার্চ ২০২১ ১২:১২
Save
Something isn't right! Please refresh.
গলায় যন্ত্র, জানা যাবে গোটা দিন কাণ্ডকারখানা।

গলায় যন্ত্র, জানা যাবে গোটা দিন কাণ্ডকারখানা।
ছবি: সংগৃহীত

Popup Close

বাড়িতে পোষ্য আছে। আর সে ক্রমশ মোটা হয়ে যাচ্ছে। এ রকম একটা উদ্বেগে বহু পোষ্য-মালিকই ভোগেন। মানুষের মতোই পোষ্যদেরও ক্লান্তি আছে, অবসাদ আছে, মন ভাল-খারাপ আছে। এ কথা সত্যি, নিয়ম করে তাদের দৌড়ঝাঁপ করাতে না পারলে, তাদের ওজনও বেড়ে যায়। বিশেষ করে কুকুরদের। কিন্তু প্রযুক্তি এখন সেই সুবিধা দিচ্ছে, যাতে আপনার আদরের পোষ্যের ওজন আপনি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেন।

প্রায় ৮ বছর হয়ে গেল একটি গোল্ডেন রিট্রিভার প্রজাতির কুকুর রয়েছে ভবানীপুরের অরিজিৎ দাসের বাড়িতে। অরিজিতের কথায়, ‘‘বাড়িতে পোষ্য থাকলে, ক্রমশ সে পরিবারের সদস্য হয়ে যায়। ওর অসুখ, ওর খারাপ থাকা বাকিদের কষ্ট দেয়। আর ওদের সুস্থ থাকার জন্য ওজনটা নিয়ন্ত্রণের মধ্যে রাখা দরকারি। সেটা সব সময় সম্ভব নয়। কিন্তু বর্তমানে ‘অ্যাক্টিভিটি ট্র্যাকার’ সেই সুযোগ দিচ্ছে।’’

হালে সারমেয়-মালিকদের মধ্যে জনপ্রিয় হয়েছে এই ‘অ্যাক্টিভিটি ট্র্যাকার’। কী জানা যায় এ থেকে? বেহালার অনিরুদ্ধ মিত্র বলছেন, ‘‘আমার কুকুর সারা দিনে কতটা ঘু্ময় থেকে শুরু করে কতটা হাঁটাহাটি করে, তার বিস্তারিত বিবরণ পেয়ে যাই এই ধরনের ট্র্যাকার থেকে। ফলে বুঝতে পারি, ওর ছোটাছুটি কমছে কি না, ঘুম বাড়ছে কি না।’’ একই মত দমদমের মধুমিতা সাহারও। ‘‘আমাদের বাড়িতে ল্যাব্রাডর জাতের একটি কুকুর রয়েছে। এই জাতের কুকুরদের খিদে কখনও মেটে না। যতই দেওয়া হবে, ওরা খাবে। আর তাতে ওজনও বাড়ে। এ সব ক্ষেত্রে ‘অ্যাক্টিভিটি ট্র্যাকার’ খুব কাজে লাগে। যখন দেখি, ও বেশি ঘুমচ্ছে বা নিজে নিজে দৌড়ঝাঁপ কমিয়ে দিচ্ছে, তখনই ওকে মাঠে দৌড়তে নিয়ে যাওয়া হয়’’, বলেছেন মধুমিতা।

Advertisement

বর্তমানে বাজারে পোষ্যের জন্য এমন বেশ কয়েকটি ‘অ্যাক্টিভিটি ট্র্যাকার’ পাওয়া যায়। অনলাইনেও সহজেই আনিয়ে নেওয়া যেতে পারে এগুলো। সাধারণত গলাবন্ধের সঙ্গে আটকে দেওয়া হয় এই ট্র্যাকার-গুলি। ব্যাটারি-চালিত এই যন্ত্রগুলি নির্দিষ্ট সময় অন্তর চার্জ দিয়ে নিতে হয়। কোম্পানি-ভেদে কোনওটা ২ দিন অন্তর চার্জ দিতে হয়, কোনওটা আবার ৬ মাস পর্যন্ত চলে এক বার চার্জ করার পর। ফোনে নির্দিষ্ট অ্যাপের মাধ্যমে এই ট্র্যাকারগুলি থেকে পাওয়া তথ্য সরাসরি চলে আসে মালিকের কাছে।

শহুরে কর্মব্যস্ত জীবনে যে ভাবে প্রতিটি মানুষের কাছেই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছে সুস্থ থাকার বিষয়টি, এবং যে কারণে গুরুত্ব বাড়ছে ‘অ্যাক্টিভিটি ট্র্যাকিং ডিভাইস’-এর, ঠিক একই কারণে পোষ্যদের জন্য জনপ্রিয় হচ্ছে একই ধরনের যন্ত্র। মাঠের অভাব, ছোট ফ্ল্যাটে জায়গার অভাবে খেলাধুলোর অসুবিধা— সবই বাড়িয়ে দিচ্ছে ওদের ওজন, আর তাই বাড়ছে ‘অ্যাক্টিভিটি ট্র্যাকার’-এর মতো যন্ত্রের গুরুত্ব।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement