Advertisement
১৬ জুলাই ২০২৪
Suicide Case

ভাইকে বিয়ে করার জন্য নাছোড়বান্দা, বাড়ির লোক রাজি না হওয়ায় আত্মঘাতী তরুণী

ভাইকে বিয়ে করতে চান এমনটা বাড়িতে জানিয়েছিলেন, তামিলনাড়ুর এক কলেজ পড়ুয়া। পরিবারের অমত থাকায় রেললাইনে ঝাঁপ দেয় ১৯ বছরের তরুণী।

সম্প্রতি নিজের খুড়তুতো ভাইকে বিয়ে করার কথা জানান ওই তরুণী।

সম্প্রতি নিজের খুড়তুতো ভাইকে বিয়ে করার কথা জানান ওই তরুণী। ছবি: প্রতীকী।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১০ নভেম্বর ২০২২ ১৫:২১
Share: Save:

পছন্দের পাত্রের সঙ্গে বিয়ে দিতে নারাজ পরিবার, আত্মঘাতী হলেন এক কলেজপড়ুয়া। রেললাইনে ট্রেনের চাকা লক্ষ্য করে ঝাঁপ দিতেই ছিন্নবিচ্ছিন্ন হয়ে যায় তাঁর দেহ। ঘটনাটি ঘটেছে তামিলনাড়ুতে।

পরিবারের তরফে পুলশকে জানানো হয়েছে, সম্প্রতি নিজের খুড়তুতো ভাইকে বিয়ে করার কথা জানান ওই তরুণী। ঘোর আপত্তি ছিল পরিবারের। তবে তরুণী ছিলেন নাছোড়বান্দা। জেদ ধরে বসেন তিনি। পরিবারের তরফে বলা হয়েছিল এই বিয়েকে তারা তখনই স্বীকৃতি দেবে, যখন কলেজের পড়াশোনার পাট শেষ করবেন তরুণী। তবে তার আগেই নিজেকে শেষ করে দিলেন পড়ুয়া, এমনটাই বলছেন পরিজনরা।

১৯ বছর বয়সি কৃতিকা বাণিজ্য বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন। নিজের কাকার ছেলেকেই বিয়ে করবেন বলে মনস্থির করেছিলেন তিনি। গত ছ’ মাস ধরে পরিবারের কাছে এই দাবিই করে আসছিলেন কৃতিকা। পরিবারের কেউ-ই কৃতিকার এই দাবি ভাল চোখে দেখেননি।

৯ নভেম্বর চিদাম্বরম শহরের ভল্লাম্পদুগাই স্টেশনে কোচিং সেরে বাড়ি ফেরার পথে কৃতিকা তাঁর ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কৃতিকার সঙ্গে কথা বলে স্টেশন ছাড়েন তাঁর ভাই। এর পর স্টেশনে ট্রেন ঢুকতেই ঝাঁপ দেন ওই তরুণী। ঘটনাস্থলে পৌঁছয় রেল পুলিশ। এর পর দেহটি ময়নাতদন্তের জন্য সরকারি হাসপাতালে পাঠানো হয়৷

এই খবর পৌঁছতেই শোকের ছায়া গোটা পরিবারে। পরিবার সূত্রে খবর, বেশ কয়েক দিন ধরেই মনমরা হয়ে থাকতেন কৃতিকা। কিন্তু এ ভাবে যে জীবন শেষ করবেন তা কল্পনাও করতে পারছে না ওই তরুণীর পরিবার।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Suicide Case Tamil Nadu
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE