Advertisement
২২ জুলাই ২০২৪
Bizarre

সিমেন্ট, ইট, বালি সবচেয়ে প্রিয় খাবার! ১৮ বছর থেকে বিরল অসুখে ভুগছেন তরুণী

১৮ বছর বয়স থেকেই এই ধরনের খাবারের প্রতি তাঁর অদম্য টান। প্রথমে বাড়ির দেওয়াল থেকেই সিমেন্ট তুলে খেতে শুরু করেন। কিন্তু তাঁর এই অদ্ভুত অভ্যাসের কথা কেউ জানতে পারেননি। এমন যে হতে পারে, সেটা কেউ কল্পনাও করেননি।

Woman Addicted To Eating Cement And Bricks

ইট, বালি যখন রোজের খাবার। ছবি: সংগৃহীত।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৩ জুন ২০২৪ ১৮:০৭
Share: Save:

কেউ বিরিয়ানি খেতে ভালবাসেন, কারও পছন্দ পোলাও। আবার কারও প্রিয় খাবার ফুচকা। তবে নিউ ইয়র্কের বাসিন্দা ৩৯ বছর বয়সি পেট্রিক বেঞ্জামিনের সবচেয়ে প্রিয় খাবার সিমেন্ট, বালি, ইট। শুনে আকাশ থেকে পড়লেও, এটাই সত্যি। পেট্রিক এখন ৪০-এর কোঠায়। ১৮ বছর বয়স থেকেই এই ধরনের খাবারের প্রতি তাঁর অদম্য টান। প্রথমে বাড়ির দেওয়াল থেকেই সিমেন্ট তুলে খেতে শুরু করেন। কিন্তু তাঁর এই অদ্ভুত অভ্যাসের কথা কেউ জানতে পারেননি। এমন যে হতে পারে, সেটা কেউ কল্পনাও করেননি।

নিজের ঘরের দেওয়াল থেকে সিমেন্ট খুঁড়ে এক দিন অন্যমনস্ক হয়েই মুখে দিয়েছিলেন। সে দিন থেকেই সিমেন্টের প্রতি তাঁর ভালবাসা জন্মায়। একটা অদ্ভুত ভাল লাগা তৈরি হয়। তার পর থেকে প্রতি দিন একটু একটু করে সিমেন্ট খেতে শুরু করেন। সিমেন্টের পর ইট, বালির স্বাদও মনে ধরে পেট্রিকের। তার পর থেকে সিমেন্ট, বালি, ইট পেট্রিকের পছন্দের খাবার হয়ে যায়।

Woman Addicted To Eating Cement And Bricks

নিউ ইয়র্কের বাসিন্দা ৩৯ বছর বয়সি পেট্রিক বেঞ্জামিনের সবচেয়ে প্রিয় খাবার সিমেন্ট, বালি, ইট। ছবি: সংগৃহীত।

পেট্রিকের পরিবার তাঁকে বহু চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যায়। কিন্তু কোনও ওষুধেই কাজ হয়নি। বরং সিমেন্ট, বালির প্রতি ভালবাসা পেট্রিকের ক্রমশ বেড়েই চলে। চিকিৎসকেরা এই বিরল রোগের কারণ ধরতে পারেননি। একটা সময়ের পর ছোটবেলার বন্ধুকেই বিয়ে করেন পেট্রিক। জীবন নিজের মতোই চলতে থাকে পেট্রিকের। কিন্তু এই অভ্যাস থেকে তিনি বেরিয়ে আসতে পারেননি। আদৌ কোনও দিন এই অভ্যাস থেকে তিনি বেরিয়ে আসতে পারবেন কিনা, তা নিয়ে সংশয়ে পেট্রিকের পরিবারও।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Bizarre Cement Weird Weird Habits
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE