• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

নাম না করে রাহুলকে ‘বিদেশি ও দেশবিরোধী’ তকমা, বিতর্কের মুখে প্রজ্ঞা ঠাকুর

pragya
প্রজ্ঞা ঠাকুর। ছবি সৌজন্য টুইটার।

নাম না করে রাহুল গাঁধীকে 'বিদেশি' বলে ফের বিতর্ক উসকে দিলেন বিজেপি সাংসদ প্রজ্ঞা ঠাকুর। শুধু তাই নয়, দেশভক্তি নিয়ে প্রশ্ন তুলে রাহুল এবং সনিয়াকে কটূ ভাষায় আক্রমণ করেছেন তিনি।

দেশভক্তির কথা বলতে গিয়ে চাণক্যের প্রসঙ্গ টেনে আনেন প্রজ্ঞা। রবিবার তিনি বলেন, “চাণক্য বলেছিলেন, একমাত্র ভূমিপুত্রই দেশকে রক্ষা করতে পারে। কিন্ত যে ব্যক্তির জন্ম দিয়েছেন এক জন বিদেশি মহিলা, তিনি কখনওই দেশপ্রেমী হতে পারেন না।” নাম না করে রাহুল গাঁধীকে এ ভাবেই আক্রমণ করলেন প্রজ্ঞা।

ওই দিন কংগ্রেসের দেশপ্রেম, নীতি নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন বিজেপির সাংসদ। তাঁর কথায়, “কংগ্রেসের কোনও নীতি নেই। নেই কোনও দেশপ্রেমও।” এর পরই প্রজ্ঞা বলেন, “যদি কেউ দু’দেশের নাগরিক হন, তা হলে তাঁর দেশপ্রেমের অনুভূতিটা আসবে কোথা থেকে?”

আরও পড়ুন: ‘এলএসি’-কে ‘এলওসি’ গড়া-ই লক্ষ্য চিনের

আরও পড়ুন: করাচিতে পাক স্টক এক্সচেঞ্জে জঙ্গি হানা, গুলিতে মৃত অন্তত ৫

শুক্রবার চিনের ঘটনা নিয়ে চাঁছাছোলা ভাষায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে প্রশ্ন তুলেছিলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গাঁধী। টুইটারে এক ভিডিয়ো শেয়ার করে রাহুল বলেন, “দেশবাসীর কাছে সত্যিটা তুলে ধরুন প্রধানমন্ত্রী। ভয় পাওয়ার কিছু নেই। যদি আপনি বলতে থাকেন, ‘চিন ভারতের কোনও ভূমি অধিকার করেনি’, তা হলে তা চিনেরই সুবিধা হবে। সত্যিটা প্রকাশ করুন। বলুন, চিন আমাদের ভূমি অধিকার করেছে।” রাহুলের এই মন্তব্যের পরই বিজেপি শিবিরে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা যায়। বহু বিজেপি নেতা রাহুলের এই মন্তব্যকে ‘দেশ বিরোধী’ বলে কড়া ভাষায় সমালোচনা করেছেন।

কিন্তু প্রজ্ঞা ঠাকুর আরও এক ধাপ এগিয়ে ‘দেশপ্রেম ও বিদেশি’ মন্তব্য করে প্রবল সমালোচনার মুখে পড়েছেন। চিন প্রসঙ্গে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে তোপ দেগে প্রজ্ঞা বলেন, “আগে ওদের নিজের ঘর দেখা উচিত। ওরা জানে না কী ভাবে কথা বলতে হয়। দলটির না আছে কোনও নীতি, না আছে দেশপ্রেম।”

প্রজ্ঞার ‘দেশপ্রেম ও বিদেশি’ মন্তব্যের প্রবল বিরোধিতা করেছে কংগ্রেস। পাল্টা আক্রমণ করে মধ্যপ্রদেশ কংগ্রেসের মুখপাত্র জেপি ধানোপিয়া বলেন, “এ ধরনের মন্তব্য করে প্রজ্ঞা সাংসদ পদের অমর্যাদা করেছেন। ওঁর বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। মনে হচ্ছে, মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছেন প্রজ্ঞা। তাই এমন ভুল বকছেন। ওঁর এখনই চিকিত্সার প্রয়োজন।”  

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন