• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

অযোধ্যা মামলা থেকে আইনজীবী ধবনকে সরিয়ে দিল জমিয়তে

rajeev dhawan
অ্যাডভোকেট রাজীব ধবন। ছবি- পিটিআই

Advertisement

সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড চ্যালেঞ্জ করবে না বলে জানালেও অযোধ্যা মামলার রায় নিয়ে মুসলিম সংগঠনগুলির মধ্যে ফাটল ধরেছে। আর তারই জেরে রায় পুনর্বিবেচনার আর্জি জানানোর প্রক্রিয়া থেকে বরখাস্ত করা হল এক সিনিয়র অ্যাডভোকেটকে।

রাজীব ধবন নামে ওই সিনিয়র অ্যাডভোকেট মঙ্গলবার ফেসবুক পোস্টে জানিয়েছেন, রিভিউ পিটিশনের মামলাগুলির একটি থেকে তাঁকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। সোমবার সুপ্রিম কোর্টে যে রিভিউ পিটিশন করা হয়েছে, তার সঙ্গে তিনি আর জড়িত নন। রাজীব ‘জমিয়তে উলেমায়ে হিন্দ’-এর তরফে রিভিউ পিটিশন করেছিলেন শীর্ষ আদালতে।

রাজীব তাঁর ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, তাঁকে ওই মামলা লড়ার দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত যে তিনি মেনে নিয়েছেন, মক্কেলদের লিখিত ভাবে তা জানিয়েও দিয়েছেন।

ওই মামলায় জামাতের মূল অ্যাডভোকেট (অ্যাডভোকেট অন রেকর্ড বা ‘এওআর’) ইজাজ মকবুল। তাঁরই অধীনে কাজ করছিলেন অ্যাডভোকেট রাজীব ধবন।

আরও পড়ুন- ধ্বংসের স্বীকৃতি রায়ে, অভিযোগ জমিয়তের

আরও পড়ুন- অযোধ্যা রায় পুনর্বিবেচনার আর্জি, প্রথম মামলা রুজু করল জমিয়তে উলেমায়ে হিন্দ​

কেন ধবনকে বরখাস্ত করা হল, তার কোনও গ্রহণযোগ্য কারণ জানানো হয়নি। অ্যাডভোকেট ইজাজ মকবুলের সঙ্গে টেলিফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, সোমবার সুপ্রিম কোর্টে রিভিউ পিটিশন দাখিল করার সময় অ্যাডভোকেট ধবনের পরামর্শ নেওয়া সম্ভব হয়নি। উনি (ধবন) ওই সময় দাঁতের ডাক্তারের কাছে ছিলেন।

যদিও এই অভিযোগ মানতে চাননি অ্যাডভোকেট ধবন। ফেসবুক পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘‘আমি অসুস্থ বলে আমাকে বরখাস্ত করার কথা জানানো হয়েছে। তবে যে কারণে আমাকে বরখাস্ত করা হয়েছে তা একেবারেই মিথ্যা ও কাল্পনিক।’’

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন