প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমের বিরুদ্ধে চার্জশিট জমা দিল সিবিআই। আইএনএক্স মামলায় সোমবার দিল্লির রোজ এভিনিউ কোর্টে নতুন করে একটি চার্জশিট জমা দিয়েছে সিবিআই। এই চার্জশিটে মোট ১৪ জন অভিযুক্তের মধ্যে রয়েছেন পি চিদম্বরমও। তিনি ছাড়াও ওই চার্জশিটে রয়েছে কার্তি চিদাম্বরম, পিটার মুখোপাধ্যায়, ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়ের নাম।

২০০৭ সালে আইএনএক্স মিডিয়া ৩০০ কোটি টাকার বিদেশি বিনিয়োগ (এফডিআই) পায়। সেই অনুমোদন দেয় ফরেন ইনভেস্টমেন্ট প্রোমোশন বোর্ড (এফআইপিবি)। কিন্তু সেই বিনিয়োগ এফডিআই-এর নিয়ম মেনে হয়নি বলে অভিযোগ। আরও অভিযোগ, মাত্র ৪.৬২ কোটি টাকার বিনিয়োগের অনুমোদন পেলেও আইএনএক্স মিডিয়া শেয়ার বিক্রি করে ৩০৫ কোটি টাকা তোলে। এই গোটা প্রক্রিয়ার সময় ইউপিএ জমানায় অর্থমন্ত্রী ছিলেন পি চিদম্বরম। এর পরে ২০১৭ সালের ১৫ মে এই আর্থিক লেনদেন অসঙ্গতির অভিযোগে এফআইআর দায়ের করে সিবিআই। এই আইএনএক্স মিডিয়ার আবার মালিক ছিলেন পিটার মুখোপাধ্যায় এবং তাঁর স্ত্রী ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়।

গত ২১ অগস্ট চিদম্বরমকে গ্রেফতার করে সিবিআই। গত বুধবার পর্যন্ত সিবিআই হেফাজতেই ছিলেন তিনি। বুধবার দিল্লি আদালতের নির্দেশে তাঁকে ১৪ দিনের জন্যে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টোরেটের (ইডি) হেফাজতে পাঠানো হয়। 

আরও পড়ুন:নিমতায় ম্যানেজমেন্ট পড়ুয়া খুনে বান্ধবীর ভূমিকা ঘিরে ধোঁয়াশা, বক্তব্যে অসঙ্গতি
আরও পড়ুন:হাসপাতালে অমিতাভ? বিগ-বি’র অসুস্থতা নিয়ে জোর জল্পনা

প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী প্রথম থেকেই বলে আসছিলেন, তাঁকে আইন বহির্ভূত ভাবে হেফাজতে নেওয়া হচ্ছে। পুরনো চার্জশিট বা এফআইআর-এ তাঁর নামও ছিল না। নাম ছিল চিদম্বরম পুত্র কার্তি চিদম্বরমের।