• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সেনা সরানো নিয়ে চিনের দাবি খারিজ

Chinese Army
ছবি সংগৃহীত

সংঘাতের এলাকা থেকে চিনা সেনার পশ্চাদপসরণ নিয়ে ফের মতপার্থক্য সামনে এল। মঙ্গলবার চিনা বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র ওয়াং ওয়েনবিন দাবি করেন, বিতর্কিত এলাকায় পরিস্থিতি ক্রমশ শান্ত হচ্ছে এবং দু’দেশের সেনাই বিতর্কিত ভূখণ্ড থেকে সরছে। তাঁর কথায়, ‘‘বেশির ভাগ জায়গাতেই দুদেশের আগুয়ান সেনার পশ্চাদপসরণ প্রায় সম্পূর্ণ।’’ সেই সঙ্গেই চিনা মুখপাত্র জানান, দু’দেশের সেনা পর্যায়ের পঞ্চম রাউন্ডের বৈঠকের প্রস্তুতি চলছে। তবে তা কবে হবে, সে সম্পর্কে কিছু জানাননি তিনি। কিন্তু চিনের তরফে সেনা প্রত্যাহারের দাবি খারিজ করেছে ভারত। সরকারি সূত্রে বলা হয়েছে, চিনের এই দাবি সঠিক নয়। 

সংঘাতের এলাকা থেকে চিনা সেনা সরেছে কি না, তা নিয়ে সরাসরি উত্তর এড়িয়ে ক’দিন আগেও ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রক জানিয়েছিল, লাদাখে সংঘাতের এলাকা থেকে চিনা সেনা সরানো নিয়ে দুদেশের ঐকমত্য হয়েছে। কিন্তু তার পরেই ভারতীয় সেনার একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছিল, বাস্তবে চিনা সেনার পুরনো অবস্থানের কোনও বদল হয়নি। সে কারণে শীতেও ওই এলাকায় ভারতকে বাড়তি সেনা মজুত রাখতে হবে বলে ধরে নিয়ে প্রস্তুতি শুরু করেছে সেনাবাহিনী। এখনও প্যাংগং লেক পর্যন্ত ঢুকে আসা ফিঙ্গার এলাকাগুলিতে অবাধে টহল দিতে পারছে না ভারতীয় সেনা। বিষয়টি নিয়ে মোদী সরকারকে নিশানা করেছে কংগ্রেসও।

এ দিন বেজিংয়ে নিজের দেশের সাংবাদিকদের সঙ্গে কথোপকথনে এ সব বিষয় এড়িয়ে গিয়েছেন চিনা মুখপাত্র। বরং বারবারই বোঝাতে চেয়েছেন, বিতর্কিত এলাকায় সেনা সরছে এবং দ্রুত শান্তি ফিরছে। গালওয়ান, গোগরা, হটস্প্রিংস-সহ একাধিক সংঘাতের এলাকা থেকে দু’দেশই সেনা সরানোর কাজ প্রায় সম্পূর্ণ করেছে বলে তিনি দাবি করেন।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন