ভারতের জাতীয় সঙ্গীত চলছে, উপস্থিত সকলেই দাঁড়িয়ে রয়েছেন অথচ তাঁদের মাঝেই লাল ব্লেজার এবং কালো প্যান্ট পরা জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা মের্কেল একটি চেয়ারে বসে রয়েছেন! শুক্রবার রাষ্ট্রপতি ভবনে এমন দৃশ্যই দেখা গেল। জার্মানির জাতীয় সঙ্গীতের সময়ও তাঁকে উঠে দাঁড়াতে দেখা গেল না।

জাতীয় সঙ্গীতের সময় উঠে দাঁড়ানোটাই রীতি। জার্মান চ্যান্সেলরের ক্ষেত্রে সেই রীতির অন্যথা কেন হতে দিল ভারত? কেনই বা জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা মের্কেল সেই সৌজন্যটুকু দেখালেন না?

শুক্রবার রাষ্ট্রপতি ভবনের ওই দৃশ্য ছড়িয়ে পড়ার পর জানা যায়, জার্মানির তরফ থেকে আঙ্গেলা মের্কেলের বসে থাকার বিশেষ অনুমতি চাওয়া হয়েছিল আগেই। ভারত সেই অনুমতি দিয়েছে। সে কারণেই মেরকেল দুই দেশের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনার সময় বসে ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে জার্মান চ্যান্সেলর

শারীরিক অসুস্থতার কারণেই তাঁকে এই বিশেষ অনুমতি দিয়েছে ভারত। সম্প্রতি ডেনমনার্কের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের সময় গার্ড অব অনার-এ জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের সময়ও তাঁকে বসে থাকতে দেখা গিয়েছিল।

আরও পড়ুন: ৩০ নভেম্বর থেকে ঝাড়খণ্ডে পাঁচ দফায় ভোট, ফল ২৩ ডিসেম্বর, ঘোষণা কমিশনের

গত বৃহস্পতিবার তিনদিনের ভারত সফরে এসেছেন আঙ্গেলা মের্কেল। প্রতিরক্ষা এবং নিরাপত্তা ক্ষেত্রে সহযোগিতা জোরদার করতেই তাঁর এই ভারত সফর। এই দুই ক্ষেত্র ছাড়াও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, অপ্রচলিত শক্তি, জলসম্পদ, শিক্ষা, রেল-প্রযুক্তির মতো ক্ষেত্রগুলিতেও দ্বিপাক্ষিক চুক্তি হবে বলে জানা গিয়েছে। আফগানিস্তানের মতো আঞ্চলিক বিষয় নিয়েও আলোচনা করবেন নরেন্দ্র মোদী এবং মের্কেল।

ইউরোপের মধ্যে জার্মানির সঙ্গেই সব চেয়ে বেশি বাণিজ্যিক লেনদেন রয়েছে ভারতের। ইউরোপীয় ইউনিয়নের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এই দেশকে কৌশলগত ভাবে পাশে রাখাটাই সাউথ ব্লকের অগ্রাধিকারের মধ্যে পড়ে।

ছবি: পিটিআই।