• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রাহুলের ‘সাভারকর’ মন্তব্যে চটল সেনা

rahul gandhi
রাহুলের মন্তব্যে ক্ষুব্ধ শিবসেনা। —ফাইল চিত্র।

Advertisement

বিজেপিকে ধারাল আক্রমণ করতে গিয়ে এ বার মহারাষ্ট্রে শরিক দল শিবসেনাকে চটিয়ে বসলেন কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গাঁধী

ঝাড়খণ্ডের নির্বাচনে ‘রেপ ইন ইন্ডিয়া’ মন্তব্য নিয়ে শুক্রবার সংসদে হুলস্থুল বাধান বিজেপি সাংসদরা। রাহুলকে ক্ষমা চাইতে হবে বলে দাবি তোলেন তাঁরা। তার জবাবে শনিবার দিল্লির রামলীলা ময়দানের সভায় রাহুল বলেন, ‘আমি রাহুল সাভারকর নই, রাহুল গাঁধী। সত্যি কথা বলার জন্য আমি বা কংগ্রেসের কেউ কখনও ক্ষমা চাইবেন না।’’

তাঁর এই মন্তব্যেই আপত্তি শিবসেনার। তাদের বক্তব্য, রাহুল বিজেপিকে আক্রমণ করছেন করুন না, খামোখা সাভারকরকে টানছেন কেন? রাহুলের মন্তব্যে আপত্তি জানিয়ে এ দিন টুইট করেন তাদের মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত। মরাঠিতে তিনি লেখেন, ‘‘শুধু মহারাষ্ট্র নয়, গোটা দেশের কাছে বীর সাভরকর দেবতা। সাভারকরের নামের সঙ্গে দেশের মান-সম্মান জড়িয়ে।নেহরু-গাঁধীর মতো উনিও দেশের স্বাধীনতার জন্য আত্মবলিদান দিয়েছেন। এমন দেবতুল্য মানুষদের সকলের সম্মান জানানোই উচিত। এ ক্ষেত্রে কোনওরকম আপস করা হবে না।’’

‘সাভারকর নই, গাঁধী, সত্যি বলার জন্য ক্ষমা চাইব কেন?’ আরও পড়ুন  

সঞ্জয় রাউতের টুইট।

তাঁরা নেহরু-গাঁধীকে শ্রদ্ধা করেন, তাই সাভারকরের অসম্মান হয়, এমন কিছু কংগ্রসের করা উচিত নয় বলেও সাফ জানিয়ে দেন রাউত। তিনি লেখেন, ‘‘পণ্ডিত নেহরু এবং মহাত্মা গাঁধীকে শ্রদ্ধা করি আমরা। তাই বীর সাভারকরকে অসম্মান করা উচিত নয় আপনাদেরও। বিচক্ষণ ব্যক্তিকে এর চেয়ে বেশি বোঝানোর প্রয়োজন বোধহয় নেই।’’

বিজেপির সঙ্গে দীর্ঘ চার দশকের সম্পর্ক ছিন্ন করে, কংগ্রেসের সঙ্গে মিলে সম্প্রতি মহারাষ্ট্রের সরকার গড়েছে শিবসেনা। তার পর থেকেই একাধিক ইস্যুতে বিপরীত অবস্থান নিতে দেখা গিয়েছে দুই দলকে, যার মধ্যে অন্যতম হল নাগরিক সংশোধনী বিল। বিলটি নিয়ে বিজেপির সমালোচনা করলেও, শেষমেশ লোকসভায় বিলের পক্ষেই ভোট দেয় শিবসেনা। রাজ্যসভায় বিলের বিরোধিতা করলেও, শেষ মুহূর্তে ভোটদান থেকে বিরত থাকে তারা। তাদের এই আচরণে রাহুল অসন্তুষ্ট হয়েছিলেন বলে সেইসময়ই কংগ্রেস সূত্রে সামনে আসে। সেই রেশ কাটতে না কাটতেই, এ বার রাহুল গাঁধীরই সমালোচনা করে বসল শিবসেনা।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন