• ঋত্বিক দাস
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

১৫ অক্টোবর পর্যন্ত বন্ধ সব হোটেল, রেস্তরাঁ?

post
হোয়াটস‌্অ্যাপে ভাইরাল হওয়া সেই বিজ্ঞপ্তি।

কী ছড়িয়েছে?

কেন্দ্রীয় পর্যটন মন্ত্রকের একটি বিজ্ঞপ্তি, যেখানে বলা হচ্ছে ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আদেশ অনুসারে সারা দেশের সমস্ত হোটেল, রেস্তরাঁ ও রিসর্ট ২০২০ সালের ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। যে হেতু সারা বিশ্বে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। ভারত সরকারের পর্যটন মন্ত্রকের কাছ থেকে সরাসরি এই নির্দেশ এসেছে। এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, ভারতের হোটেল, রিসর্ট, রেস্তরাঁ ওই তারিখ পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। কোনও ভাবে এই নির্দেশের অন্যথা হলে সংশ্লিষ্ট মালিকের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে। আরও তথ্যের জন্য indiantourism.org-এ লগইন করুন’। বিজ্ঞপ্তির নীচে সুপ্রিম কোর্টের তিনজন বিচারপতির সই।

কোথায় ছড়িয়েছে?

হোয়াটস‌্অ্যাপে ব্যাপক ভাবে ছড়িয়ে পড়েছে এই নোটিস।

এই তথ্য কি সঠিক? 

কেন্দ্রীয় পর্যটন মন্ত্রক এমন কোনও বিজ্ঞপ্তি জারি করেনি। তাদের ওয়েবসাইট কিংবা সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে এমন কোনও নোটিসের অস্বিত্বই নেই।

সত্যি কী এবং আনন্দবাজার কী ভাবে তা যাচাই করল?

সরকারি, বেসরকারি যে কোনও বিজ্ঞপ্তিতে সেটি জারি হওয়ার তারিখ লেখা থাকে। এ ক্ষেত্রে লক্ষণীয় ভাইরাল হওয়া বিজ্ঞপ্তিতে সেই তারিখের কোনও চিহ্নই নেই। বিজ্ঞপ্তিটি ব্যাকরণগত ভুলে ভরা। সরকারি কোনও বিজ্ঞপ্তিতে এমন হওয়াটাও অস্বাভাবিক। ওই বিজ্ঞপ্তির শেষ লাইনে যে ওয়েবসাইটের উল্লেখ রয়েছে, সেই নামে কোনও ওয়েবসাইটই নেই। পর্যটন মন্ত্রকের আসল ওয়েবসাইটটি হল tourism.gov.in। সরকারি যে কোনও ওয়েবসাইটে হয় .gov অথবা .nic যদিও এক্ষেত্রে তা নেই।

বিজ্ঞপ্ততিতে উল্লেখ করা ওয়েবসাইটটির কোনও অস্বিত্বই নেই।

কেন্দ্রীয় সরকারের প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরোও টুইট করে জানিয়েছে এই বিজ্ঞপ্তিটি ভুয়ো। পর্যটন মন্ত্রক এমন কোনও নির্দেশ জারি করেনি।

 ভাইরাল হওয়া ওই বিজ্ঞপ্তি ভুয়ো, টুইট করে জানিয়েছে প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো।

হোয়াটস‌্অ্যাপ, ফেসবুক, টুইটারে যা-ই দেখবেন, তা-ই বিশ্বাস করবেন না। শেয়ারও করে দেবেন না। বিশেষত এই আতঙ্কগ্রস্ত অবস্থায় তো তো নয়ই। এ ভাবেই ছড়িয়ে পড়ে ভুয়ো খবর। যাচাই করুন। কোনও খবর, তথ্য, ছবি বা ভিডিয়ো নিয়ে মনে সংশয় দেখা দিলে আমাদের জানান এই ঠিকানায়  feedback@abpdigital.in

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন