• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মোদী সরকারকে ‘ফ্যাসিস্ত’ বলায় গ্রেফতার মহিলা গবেষক

louis sofia
গবেষক লুইস সোফিয়া। ছবি- সংগৃহীত।

Advertisement

এক বিজেপি নেত্রীর সামনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সরকারকে ‘ফ্যাসিস্ত’ বলে স্লোগান দেওয়ার দায়ে গ্রেফতার করা হল এক তামিল মহিলা গবেষককে। পরে অবশ্য জামিনে ছাড়া পান তিনি।

সোমবার কানাডা থেকে চেন্নাই আসার সময় বিমানে তামিলনাড়ুর বিজেপি সভানেত্রী তামিলিসাই সুন্দরাজনের সামনে বিজেপি-আরএসএস সরকারকে ‘ফ্যাসিস্ত’ বলে প্রধানমন্ত্রী মোদীর ইস্তফার দাবিতে স্লোগান দেন কানাডায় গবেষণারত লুইস সোফিয়া। দাবি করেন প্রধানমন্ত্রী মোদীর ইস্তফা। তাতে ক্ষিপ্ত হয়ে চেন্নাই বিমানবন্দরেই সোফিয়ার বিরুদ্ধে ‘প্রকাশ্যে গোলমাল বাধানো’র লিখিত অভিযোগ জানান তামিলনাড়ুর বিজেপি সভানেত্রী। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে চেন্নাই থেকে বাবা, মায়ের সঙ্গে বাড়িতে ফেরার জন্য তুতিকোরিন বিমানবন্দরে নামতেই সোফিয়াকে গ্রেফতার করা হয়। পরে অবশ্য জামিনে ছাড়া পান সোফিয়া।

চেন্নাই বিমানবন্দর সূত্রে জানানো হয়েছে, কানাডা থেকে চেন্নাই আসার সময় বিমানে সোফিয়ার সামনে এসে যখন তার হ্যান্ডব্যাগটি নিচ্ছিলেন তামিলনাড়ুর বিজেপি সভানেত্রী সুন্দররাজন, তখন তাঁকে উদ্দেশ্য করে প্রধানমন্ত্রী মোদীর ইস্তফার দাবিতে স্লোগান দেন সোফিয়া। বিজেপি সরকারকে ‘ফ্যাসিস্ত’ও বলেন তিনি। এতেই রেগে যান তামিলনাড়ুর বিজেপি সভানেত্রী।

চেন্নাই বিমানবন্দরে নেমেই তিনি সোফিয়ার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ জানাতে যান। সেই সময় বিমানবন্দরের দু’-এক জন মহিলা কর্মী তাঁকে বোঝানোর চেষ্টা করলে আরও ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন সুন্দররাজন। বলে ওঠেন, ‘‘ও (সোফিয়া) সাধারণ যাত্রী নয়। আমি বুঝে ফেলেছি, ও কোনও জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে জড়িত। আমার সামনে কেউ আমার দলকে ফ্যাসিস্ত বলবে আর আমি মুখ বুঁজে সে সব সহ্য করব আর চুপচাপ চলে যাব?’’

আরও পড়ুন- কর্নাটকে আবার ধাক্কা গেরুয়ার, পুরভোটেও বাজিমাত রাহুল-জোটের​

আরও পড়ুন- পুরুষরাও পীড়িত! তাই কি তাঁদের জন্য কমিশন?​

চেন্নাই বিমানবন্দর থেকে তুতিকোরিনে তাঁদের বাড়িতে যাওয়ার জন্য সোফিয়ার সঙ্গে বিমানে ওঠেন তাঁর বাবা, মা-ও। পরে তামিলনাড়ুর বিজেপি সভানেত্রীর বিরুদ্ধে তুতিকোরিনে থানায় লিখিত অভিযোগ জানাতে যান সোফিয়ার বাবা এ এ সামি। তবে সেই অভিযোগ পুলিশ গ্রহণ করতে অস্বীকার করেছে বলে সামির অভিযোগ। সামির অভিযোগ, তুতিকোরিন বিমানবন্দের নামতেই সোফিয়াকে ঘিরে ধরেন বিজেপি কর্মীরা। তাঁকে লক্ষ্য করে কটূক্তি করা হয়। পরে সুন্দররাজন বলেন, ‘‘দলকে অপমান করায় ওই বিজেপি কর্মীরা সোফিয়ার ওপর অসন্তুষ্ট হয়েছিলেন।’’

গণিতশাস্ত্রের গবেষক ও লেখিকা ২৮ বছর বয়সী সোফিয়া এর আগে তুতিকোরিনে স্টারলাইট কপার প্ল্যান্ট আন্দোলনেও অংশ নেন।

সোমবার তুতিকোরিন বিমানবন্দরে গ্রেফতার হওয়ার আগে সোফিয়া টুইট করে বলেন, ‘‘বিজেপি-আরএসএস সরকারকে ফ্যাসিস্ত বলায় আর প্রধানমন্ত্রী মোদীর ইস্তফার দাবি জানানোয় কী আমাকে বের করে দেওয়া হবে?’’

পরে তামিলনাড়ুর ডিএমকে নেতা করুণানিধি-পুত্র এম কে স্ট্যালিন বলেন, ‘‘ওই স্লোগান তো এখন লক্ষ লক্ষ মানুষের মুখে। অত মানুষকে জেলে পুরতে হলে তো আর জেলে জায়গা থাকবে না!’’

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন