• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘মুখ্যমন্ত্রী ভণ্ড’, অরবিন্দ কেজরীবালকে তোপ গম্ভীরের

Gautam Gambhir
ছবি: সংগৃহীত।

Advertisement

দিল্লিতে বিধানসভা নির্বাচনের দিন যতই এগিয়ে আসছে ততই চড়ছে পারদ। এ বার বাগ্‌যুদ্ধে  জড়ালেন আম আদমি পার্টির (আপ) সাংসদ সঞ্জয় সিংহ ও পূর্ব দিল্লির বিজেপি সাংসদ গৌতম গম্ভীর। আপ প্রধান তথা দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীবালকে আজ ‘ভণ্ড মুখ্যমন্ত্রী’ও বললেন গৌতম। 

আপ সাংসদ সঞ্জয়ের অভিযোগ, গরিবদের জন্য আপ সরকার যে বিনামূল্যে পরিষেবার বন্দোবস্ত করেছে তার বিরোধিতা করেন গম্ভীর। সঞ্জয় বলেন, ‘‘গম্ভীর যদি বিনামূল্যে পরিষেবা দেওয়ার বিরোধিতা করেন, সেই ক্ষেত্রে ওঁর উচিত, সাংসদ হিসেবে প্রাপ্য ৫০ হাজার ইউনিট বিদ্যুৎ মাশুল-সহ সমস্ত বিনামূল্যে পাওয়া পরিষেবা গ্রহণ না-করা।’’ গম্ভীরের মনোভাবকে ‘ভণ্ডামি’ বলেও কটাক্ষ করেন আপ সাংসদ।

টুইটারে গম্ভীরের পাল্টা যুক্তি, গরিবদের বিনামূল্যে পরিষেবা দেওয়ার বিরোধী নন তিনি। তবে আর্থিক ভাবে যাঁরা সচ্ছল, পরিষেবার বিনিময়ে তাঁদের থেকে ন্যূনতম পরিষেবা-মূল্য নেওয়া হোক। এর পরেই কেজরীকে ‘ভণ্ড’ আখ্যা দিয়ে গম্ভীরের মন্তব্য, গত আট মাসে তিনি কোনও সরকারি সুবিধে নেননি। অন্য দিকে, মুখ্যমন্ত্রী গত পাঁচ বছরে করদাতাদের টাকায় নিজের বিজ্ঞাপন করে চলেছেন।

আরও পড়ুনমমতা-কেজরীর লক্ষ্য এক, কিন্তু রাস্তা উল্টো! ভরসা নেই উন্নয়নে?

নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি মতো দিল্লিবাসীদের বিনামূল্যে বিদ্যুৎ ও জল দেওয়ার বন্দোবস্ত করেছে আপ সরকার। মহিলাদের জন্য বিনামূল্যে সরকারি পরিবহণেরও বন্দোবস্ত করা হয়েছে। তা নিয়ে গোড়া থেকেই আপের সমালোচনা করেছে বিজেপি। দিল্লির বিজেপি সভাপতি প্রধান মনোজ তিওয়ারির প্রতিশ্রুতি, ক্ষমতায় এলে আপের তুলনায় ৫ গুণ বেশি পরিষেবা দেবে তাঁর দল। 

যাবতীয় সমালোচনা উড়িয়ে কেজরী জানান, বিনামূল্যে পরিষেবা দেওয়ার জন্য রাজস্ব ক্ষতি হয়নি দিল্লি সরকারের। বরং বেড়েছে চাহিদা। গুজরাতে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপাণীকে নিশানা করে কেজরী জানান, নিজের জন্য ১৯১ কোটি টাকা দিয়ে বিমান না কিনে দিল্লির বোনেদের জন্য বিনামূল্যে পরিবহণের বন্দোবস্ত করেছেন। ৮ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন। তার আগে প্রচারেও আপের প্রতিশ্রুতি, ক্ষমতায় ফিরলে বিনামূল্যে ওয়াইফাই, পড়ুয়াদের বিনামূল্যে পরিবহণ, প্রবীণদের বিনামূল্যে তীর্থযাত্রার বন্দোবস্ত করা হবে। 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন