• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

নতুন জটিলতা! জোট নিয়ে কথাই হয়নি, সনিয়ার বাড়ি থেকে বেরিয়ে বললেন পওয়ার

Sharad Pawar
শরদ পওয়ার ছবি: পিটিআই।

Advertisement

এত দিন মহারাষ্ট্রে জোট সরকারের সূত্রধর মনে করা হচ্ছিল তাঁকে। কিন্তু সোমবার সন্ধ্যায় রাজনীতিকদের সমস্ত হিসাবই গুলিয়ে দিলেন এনসিপি প্রধান শরদ পওয়ার। জানিয়ে দিলেন, শিবসেনা কাদের নিয়ে জোট সরকার গঠনের কথা বলছে, তা তাঁর জানা নেই।

মহারাষ্ট্রের পরিস্থিতি নিয়ে এ দিন দিল্লিতে সনিয়া গাঁধীর সঙ্গে বৈঠক করেন শরদ পওয়ার। মনে করা হচ্ছিল, শিবসেনার সঙ্গে জোট গড়ে সরকার গঠনের দাবি জানানোর আগে, সেই সিদ্ধান্তে সনিয়ার সিলমোহর পেতেই বোধহয় সেখানে গিয়েছেন তিনি। কিন্তু ১০ জনপথ থেকে বেরিয়ে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে সেই জল্পনা উড়িয়ে দেন পওয়ার। তিনি জানান, কোনও কিছুই চূড়ান্ত হয়নি। এখনও অনেক ব্যাপারে আলোচনা হওয়া বাকি। শরদ পওয়ার বলেন, ‘‘কংগ্রেস সভাপতির সঙ্গে বৈঠক হল। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন এ কে অ্যান্টনিও। মহারাষ্ট্রের রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে কথা হয়েছে। ওঁকে সব জানিয়েছি। এ ছাড়াও অন্য অনেক বিষয় নিয়ে কথা হয়েছে।’’

শিবসেনার সঙ্গে জোট বাঁধতে কোনও রকম তাড়াহুড়োও করতে চান না বলে জানান শরদ পওয়ার। তিনি বলেন, ‘‘এনসিপি এবং কংগ্রেস, দুই দলই মহারাষ্ট্রের পরিস্থিতির দিকে নজর রেখেছে। এ ব্যাপারে দলের প্রবীণ ও অভিজ্ঞ নেতাদের মতামতও নেওয়া হবে। পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে তাঁরা নিজেদের মতামত জানাবেন। তার পরই কী পদক্ষেপ করা যায় তা ঠিক করব আমরা।’’

আরও পড়ুন: শিবসেনার সঙ্গে জোট নিয়ে অনিশ্চয়তা! পওয়ারের মন্তব্যে বাড়ছে ধন্দ​

কিন্তু এর মধ্যে যদি বিজেপি ও শিবসেনার মধ্যে মিটমাট হয়ে যায়, সে ক্ষেত্রে সরকার গঠনের সুযোগ হাতছাড়া হয়ে যাবে না তো? এই প্রশ্নের জবাবে পওয়ার বলেন, ‘‘বিজেপি কী করবে তা ঠিক করার অধিকার ওদেরই। আমাদের হাতে ছ’মাস সময় রয়েছে।’’

মহারাষ্ট্রে সরকার গঠন নিয়ে টানাপড়েনের মধ্যেই এ দিন তাঁদের কাছে ১৭০ বিধায়কের সমর্থন রয়েছে বলে দাবি করেন শিবসেনা মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত। কিন্তু এ ব্যাপারে তাঁর কিছু জানা নেই বলে সাফ জানিয়ে দেন পওয়ার। তাঁর কথায়, ‘‘এই সংখ্যা কোত্থেকে এল তা আমার জানা নেই। যাঁরা বলছেন, তাদেরকেই বরং জিজ্ঞাসা করুন।’’

আরও পড়ুন: বিক্ষোভে পুলিশের লাঠিচার্জ, আহত জেনইউ-র বহু ছাত্র, বিপর্যস্ত দিল্লির মেট্রো পরিষেবা​

এর আগে, এ দিন মুম্বই থেকে দিল্লি পৌঁছনোর পরেও একই কথা বলেন শরদ পওয়র। বিজেপি এবং শিবসেনা দীর্ঘ দিন একে অপরের সঙ্গে ছিল, নির্বাচনেও একসঙ্গে লড়েছিল। তাদেরকেই রাস্তা খুঁজে বার করতে হবে বলে জানিয়ে দেন তিনি। তার পরেই মহারাষ্ট্রে শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেস জোটের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত হয়ে পড়ে। সনিয়ার সঙ্গে বৈঠকের পরও শরদ পওয়ার একই অবস্থান বজায় রাখায়, তা নতুন মাত্রা পেয়েছে। 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন
বাছাই খবর

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন