মন কষাকষি ভুলে ফের কি কাছাকাছি বিজেপি-শিবসেনা? রবিবার বাল ঠাকরের মৃত্যুবার্ষিকীতে পর পর ঘটে যাওয়া ঘটনাবলী এমনই জানান দিচ্ছিল। বিশেষ করে বিজেপির তরফে যে চেষ্টার কোনও কসুর ছিল না, তা এক রকম স্পষ্টই হয়ে গিয়েছিল। এ বার সেই জল্পনা আরও উস্কে দিলেন এনসিপি প্রধান শরদ পওয়ার। দীর্ঘ দিন একে অপরের সঙ্গে থাকায় বিজেপি এবং শিবসেনাকেই রাস্তা খুঁজে বার করতে হবে বলে সাফ জানিয়ে দিলেন তিনি। এমনকি মহারাষ্ট্রে এনডিএ বিরোধী জোট গড়া নিয়েও নতুন করে রহস্য তৈরি করলেন তিনি। 

বিজেপির দীর্ঘ দিনের শরিক শিবসেনার সঙ্গে জোট গড়ার প্রশ্নে শুরু থেকেই ইতস্তত করছিলেন সনিয়া গাঁধী। কিন্তু মহারাষ্ট্রের কংগ্রেস নেতাদের চাপে শেষমেশ আলোচনায় যেতে রাজি হন তিনি। এ ব্যাপারে শরদ পওয়ারও মধ্যস্থতা করেছিলেন বলে দলীয় সূত্রে খবর। কিন্তু সেই শরদ পওয়ারের গলাতেই এ দিন অন্য সুর ধরা পড়ল। মহারাষ্ট্রে সরকার গঠন নিয়ে সনিয়ার সঙ্গে বৈঠক করতে এ দিন দিল্লিতে এসেছেন তিনি। সেখানে এনডিএ বিরোধী জোট সরকারের সম্ভাবনার কথা জানতে চাইলে পওয়ার বলেন, ‘‘নির্বাচনে বিজেপি-শিবসেনা একসঙ্গে লড়েছিল। আলাদা ভাবে লড়েছিল এনসিপি-কংগ্রেস। তার পরেও এই প্রশ্ন ওঠে কোত্থেকে? বিজেপি-শিবসেনাকেই নিজেদের রাস্তা খুঁজে বার করতে হবে। আমরা নিজেদের মতো করেই রাজনীতি করব।’’

শিবসেনার তরফে যদিও এখনও পর্যন্ত এনসিপি-কংগ্রেসকে নিয়ে জোট সরকার গড়ারই বার্তা দেওয়া হচ্ছে। সব কিছু ঠিকঠাক চললে, ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহেই মহারাষ্ট্রে জোট সরকার গঠন করা সম্ভব হবে বলেও এ দিন জানিয়েছেন দলের মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত। এ বিযয়ে প্রশ্ন করলে পওয়ার বিস্মিত হয়ে বলেন, ‘‘তাই নাকি!’’

আরও পড়ুন: ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদে ফের উত্তাল জেএনইউ, মাঝ রাস্তায় পড়ুয়াদের সংসদভবন অভিযান রুখে দিল পুলিশ​

আরও পড়ুন: এ বার নাম পরিবর্তন আগরার? তোড়জোড় শুরু করল যোগী সরকার​

তাঁর এই মন্তব্য নিয়েই নতুন করে জল্পনা শুরু হয়েছে। কারণ  শুক্রবারও জোট সরকার গড়া নিয়ে আশাবাদী ছিলেন তিনি। জানিয়ে দিয়েছিলেন, মহারাষ্ট্রে শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেসই সরকার গড়বে, যার স্থায়িত্ব হবে পুরো পাঁচ বছর। তার পরেই এ দিন সম্পূর্ণ উল্টো কথা বলেন তিনি। তাই প্রশ্ন উঠছে, মৃত্যুবার্ষিকীতে বাল ঠাকরের উদ্দেশে বিজেপির শ্রদ্ধাজ্ঞাপন, তাঁকে শ্রদ্ধা জানাতে দেবেন্দ্র ফড়ণবীসের শিবাজি পার্কে গমন, এ সবের জেরেই কি জোট গঠন অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে? যদিও তিন দলের কেউই এ নিয়ে স্পষ্ট করে কিছু বলেননি।