• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বউয়ের সঙ্গে ফেসবুক চ্যাট! যুবককে খুনই করে দিল রাগী বর

Murder
প্রতীকী চিত্র।

শুধুই সন্দেহ। আর তার জন্য যুবককে খুন হতে হল। এক মহিলার সঙ্গে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপে চ্যাট করার জন্য এমন চরম শাস্তি মিলেছে পুণের এক যুবকের। রবিবার ভর দুপুরে পুণের একটি হাসপাতাল চত্বরে এই খুন করা হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সৌরভ ব্যাঙ্কট যাদব নামে ২৮ বছরের ওই যুবককে খুনের অভিযোগে ইতিমধ্যেই দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুণের সাংভি থানার পুলিশের দাবি, স্ত্রীর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কের সন্দেহের জেরেই এই খুন করে অজয় শাইখ। সঙ্গে নেন বন্ধু সনয়া বারাথেকে। দু’জনেরই বয়স ২৩ থেকে ২৫ বছরের মধ্যে। বারাথের বিরুদ্ধে অতীতেও মারমারি করার অভিযোগ ওঠে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

কিন্তু সত্যিই কি কোনও পরকীয়া সম্পর্ক ছিল খুন হওয়া যুবকের? এখনও পর্যন্ত তদন্তে তেমন কিছু প্রমাণ হাতে পায়নি পুলিশ। তবে সৌরভ ওই মহিলার পূর্ব পরিচিত ছিলেন। সেই সূত্রেই সোশ্যাল মিডিয়ায় কথা হত বলে জানিয়েছেন নিহত সৌরভের ভাই সুশান্ত ব্যাঙ্কট যাদব। তিনি পুলিশকে জানিয়েছেন, দাদা সৌরভের সঙ্গে পরিচয়ের পরে ওই মহিলার বিয়ে হয় অভিযুক্ত অজয় শাইখের। সেই সূত্রে যোগাযোগ ছিল।

আরও পড়ুন: চিনা আগ্রাসনেই এলএসিতে উত্তেজনা বেড়েছে, লোকসভায় রাজনাথ

নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, রবিবার দুপুর সাড়ে ১২টা নাগাদ স্থানীয় আয়ুন্ধ হাসপাতাল চত্বরে সৌরভকে খুন করা হয়। কাছেই সঞ্জয়নগরে তাঁর বাড়ি। অভিযোগ পাওয়ার পরে একজনকে পুণে থেকে এবং অপর জনকে পিমপ্রি-চিনচোয়াড় এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশ ইতিমধ্যেই মূল অভিযুক্ত অজয়ের স্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছে। ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপে সৌরভের সঙ্গে চ্যাটের কথা তিনি স্বীকার করলেও জানিয়েছেন কোনও দিন তাঁদের সামনাসামনি দেখা হয়নি।

পুলিশ জানিয়েছে, দুই বন্ধু অজয় ও সনয়া মিলে খুন করে। প্রথমে সৌরভকে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতাল চত্বরে। এর পরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করা হয়। গলায়, হাতে, ডান চোখে অস্ত্রের কোপ মারা হয়। সাংভি থানার পুলিশ দুই অভিযুক্তের বিরুদ্ধে খুনের মামলা রুজু করেছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন