জিএসটির নকল বিল বানিয়ে ১৭৭.৬৪ কোটি টাকা প্রতারণার অভিযোগে এক যুবককে গ্রেফতার করল পুলিশ। শনিবার গুজরাতের গাঁধীনগর থেকে তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই যুবকের নাম এহসাস আলি সৈয়দ। বয়স ২৯ বছর। তিনি বডোদরার বাসিন্দা। তাঁর ৬৬টা নকল সংস্থা রয়েছে। প্রত্যেকটা সংস্থার মালিক নিজেই। কিন্তু বিভিন্ন নামে সেই সংস্থাগুলো চালান সৈয়দ।

সৈয়দ এত নিখুঁত ভাবে এই সংস্থাগুলো গড়ে তুলেছিলেন যে এতদিন জিএসটি ফাঁকি দিয়েও কী ভাবে ঘুর পথে জিএসটি-র টাকা ফেরত পাচ্ছিলেন তা আয়কর দফতরের কেউই ধরতে পারেননি। নিজের প্রত্যেকটা নকল সংস্থার জন্য আলাদা জিএসটি রেজিস্ট্রেশন, জিএসটি পরিচয়পত্র, সিম কার্ড, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট এমনকি, অনলাইন পাসওয়ার্ডও তৈরি করে ফেলেছিলেন সৈয়দ।

আরও পড়ুন: পুরুষদের নজর এড়াতে নিজের মেয়ের বুকেই গরম ছ্যাঁকা দেন মায়েরা!

সম্প্রতি তাঁর সমস্ত সংস্থা মিলিয়ে মোট ১ হাজার ২১০ কোটি টাকার জিএসটি দেওয়ার একটি নকল রশিদ বানিয়ে নেন সৈয়দ। ১ হাজার ২১০ কোটি টাকা জিএসটি দেওয়ার জন্য ১৭৭.৬৪ কোটি টাকা দাবি করেন সৈয়দ। সেই বিল দেখেই সন্দেহ হয় আয়কর দফতরের অফিসারদের।

আরও পড়ুন: বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু বেসক্যাম্পে গরম পিৎজা পৌঁছে দিল ডমিনোজ

পুলিশ জানিয়েছে, তাঁকে আটক করে জেরা করার পর সত্যিটা সামনে আসে। তারপরই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে।