• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সেনার জন্য দীপ জ্বালুন: মোদী

বিজয়ার বার্তায় তরজারই সুর

Narendra Modi and Sonia Gandhi
নাম না করে বিজেপি এবং কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব তোপ দাগলেন পরস্পরের বিরুদ্ধে। ফাইল চিত্র।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলছেন, ‘একতাই দেশের শক্তি।’ কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গাঁধী বলছেন, ‘মিথ্যাচার শাসকের ধর্ম হতে পারে না।’

প্রধানমন্ত্রী বলছেন, ‘দেশকে বিভাজিত করার জন্য, মনে সন্দেহের বিষ ঢোকাতে কিছু শক্তি সমানে কাজ করে চলেছে।‘ 
সনিয়া বলছেন, ‘ঔদ্ধত্যকে সরিয়ে নম্রতা ও বিবেচনাবোধ ফিরিয়ে আনা উচিত শাসক দলের।’ বিজয়াদশমী এবং দশেরা উপলক্ষে তাঁদের বার্তায়, আজ নাম না করে বিজেপি এবং কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব এ ভাবেই তোপ দাগলেন পরস্পরের বিরুদ্ধে।

আজ তাঁর মাসিক ‘মন কি বাত’ রেডিয়ো অনুষ্ঠানে নরেন্দ্র মোদী সীমান্তের সেনাদের জন্য প্রদীপ জ্বালানোর ডাক দেন। তিনি বলেন, “যাঁরা পরিবারকে ছেড়ে সীমান্তে অটল ভাবে দাঁড়িয়ে রয়েছেন, এই উৎসবের মরসুমে তাঁদের যেন আমরা ভুলে না যাই। ভারতমাতার এই মহান পুত্র ও কন্যাদের সম্মানে আমাদের প্রত্যেকের বাড়িতে প্রদীপ জ্বালানো কর্তব্য। আমি সেনাদের জানাতে চাই যে, গোটা দেশ আপনাদের সঙ্গে রয়েছে। আপনাদের প্রতি শুভেচ্ছা জানাচ্ছে।’’

আরও পড়ুন: উদ্ধবের নিশানায় রাজ্যপাল

অন্য দিকে বিজয়াদশমী তথা দশেরার বার্তা দিয়ে মোদী সরকারের উদ্দেশে আজ নাম না করে তোপ দেগেছেন কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গাঁধী। তাঁর বক্তব্য, “জনসাধারণের কাছেই প্রশাসনের শেষ দায়বদ্ধতা থাকা উচিত। সেখানে ঔদ্ধত্য, মিথ্যাচার, প্রতিশ্রুতি ভঙ্গের জায়গায় শাসকের থাকার কথা নয়।’’ তাঁর কথায়, “অন্যায়কে হারিয়ে ন্যায়ের জয়, মিথ্যাকে সরিয়ে সত্যের প্রকাশ, ঔদ্ধত্যের পরিবর্তে বিবেচনাবোধ আসবে— এটাই দশেরার সংকল্প।’’

সনিয়া গাঁধীর বার্তা সংক্ষিপ্ত হলেও ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানে দীর্ঘ বক্তৃতা দিয়েছেন মোদী। তাঁর কথায়, “একতাই শক্তি, একতাই প্রগতি। এ রকম অনেক শক্তি রয়েছে, যারা ক্রমাগত সন্দেহের বীজ রোপণ করে চলেছে আমাদের মনে। তাদের উদ্দেশ্য দেশকে বিভাজিত করা। এই দেশও প্রতিবার এমন চেষ্টার মুখের উপর জবাব দিয়েছে বারবার।’’

আরও পড়ুন: নীতীশকে পাল্টা খোঁচা তেজস্বীর

আজ তাঁর বক্তৃতায় ‘ভোকাল ফর লোকাল’ মন্ত্র ফের মনে করিয়ে দিয়ে মোদী বলেন, “এই উৎসবের মরসুমে সবাই খুবই বাজার করছেন। সবাইকে আমি মনে করিয়ে দিতে চাই, বাজার করার সময় ‘ভোকাল ফর লোকাল’-এর বিষয়টিকে মাথায় রাখুন। কেনাকাটার ক্ষেত্রে স্থানীয় পণ্যকে অগ্রাধিকার দিন।’’  

আগামী ৩১ অক্টোবর সর্দার বল্লবভাই পটেলের জন্মবার্ষিকী এবং ইন্দিরা গাঁধীর মৃত্যুবার্ষিকী। তাঁদের কথা বক্তৃতায় উল্লেখ করেছেন মোদী। গুজরাতে পটেলের স্ট্যাচু অব ইউনিটি-কে ঘিরে সে দিন বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তিনি যোগ দেবেন বলে জানিয়েছেন। সব ব্যাপারেই নেহরুকে দোষী ঠাওরানো মোদী আজ ইন্দিরার মৃত্যুদিনের কথা উল্লেখ করে বলেন, “এই দিনে আমরা দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীকে হারিয়েছিলাম। অত্যন্ত শ্রদ্ধার সঙ্গে তাঁর স্মৃতির প্রতি সম্মান জানাচ্ছি।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন