• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বিতর্কিত মানচিত্র পেশ পাকিস্তানের, প্রতিবাদে বৈঠক ছাড়ল ভারত

Ajit Doval
অজিত ডোভাল।

সীমান্ত সঙ্ঘাত নিয়ে নয়াদিল্লি এবং বেজিংয়ের মধ্যে উত্তেজনা জিইয়ে রয়েছে। এই তপ্ত আবহেই মঙ্গলবার সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজেশন (এসসিও)-এর সদস্য দেশগুলির জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা (এনএসএ)-দের বৈঠকে বিতর্কিত মানচিত্র দেখিয়ে ভারতকে খোঁচা দেওয়ার চেষ্টা করল আর এক প্রতিবেশী পাকিস্তান। তার প্রতিবাদ জানিয়ে মাঝপথেই বৈঠক ছেড়ে বেরিয়ে আসে ভারত। সূত্রের খবর, বৈঠকে পাকিস্তানকে ওই বিতর্কিত মানচিত্র পেশ না করার জন্য বার বার আবেদন করেছিলেন আমন্ত্রক দেশ রাশিয়ার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা। কিন্তু তাতে কর্ণপাত করেননি ইসলামাবাদের প্রতিনিধি।

এর আগে গত ৫ অগস্ট, সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ রদ এবং জম্মু-কাশ্মীর রাজ্যকে দু’টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত করার বর্ষপূর্তির দিনে বিতর্কিত একটি মানচিত্র প্রকাশ্যে আনে ইসলামাবাদ। তাতে গোটা জম্মু-কাশ্মীর ও গুজরাতের জুনাগড়কে পাক ভূখণ্ডের অংশ বলে দেখানো হয়। পাকিস্তানের ওই পদক্ষেপকে ‘রাজনৈতিক পাগলামি’ বলেই ব্যাখ্যা করেছিল নয়াদিল্লি। কিন্তু দুই প্রতিবেশীর গণ্ডি ছাড়িয়ে এ বার মানচিত্র বিতর্ক ঢুকে পড়ল আন্তর্জাতিক মঞ্চেও। এ দিন ভার্চুয়াল বৈঠক বসেছিল এসসিও-র সদস্য দেশগুলির জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টাদের নিয়ে। সেখানেই এমনই কল্পিত মানচিত্র পেশ করে বসেন পাক প্রতিনিধি ইউসুফ। সঙ্গে সঙ্গেই তার প্রতিবাদ জানান ভারতীয় এনএসএ অজিত ডোভাল। বিতর্কের জল গড়ায় বহু দূর। পাক প্রতিনিধির ওই কাণ্ডে পরিস্থিতি এমনই উত্তপ্ত হয় যে, রুশ প্রতিনিধির সঙ্গে আলোচনা করে বৈঠক ছেড়ে বেরিয়ে যান ডোভাল।

পরে বিদেশ মন্ত্রকের তরফে ইসলামাবাদের ওই আজব পদক্ষেপের তীব্র নিন্দা করে বলা হয়, ‘‘পাকিস্তানের এনএসএ ইচ্ছাকৃত ভাবে একটি কল্পিত মানচিত্র দেখিয়েছেন যা নিয়ে ইদানীং পাকিস্তান প্রচার চালাচ্ছে।’’ বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব বলেন, ‘‘এমন পদক্ষেপ করে আমন্ত্রক দেশের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টাকে নির্লজ্জ ভাবে অবজ্ঞা করা হয়েছে। পাশাপাশি এতে বৈঠকের বিধিও ভঙ্গ হয়েছে।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘যেমনটা আশা করা হয়েছিল তেমনই পদক্ষেপ করেছে পাকিস্তান।’’

আরও পড়ুন: প্রণব-স্মরণে সভা শুভেন্দুর, মুখেই আনলেন না তৃণমূলের নাম

সূত্রের খবর, পাকিস্তান ভারতের ভূখণ্ডকে নিজেদের বলে দেখিয়ে যে বিতর্কিত মানচিত্র এ দিনের বৈঠকে তুলে ধরেছে তাতে এসসিও-র বিধি লঙ্ঘিত হয়েছে। কারণ এমন পদক্ষেপের ফলে ওই মঞ্চের সদস্য দেশগুলির সার্বভৌমত্ব এবং এলাকাভিত্তিক অখণ্ডতা রক্ষার যে শর্ত রয়েছে তা ভঙ্গ হয়েছে। সূত্র মারফত আরও জানা গিয়েছে, ভারত নিজে পাকিস্তানের ওই অপচেষ্টার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেই। পাশাপাশি, এ নিয়ে সরব হন আমন্ত্রক দেশ রাশিয়ার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা নিকোলাই পাত্রুশ্চেভও। ওই বৈঠকে যোগ দেওয়ার জন্য অজিত দোভালকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন তিনি। এ-ও জানা গিয়েছে, রাশিয়া স্পষ্ট করে দিয়েছে, তারা পাকিস্তানের ওই ‘উস্কানিমূলক কাজ’ মোটেই বরদাস্ত করবে না।

আরও পড়ুন: চিনা আগ্রাসনেই এলএসিতে উত্তেজনা বেড়েছে, লোকসভায় রাজনাথ

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন