• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘সর্বনাশা পদক্ষেপ’, সেনার সঙ্গে হাত মেলানো নিয়ে দলকে সতর্কবার্তা কংগ্রেস নেতা সঞ্জয় নিরুপমের

Sanjay Nirupam
সঞ্জয় নিরুপম। —ফাইল চিত্র।

সেনা-বিজেপি দ্বন্দ্বে ‘নাক গলানো’ নিয়ে আগেই দলকে সতর্ক করেছিলেন তিনি। এ বার মহারাষ্ট্রে সেনার সঙ্গে হাত মেলানো নিয়ে দলকে সাবধান করলেন কংগ্রেস নেতা সঞ্জয় নিরুপম। দীর্ঘ তিন দশক ধরে বিজেপির শরিক শিবসেনা। তাদের হাত ধরার সিদ্ধান্ত ‘সর্বনাশা’ প্রমাণিত হতে পারে বলে দাবি করলেন তিনি।

নির্বাচনী ফলাফল ঘোষণার পর নির্ধারিত সময় পেরিয়ে গেলেও এখনও মহারাষ্ট্রে সরকার গঠনে এগিয়ে আসেনি কোনও দল। বৃহত্তম দল হিসাবে রাজ্যপাল ভগৎ সিংহ কোশিয়ারি যদিও বিজেপিকে আহ্বান জানালেও, রবিবার দেবেন্দ্র ফডণবীসের বাড়িতে বৈঠকের পর সেই প্রস্তাব ফিরিয়েছেন দলের নেতারা। এর পর শিবসেনার ডাক পড়ে। সোমবার সন্ধ্যার মধ্যে সিদ্ধান্ত জানাতে হবে তাদের।

এমন পরিস্থিতিতে এনসিপি এবং তাঁদের দলকে সরকার গঠন করতে আহ্বান জানানো উচিত বলে রবিবার রাজ্যপালের উদ্দেশে টুইটারে লেখেন কংগ্রেস নেতা মিলিন্দ দেওরা। তাঁর এই মন্তব্যেরই তীব্র বিরোধিতা করেছেন সঞ্জয় নিরুপম।

আরও পড়ুন: মহারাষ্ট্রে সেনা-বিজেপি দ্বন্দ্বে নয়া মোড়, মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফা দিলেন সেনা সাংসদ​

এক সময় রাজ্যসভায় শিবসনার সাংসদ ছিলেন সঞ্জয় নিরুপম। পরে যোগ দেন কংগ্রেসে। এ বছর লোকসভা নির্বাচনের ঠিক আগে তাঁকে মহারাষ্ট্র কংগ্রেসের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে মিলিন্দ দেওরাকে ওই জায়গায় আনা হয়। সেই থেকে একাধিক বিষয়ে দু’জনের মধ্যে মতবিরোধ দেখা গিয়েছে। মহারাষ্ট্রের সরকার গঠনের ক্ষেত্রেও উল্টো সুর ধরা পড়েছে সঞ্জয় নিরুপমের গলায়। ২৮৮ সদস্যের মহারাষ্ট্র বিধানসভায় ম্যাজিক সংখ্যা ১৪৫। কংগ্রেস-এনসিপির সম্মিলিত আসন সংখ্যা সেখানে ৯৮। তাই সরকার গড়তে গেলে ৫৬টি আসনে জয়ী সেনার হাত ধরতেই হবে, যা সর্বনাশা সিদ্ধান্ত প্রমাণিত হতে পারে বলেই তাঁর মত।

শনিবার মধ্যরাতে নিজের টুইটার হ্যান্ডলে সঞ্জয় লেখেন, ‘পাটিগণিতের হিসাবে এই মুহূর্তে মহারাষ্ট্রের যে রাজনৈতিক পরিস্থিতি, তাতে কংগ্রেস-এনসিপি মিলে সরকার গড়া অসম্ভব। সে ক্ষেত্রে শিবসেনার হাত ধরার প্রয়োজন পড়বে। কিন্তু পরিস্থিতি যা-ই হোক না কেন, শিবসেনার সঙ্গে ক্ষমতা ভাগ করার প্রশ্নই ওঠে না। এই সিদ্ধান্ত সর্বনাশা প্রমাণিত হতে পারে।’

সঞ্জয় নিরুপমের টুইট।

আরও পড়ুন: ‘না’ বিজেপির, মহারাষ্ট্রে ডাক পেল শিবসেনা​

এর আগে, এনসিপি প্রধান শরদ পওয়ারের সঙ্গে বৈঠকের পর গত সপ্তাহে সেনার সঙ্গে হাত মেলানোর সম্ভাবনা খারিজ করেছিলেন কংগ্রেস দলনেত্রী সনিয়া গাঁধীও। কিন্তু মহারাষ্ট্রে কংগ্রেসের অন্দরেই এ নিয়ে ভিন্ন সুর ধরা পড়েছে। দলের রাজ্যসভা সাংসদ হুসেন ডালওয়াই সনিয়াকে চিঠি লিখে জানান, বিজেপির পরিবর্তে শিবসেনা নেতৃত্বাধীন সরকারে আপত্তি নেই রাজ্যের মুসলিমদের। কংগ্রেসের সঙ্গে হাত মেলাতে ইতিমধ্যে শিবসেনার তরফেও একাধিক প্রতিনিধি পাঠানো হয়েছে। তবে এ নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছনোর আগেই কংগ্রেসকে সতর্ক করে দিলেন সঞ্জয় নিরুপম।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন