• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আমেরিকা, ফ্রান্সের সঙ্গে চুক্তির উড়ান

International Flights
প্রতীকী ছবি।

নিয়মিত আন্তর্জাতিক যাত্রী-উড়ান শুরুর পথে এক ধাপ এগোল কেন্দ্র সরকার। নির্দিষ্ট কয়েকটি দেশের সঙ্গে চুক্তি করে ভারত ও সেই দেশের মধ্যে যাত্রী-উড়ান শুরুর কথা ঘোষণা করলেন বিমানমন্ত্রী হরদীপ সিংহ পুরী। তিনি জানিয়েছেন, সংযুক্ত আমিরশাহীর সঙ্গে এই চুক্তি হয়েছে। দুই দেশের মধ্যে যাত্রী পরিবহণ শুরুও হয়েছে। আজ, ১৭ জুলাই থেকে আমেরিকা ও কাল, ১৮ তারিখ ফ্রান্সের সঙ্গে ভারতের উড়ান শুরু হবে। জার্মানি এবং ইংল্যান্ডের সঙ্গে চুক্তিও প্রায় শেষ পর্যায়ে।

বৃহস্পতিবার এই ঘোষণা করে পুরী অবশ্য পরিষ্কার করে দেন, “এটাকে কোনও ভাবেই সাধারণ আন্তর্জাতিক যাত্রী-উড়ান বলা যাবে না। অনেক নিষেধাজ্ঞার মধ্যে দিয়ে যাত্রীদের যাতায়াত করতে হবে।”

যেহেতু বেশ কিছু নিষেধাজ্ঞার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে এই উড়ান, তাই বিমান মন্ত্রকের পরিভাষায় একে ‘বাবল্‌ ফ্লাইট’ বা বুদবুদ উড়ান বলা হচ্ছে। প্রথমত, কোনও যাত্রীর পাসপোর্ট, ভিসা থাকলেই তিনি যাত্রা করতে পারবেন না। বিদেশে যেতে হলে, সেই দেশের বিশেষ অনুমতি লাগবে। বিদেশ থেকে ভারতে আসতেও বিশেষ অনুমতির প্রয়োজন হবে। অনুমতি সাপেক্ষে বিদেশিদেরও আসতে দেওয়া হবে।

করোনা আবহে গত ২২ মার্চের পর ভারত থেকে সাধারণ আন্তর্জাতিক উড়ান বন্ধ হয়ে গিয়েছে। এর পরে মে মাস থেকে বন্দে ভারত প্রকল্পে উড়ান চালু করে কেন্দ্র। বিদেশে আটকে থাকা ভারতীয়দের দেশে ফেরানোর জন্যই মূলত এই উড়ান চালু হয়েছিল। এয়ার ইন্ডিয়াকে দিয়ে বিদেশ থেকে ভারতীয়দের উড়িয়ে আনা শুরু হয়। জুন মাসের পরে ভারতে আটকে থাকা বহু মানুষ ওই উড়ানে বিদেশেও যাতায়াত শুরু করেন। এঁরা মূলত অনাবাসী ভারতীয়। বিদেশিও অনেকে ছিলেন। 

এ নিয়ে প্রথম আপত্তি তোলে আমেরিকা। তাদের অভিযোগ, এ ভাবে ভারতের একটি উড়ান সংস্থা একচেটিয়া ব্যবসা করতে পারে না। তাদের দেশের উড়ান সংস্থাকেও একই ভাবে সুযোগ করে দিতে হবে। এর পরেই ঠিক হয়, এই উড়ান চালাতে ইচ্ছুক প্রতিটি দেশের সঙ্গেই ভারত সরকার আলাদা করে চুক্তি করে উড়ান চালাবে।

নিছক বেড়াতে যাওয়ার জন্য কেউ এই উড়ান ব্যবহার করতে পারবেন না বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন মন্ত্রী। প্রয়োজনের গুরুত্ব বুঝে  অনুমতি দেওয়া হবে। কতটা জরুরি প্রয়োজন, সেটা সংশ্লিষ্ট দেশই ঠিক করবে। পুরী জানিয়েছেন, টিকিট কাটতে হবে এক পিঠের। ভাড়াও বেঁধে দেওয়া হবে। মন্ত্রীর কথায়, “এখন আমেরিকা ও ইউরোপের মধ্যেই সাধারণ যাত্রী উড়ান শুরু হয়নি। প্রতিটি দেশের নিজস্ব নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। এর মধ্যে সাধারণ আন্তর্জাতিক উড়ান চালু করার প্রশ্নই নেই। শুধু নির্দিষ্ট কিছু দেশের সঙ্গে চুক্তি করে আমরা এই উড়ান চালাব।”

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন